১৫ ফাল্গুন  ১৪২৬  শুক্রবার ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

শ্লীলতাহানির অভিযোগ জানানোর ‘বদলা’, নির্যাতিতার মাকে পিটিয়ে মারল অভিযুক্তরা

Published by: Bishakha Pal |    Posted: January 18, 2020 8:56 am|    Updated: January 18, 2020 10:37 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বছর দুই আগে মেয়েকে যারা শ্লীলতাহানি করেছিল, তাদের হাতেই মৃত্যু হল মায়ের। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের কানপুরে। জামিনে ছাড়া পেয়ে অভিযুক্তরা বেধড়ক পেটাল নির্যাতিতার মাকে। তার ফলে মৃত্যু হয়েছে ওই মহিলার। ঘটনার ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ঘটনায় নতুন করে অভিযোগ দায়ের করে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে খবর, অভিযুক্ত ওই ৬ জনের নাম আবিদ, মিন্টু, মেহবুব, চাঁদবাবু, জামিল ও ফিরোজ। ২০১৮ সালে তাদের শ্লীলতাহানির ঘটনায় গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, ১৩ বছরের এক নাবালিকার শ্লীলতাহানি করেছে তারা। কিন্তু তাদের কোনও শাস্তি হয়নি। স্থানীয় আদালতে জামিন পেয়ে যায় তারা। তারপর, গত বৃহস্পতিবার, ৯ জানুয়ারি ওই নাবালিকার বাড়িতে চড়াও হয় চার অভিযুক্ত। নাবালিকার পরিবারকে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য চাপ দিতে থাকে। কিন্তু পরিবারের লোকেরা তাদের দাবি মানতে চায়নি। তখন নির্যাতিতার মাকে বেধড়ক মারধর শুরু করে ওই ৬ জন। সূত্রের খবর, বাধা দিতে গিয়ে প্রহৃত হন আরও এক মহিলা। তাঁদের কানপুর হাসপাতালে ভরতি করা হয়।

[ আরও পড়ুন: ‘রাজনৈতিক স্বার্থে নোংরা খেলা চলছে’, ফাঁসির দিন পিছতেই কান্নায় ভেঙে পড়লেন নির্ভয়ার মা ]

নির্যাতিতার মাকে মারধর করার একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেখানে দেখা গিয়েছে লাল কুর্তা পরা এক মহিলার উপর রীতিমতো লাথি চালাচ্ছে কয়েকজন যুবক। মারধর করা হচ্ছে তাঁকে। সাদা কুর্তা পরা এক যুবক ওই মহিলার মুখেও আঘাত করে। ছাদ থেকে তোলা হয়েছে ভিডিওটি। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে অভিযুক্তদের ফের গ্রেপ্তারের দাবিতে সরব হয়েছে নেটিজেনরাও। ঘটনায় নতুন করে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। মামলা দায়েরও করা হয়েছে। পুলিশ সূত্রে খবর, অভিযুক্তদের মধ্যে ৩ জনকে ইতিমধ্যেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকিদের খোঁজ চলছে।

[ আরও পড়ুন: পিছোল তারিখ, নির্ভয়ার ধর্ষকদের ফাঁসি ১ ফেব্রুয়ারি ]

An Images
An Images
An Images An Images