Advertisement
Advertisement
Dharmendra Pradhan

‘কেউ রেহাই পাবে না’, পরীক্ষা বিতর্কে গর্জে উঠলেন শিক্ষামন্ত্রী

'সরকার পড়ুয়াদের স্বার্থরক্ষায় দায়বদ্ধ', আশ্বাস ধর্মেন্দ্র প্রধানের।

'Won't spare anyone', Education Minister Dharmendra Pradhan on exams row
Published by: Biswadip Dey
  • Posted:June 20, 2024 9:08 pm
  • Updated:June 20, 2024 11:22 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ২০২৪ সালের নিট পরীক্ষায় অসঙ্গতি এবং ইউজিসি-নেট পরীক্ষা বাতিল হওয়াকে কেন্দ্র করে দেশজুড়ে তোলপাড়ের মধ্যেই এবার মুখ খুললেন শিক্ষামন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান। তাঁর দাবি,উচ্চস্তরের কমিটি তৈরি করে এই বিষয়ে তদন্ত করা হবে। কেউই পরিত্রাণ পাবেন না। সরকারের কাছে যে পড়ুয়াদের স্বার্থই অগ্রাধিকার পাবে সেকথাও জানিয়েছেন তিনি।

এদিন এক সাংবাদিক সম্মেলনে তাঁকে বলতে শোনা গিয়েছে, ”আমি সকলকে আশ্বস্ত করতে চাই যে সরকার পড়ুয়াদের স্বার্থরক্ষায় দায়বদ্ধ। এবিষয়ে কোনও রকম আপস করা হবে না। নিট পরীক্ষার ক্ষেত্রে বলতে পারি, বিহার সরকারের সঙ্গে লাগাতার যোগাযোগ রেখে চলেছি আমরা। আমাদের বিস্তারিত রিপোর্ট পাঠাবে পাটনা পুলিশ। প্রাথমিক তথ্য অনুযায়ী অসঙ্গতি নির্দিষ্ট অঞ্চলেই সীমাবদ্ধ। একথা বলতে পারি, জোরালো প্রমাণ পেলে কোনও অপরাধীই নিষ্কৃতি পাবে না। পড়ুয়াদেরই ভবিষ্য়ৎই আমাদের অগ্রাধিকার।”

Advertisement

[আরও পড়ুন: বিচারকের জন্য ট্রেনের আসন ছাড়তে হল সাধারণ যাত্রীকে! হতবাক সকলেই]

প্রসঙ্গত, কয়েকদিন আগে শিক্ষামন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান প্রথম এই বিষয়ে মুখ খোলেন। তিনি দাবি করেন, ”এখনও পর্যন্ত প্রশ্ন ফাঁসের কোনও প্রমাণ মেলেনি। অভিযোগ রয়েছে। যোগ্য কর্তৃপক্ষ সেগুলো খতিয়ে দেখছে। কিছু অভিযোগ ও আলগা তথ্য হাতে আসছে। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের তদন্তের জন্য অপেক্ষা করা যেতে পারে। ৮ জুলাই সুপ্রিম কোর্ট কী রায় দেয়, সেদিকেই লক্ষ্য রাখা উচিত। লুকনোর তো কিছু নেই।” সেই সঙ্গেই তাঁর আর্জি ছিল, পরীক্ষার্থীরা যেন টেনশন না করেন।

Advertisement

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার ন্যাশনাল টেস্টিং এজেন্সি ইউজিসি-নেট (UGC-NET) পরীক্ষা নেয়। প্রায় ৯ লক্ষের উপর পরীক্ষার্থী তাতে অংশ নেয়। মাত্র একদিন পরই বুধবার কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রকের তরফে একটি বিবৃতি জারি করে পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়।  NEET পরীক্ষা নিয়ে গোটা দেশজুড়ে বিতর্কের মধ্যেই NET বাতিলের সিদ্ধান্তের পর বিজেপিকে তেড়েফুঁড়ে আক্রমণ করতে দেখা যায় বিরোধীদের। কংগ্রেস সভাপতি মল্লিকার্জুন খাড়গের প্রশ্ন, “এবার পরীক্ষা পে চর্চা হবে না?” বিজেপিকে নিশানা করছেন কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বঢরাও। তাঁর বক্তব্য, “মোদি সরকারের লিকতন্ত্র দেশের যুব সমাজের জন্য সমূহ বিপদ ডেকে আনছে।”

[আরও পড়ুন: ঘুমোতে গেলেন পুরুষ, জেগে উঠলেন নারী হয়ে! আশ্চর্য যৌন কেলেঙ্কারি যোগীরাজ্যে]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ