৬ ভাদ্র  ১৪২৬  শনিবার ২৪ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৬ ভাদ্র  ১৪২৬  শনিবার ২৪ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মন্দির কারও ব্যক্তিগত সম্পত্তি নয়। মহিলারা অবশ্যই মন্দিরে প্রবেশের সমানাধিকার পাবেন। শবরীমালা মন্দিরে মহিলাদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা সংক্রান্ত মামলার শুনানিতে এই রায় দিল দেশের শীর্ষ আদালত। বুধবার পাঁচ বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চে এই মামালার শুনানি হয়। কেরলের শবরীমালা মন্দিরে মহিলারা ঢুকতে পারেন না। এমনই নিয়ম চালু আছে দীর্ঘদিন ধরে। এদিকে ওই মন্দিরে প্রবেশের অনুমতির আবেদন নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে যান রাজ্যের এক মহিলা আইনজীবী। তারপর থেকে বেশ কয়েকবার মামালাটির শুনানি হয়েছে। তবে এখনও পর্যন্ত মামালটির চূড়ান্ত রায় দেয়নি দেশের শীর্ষ আদালত।

[ঘুমের ওষুধ খাইয়ে রাশিয়ান তরুণীকে ধর্ষণ, চাঞ্চল্য তামিলনাড়ুতে]

এদিন ছিল সেই মামলার শুনানি। সেই শুনানিতে সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র বলেন, ‘দেশে ব্যক্তিগত মন্দিরের কোনও নীতি নেই। মন্দির কোনও ব্যক্তিগত সম্পত্তি নয়। মন্দির জনগণের সম্পত্তি। তাই জনগণের সম্পত্তি হিসেবে পরিচিত মন্দিরে যদি পুরুষ প্রবেশাধিকার পান তাহলে মহিলা পুণ্যার্থীও সেই অধিকার পাবেন। একবার মন্দির খুললে যে কেউ সেখানে যেতে পারেন। কী করে নির্দিষ্ট একটি বয়সকে সেক্ষেত্রে সীমারেখায় বাঁধা হবে?  প্রশ্ন তুলেছেন প্রধান বিচারপতি।’

[স্বামীর ইচ্ছেয় সর্বদা যৌনতায় নাও রাজি হতে পারেন স্ত্রী, রায় আদালতের]

শুনানিতে ডিভিশন বেঞ্চের বিচারপতি ডিভি চন্দ্রচূড় সংবিধানের ২৫ নম্বর ধারার উল্লেখ করে বলেন, ‘দেশের নাগরিকদের পছন্দ অনুযায়ী ধর্ম পালনের অধিকার রয়েছে। একজন পুরুষের মতো একজন মহিলারও ধর্ম পালনের অধিকার রয়েছে। আর এর জন্য আইনি রক্ষাকবচের প্রয়োজন নেই। যদি মহিলাদের ঋতুকালীন সমস্যাকেই প্রতিবন্ধকতা হিসেবে ধরা হয় তাহলে তা নিষেধাজ্ঞার পর্যায়ে যেতে পারে না।’

উল্লেখ্য, সুপ্রিম কোর্টের এই রায়ের পরিপ্রেক্ষিতে শবরীমালা মন্দিরে মহিলাদের প্রবেশে সায় দিয়েছে কেরলের রাজ্য প্রশাসন। প্রথম ২০১৫-তে শবরীমালা মন্দিরে মহিলাদের প্রবেশের নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয় সরকার। ২০১৭-তে ফের সেই অবস্থান থেকে সরে আসে তারা। ফের আদালতের রায়ে সেই পথেই ফিরছে কেরল। মামলার পরবর্তী শুনানি আগামী বৃহস্পতিবার।

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং