BREAKING NEWS

১০ কার্তিক  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

NRC বিরোধী আন্দোলনে শামিল অন্ধ্রও, নিজের অবস্থান স্পষ্ট করলেন মুখ্যমন্ত্রী জগন রেড্ডি

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: December 23, 2019 9:15 pm|    Updated: December 23, 2019 9:15 pm

'Won't allow NRC to do here', Andhra CM Jaganmohan Reddy announces

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশজুড়ে আরও জোরদার এনআরসি বিরোধী আন্দোলন। এবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পথে হেঁটে নিজের রাজ্যে জাতীয় নাগরিকপঞ্জি না করার কথা ঘোষণা করলেন অন্ধ্রের মুখ্যমন্ত্রী তথা ওয়াইএসআর (কংগ্রেস) প্রধান জগনমোহন রেড্ডি। হায়দরাবাদের একটি সভায় তিনি জানিয়ে দিয়েছেন, এনআরসি-র বিরোধিতা করা হবে, কোনওভাবেই অন্ধ্রপ্রদেশ এনআরসি সমর্থন করবে না।

সোমবার হায়দরাবাদে বেশ কয়েকটি জনকল্যাণমূলক প্রকল্পের উদ্বোধন করতে যান মুখ্যমন্ত্রী জগনমোহন রেড্ডি। সেখানে তিনি বলেন, ”এনআরসি নিয়ে সংখ্যালঘু ভাইবোনেরা আমার বিবৃতি চেয়েছিলেন। আমি তাঁদের স্পষ্ট করে বলতে চাই, এই পরিস্থিতিতে আমরা এনআরসি-র বিরোধিতা করব এবং কোনওভাবেই অন্ধ্রপ্রদেশ তা সমর্থন করবে না।” এর আগে এ নিয়ে একই বিবৃতি দিয়েছিলেন অন্ধ্রের উপমুখ্যমন্ত্রীও। এবার মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যে আরও জোরদার হয়ে উঠল অন্ধ্রের এনআরসি বিরোধী অবস্থান।

[আরও পড়ুন: মহারাষ্ট্রের পর ঝাড়খণ্ডও হাতছাড়া বিজেপির, সরকারে বসছে কংগ্রেস-জেএমএম জোট]

প্রসঙ্গত, নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল, ২০১৯ পাশ করাতে সংসদের উভয় কক্ষেই একে সমর্থন জানিয়ে ভোট দিয়েছিলেন YSR (কংগ্রেস) সাংসদরা। কিন্তু এনআরসি প্রসঙ্গেই বেঁকে বসেছেন মুখ্যমন্ত্রী জগনমোহন রেড্ডি। যে ক’টি রাজ্য ইতিমধ্যেই জাতীয় নাগরিকপঞ্জির বিরোধিতায় নেমেছে তার মধ্যে সর্বাগ্রে রয়েছ পশ্চিমবঙ্গ। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গোড়া থেকেই এর বিরুদ্ধে আন্দোলন করে আসছেন। এনিয়ে অবিজেপি শাসিত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের একজোট হওয়ার আহ্বান জানিয়ে চিঠিও লিখেছেন তিনি। তাঁর দেখানো পথে হেঁটেছেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার, ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েক, পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং, মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথ, রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট এবং কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন। এবার তাতে যোগ দিলেন অন্ধ্রের মুখ্যমন্ত্রী জগনমোহন রেড্ডি।

[আরও পড়ুন: CAA’র প্রতিবাদে রাজঘাটে ধরনায় রাহুল, প্রিয়াঙ্কা-সহ কংগ্রেস নেতৃত্ব]

রাজনৈতিক মহলের একাংশের ধারণা, ঝাড়খণ্ডে বিজেপি ধরাশায়ী হওয়ার খবর পেয়েই বিজেপি বিরোধী অবস্থান নিয়েছেন ওয়াইএসআর (কংগ্রেস) প্রধান। এরপর পাশের রাজ্য তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কেসিআরও একই অবস্থান নিতে পারেন বলে ধারণা বিশেষজ্ঞদের একাংশের।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement