BREAKING NEWS

৫ মাঘ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১৯ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

জাতীয় পতাকায় অশোক চক্রের জায়গায় ইসলামিক হরফ, গুজরাটে গ্রেপ্তার ৪

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: November 26, 2020 4:33 pm|    Updated: November 26, 2020 4:33 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জাতীয় পতাকার (National Flag) অবমাননার অভিযোগে গুজরাটে (Gujrat) গ্রেপ্তার তিন নাবালক ও এক মহিলা। রাজ্যের আনন্দ জেলার উমরেথ জেলায় ঘটনাটি ঘটেছে বলে জানা গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: ‘ওল্ড হায়দরাবাদে কোনও পাকিস্তানি থাকলে দায়ী মোদি-অমিত শাহ’, তোপ ওয়েইসির]

জানা গিয়েছে, উমরেথের কাদিয়াভাল নামের একটি জায়গায়। বছর তিরিশের ওই মহিলা, তার দশ বছরের ছেলে ও আরও দু’জন নাবালক মিলে ওই মহিলার বাড়িতে ভারতের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে। ওই পতাকায় অশোক চক্রের জায়গায় ইসলাম ধর্মের কিছু হরফ লেখা ছিল। এক ব্যক্তি সেই ঘটনা ক্যামেরাবন্দি করে তা টুইট করেন। টুইটে আনন্দ পুলিশ ও গুজরাট পুলিশকে ট্যাগও করেন তিনি। তারপরই নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। আনন্দ ডিভিশনের ডিএসপি বিডি জাদেজা বলেন, “বিষয়টি নজরে আসতেই আমরা এফআইআর দায়ের করেছি। যে মহিলার বাড়িতে পতাকা উত্তোলন করা হয়েছিল সেই মহিলাকে গ্রেপ্তার করেছি। তিনজন নাবালককে জুভেনাইল আদালতে পেশ করা হয়েছে। ওই পতাকায় অশোক চক্রের জায়গায় ইসলাম ধর্মের কিছু হরফ লেখা ছিল। ওই মহিলার উচিত ছিল বাচ্চাদের এহেন কাজে বাধা দেওয়া।”

উল্লেখ্য, বছর দুয়েক আগে ভারতের জাতীয় পতাকার আদলে পাপোশ তৈরি করে বিতর্কে জড়িয়ে পড়ে আমাজন। শোরগোল পড়ামাত্র এখন ওই পাপোশ আর পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানায় সংস্থাটি। এর আগে হিন্দু দেবদেবীর ছবি আঁকা পাপোশ বিক্রি হয়েছিল এই অনলাইন সাইটে। সেক্ষেত্রে সংস্থার সাফাই ছিল, যে কেউ বিক্রির জন্য সাইটে কোনও প্রোডাক্টের ছবি আপলোড করতে পারেন। থার্ড পার্টি যুক্ত থাকায় তা সরাসরি আমাজনের নজরে আসে না। চোখ পড়া মাত্র তা রুখতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে আশ্বাস দিয়েছিল সংস্থাটি। সব মিলিয়ে তেরঙ্গার অবমাননার একাধিক ঘটনা অতীতে ঘটেছে। এনিয়ে কড়া আইনের দাবীও জানানো হয়েছে বহুবার।

[আরও পড়ুন: প্রাপ্তবয়স্ক নারীর স্বেচ্ছা সহবাসে বাধা নেই, ‘লাভ জেহাদ’ বিতর্কের মাঝে তাৎপর্যপূর্ণ রায় আদালতের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement