BREAKING NEWS

১৫  আষাঢ়  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ৩০ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

প্রধানমন্ত্রী হলে নোট বাতিলের ফাইল ফেলে দিতাম, রাহুলের মন্তব্যে ঝড়

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: March 11, 2018 9:34 am|    Updated: September 13, 2019 12:55 pm

Yogi Adityanath Slams Rahul Gandhi Over Note Ban Remark

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের নোট বাতিল নিয়ে যুযুধান কংগ্রেস ও গেরুয়া শিবির। এবার সম্মুখ সমরে রাহুল গান্ধীযোগী আদিত্যনাথ। দেশের বাইরে থাকলেও নোট বাতিল ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীকে বিঁধতে কসুর করছেন না কংগ্রেস সভাপতি। জানিয়েছিলেন, তিনি প্রধানমন্ত্রী হলে নোট বাতিলের ফাইল ডাস্টবিনে ছুড়ে ফেলে দিতেন। পালটা দিয়ে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ জানালেন, মানুষই ওঁকে ছুড়ে ফেলে দিত।

[  ব্যাংকের কর্মীরা হেনস্তা করছেন, খোদ প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি ব্যবসায়ীর ]

তিনি প্রধানমন্ত্রী হলে কীভাবে নোট বাতিলের পরিকল্পনাকে বাস্তবায়িত করতেন? কুয়ালা লামপুরে এ প্রশ্নের মুখেই পড়তে হয়েছিল রাহুল গান্ধীকে। কেননা এর আগে বারবার এ নিয়ে অভিযোগ করেছেন তিনি। বিশেষত গুজরাট ভোটের প্রাক্কালে নোট বাতিল ইস্যুতে বিজেপিকে তুলোধোনা করেছেন কংগ্রেস সভাপতি। জয় হাসিল হয়নি ঠিকই। কিন্তু নোট বাতিল নিয়ে সাধারণ মানুষের ক্ষোভকে তিনি ভোটবাক্স পর্যন্ত চালিত করতে পেরেছিলেন। তাতে ফল ভালই হয়েছিল। সুতরাং এ প্রশ্ন স্বাভাবিক যে, তিনি প্রধানমন্ত্রী হলে এক্ষেত্রে কী করতেন? প্রশ্নের মুখে পড়ে দমে যাননি রাহুল। তাঁর সাফ কথা, তিনি প্রধানমন্ত্রী হলে কেউ যদি সামনে নোট বাতিল লেখা কোনও ফাইল আনতেন, তাহলে ফাইলটিকে ডাস্টবিনে ছুড়ে ফেলে দিতেন। নোট বাতিলকে সাধারণ মানুষ যে প্রত্যাখ্যান করেছে তা বোঝাতেই রাহুলের এহেন উত্তর। যা নিয়ে ইতিমধ্যেই বেশ বিতর্ক দেখা দিয়েছে।

 আকাশপথে আরও কাছে সিকিম, পাকিয়ং-এ প্রথম নামল অসামরিক বিমান ]

এদিকে এই মন্তব্যের প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে যোগী আদিত্যনাথ তীব্র কটাক্ষ করেন। ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, নোট বাতিলের ফাইল ছোড়া তো দূরের কথা, মানুষ রাহুলের আবেদনকেই পাত্তা না দিয়ে ছুড়ে ফেলে দিতেন। অর্থাৎ রাহুল যে প্রধানমন্ত্রীর আসনে বসতে পারেন না, সে ব্যাপারেই ঘুরিয়ে ইঙ্গিত করেছেন তিনি। তাঁর দাবি, যেখানে যেখানে রাহুল গিয়েছেন সেখানে কংগ্রেসের খারাপ ফল হয়েছে। কারণ রাহুলের নেতিবাচক মনোভাব।

এদিন গোরক্ষপুর ও ফুলপুর কেন্দ্রে উপ-নির্বাচন। সকাল সকাল গিয়ে নিজের ভোট দিয়েছেন আদিত্যনাথ। উপ নির্বাচন হলেও এ আসলে বিজেপির মর্যাদার লড়াই। কারণ সপা-বসপা একজোট হয়েছে এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে। আদিত্যনাথের আশা, মোদির নেতৃত্বে যেভাবে উন্নয়নের জোয়ার এসেছে, তাতে বিজেপির জয়লাভ নিয়ে তাঁর কোনও শংকা নেই।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে