BREAKING NEWS

০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  সোমবার ২৭ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

খাস কলকাতায় ৫ কুকুরছানাকে ‘বিষ’ খাইয়ে খুন, পুলিশের দ্বারস্থ পশুপ্রেমীরা

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: November 17, 2021 4:59 pm|    Updated: November 17, 2021 4:59 pm

5 Puppies killed in sovabazar, investigation underway | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী

অর্ণব আইচ: ফের নৃশংসতার সাক্ষী কলকাতা (Kolkata)। ৫ কুকুরছানাকে বিষ খাইয়ে খুনের অভিযোগে তোলপাড় শোভাবাজার (Shobhabazar) সংলগ্ন রামধন খান লেন। ইতিমধ্যেই এই ঘটনায় জোড়াবাগান থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। শুরু হয়েছে তদন্ত। অভিযুক্তদের কঠোরতম শাস্তির দাবি জানিয়েছেন পশুপ্রেমীরা।

জানা গিয়েছে, বুধবার সকালে রামধন খান লেনে রাস্তার পাশেই ৫ টি কুকুরছানা পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। কাছে যেতেই বোঝা যায় যে সেগুলির মৃত্যু হয়েছে। এক সঙ্গে ৫ টি কুকুরছানার মৃত্যুতে স্বাভাবিকভানেই তীব্র উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়। অভিযোগ ওঠে, পরিকল্পনা মাফিক বিষ খাইয়ে খুন করা হয়েছে প্রাণীগুলিকে। এরপরই এলাকার পশুপ্রেমীরা জোড়াবাগান থানার দ্বারস্থ হয়। লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: স্পিকারকে অসম্মান! ইডি ও সিবিআইয়ের দুই আধিকারিকের বিরুদ্ধে স্বাধিকার ভঙ্গের নোটিস বিধানসভায়]

স্থানীয়দের কথায়, মৃত কুকুরগুলি একেবারেই ছোট। এলাকার বাসিন্দারাই সকলে মিলে তাদের খেতে দিত। সকলের প্রিয়ই ছিল কুকুরছানাগুলি। কে বা কারা এই কাজ করল, তা বুঝে উঠতেই পারছে না কেউ। প্রত্যেকের দাবি অবিলম্বে অভিযুক্তদের শনাক্ত করতে হবে ও উপযুক্ত শাস্তি দিতে হবে।

সারমেয়দের উপর অত্যাচারের ঘটনা এই প্রথম নয়। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে মাঝে মধ্যেই এই ঘটনার কথা প্রকাশ্যে আসে। কালীপুজোর রাতে কুকুরদের মারধর ও বিষ খাইয়ে খুনের চেষ্টার অভিযোগকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়িয়েছিল হাওড়ায়। জানা যায়, কয়েকজন বেশ কয়েকটি সারমেয়কে ডেকে নিয়ে যায়। সেখানে তাদের মারধর করা হয়। খাবারে মিশিয়ে দেওয়া হয় বিষ। অভিযোগ, একটি কুকুরকে আটকে রেখে বাকিগুলিকে ছেড়ে দেওয়া হয়। কালীপুজোর পরেরদিন সকাল থেকে অসুস্থ হয়ে পড়ে সারমেয়গুলি। লাগাতার বমি করতে থাকে।

[আরও পড়ুন: বিজেপিতে কাজ করার চেয়ে টাকা চাওয়ার লোক বেশি! তৃণমূলের মুখপত্রে বিস্ফোরক প্রবীর ঘোষাল]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে