৩১ ভাদ্র  ১৪২৬  বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

অর্ণব আইচ ও সুবীর দাস: পাওনা টাকা চাইতে গেলে ব্যবসায়ীর সঙ্গে তার সংস্থার কর্মীর বিবাদ৷ তার মাঝেই ওই কর্মীকে সপাটে চড় মারে মালিক৷ তাতেই মৃত্যু হল যুবকের৷ চিৎপুরের সিমলাই এলাকার ঘটনায় ওই মহাজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে৷ তার বিরুদ্ধে অনিচ্ছাকৃত খুনের মামলা রুজু করা হয়েছে৷

[আরও পড়ুন: নিয়মিত অধিবেশনে থাকতে হবে অন্য দল থেকে আসা বিধায়কদের, স্পষ্ট বার্তা দিলীপের]

বছর ছত্রিশের সমীর সাধুখাঁ নদিয়ার চাকদহের মদনপুরের কলতলা রোডের বাসিন্দা৷ কর্মসূত্রে দমদমেই থাকতেন তিনি৷ দমদমের বাসিন্দা লাল্টু পোদ্দার নামে এক ব্যক্তির পোশাক তৈরির ব্যবসায় দর্জি হিসাবে কাজে করতেন সমীর৷ অভিযোগ, কাজ করিয়ে সমীরকে টাকা দিত না লাল্টু৷ এইভাবে প্রায় ৩৫ হাজার টাকা পাওনা হয়ে গিয়েছিল সমীরের৷ আজ-কাল করে করেই কেটে যাচ্ছিল একের পর এক দিন৷ এদিকে, বিশেষ প্রয়োজনে ৩৫ হাজার টাকা দরকার ছিল সমীরের৷ বাধ্য হয়ে শুক্রবার লাল্টুর বাড়ির সামনে হানা দেন সমীর৷ টাকা চাইলে লাল্টু পরে দেবে বলে কথা ঘোরানোর চেষ্টা করে৷ কিন্তু সমীর দাবি করেন, টাকা না নিয়ে অন্যত্র যাবেন না৷ ভাল কথায় বোঝানোর চেষ্টা করলেও সমীর তাঁর দাবিতে স্থির ছিলেন৷ কিছুক্ষণ পরই দু’জনের মধ্যে কথা কাটাকাটি শুরু হয়৷ আচমকাই মেজাজ হারায় লাল্টু৷ অভিযোগ, সমীরকে সপাটে চড় মারে সে৷ কানের পাশে চড় মারায় মুহূর্তের মধ্যে জ্ঞান হারান সমীর৷ মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি৷ তড়িঘড়ি সমীরের সহকর্মীরা তাঁকে উদ্ধার করেন৷ অচৈতন্য সমীরকে নিয়ে যাওয়া হয় আরজি কর হাসপাতালে৷ সেখানেই তাঁকে মৃত বলে জানান চিকিৎসকরা৷

[আরও পড়ুন: বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে বাধা, চায়না টাউনে স্ত্রী-বাবাকে খুন ছেলের]

সমীরের মৃত্যুর খবর পৌঁছে গিয়েছে নদিয়ার চাকদহের মদনপুর কলতলা রোডের বাড়িতেও৷ চোখের জলে ভাসছেন নিহতের পরিজনেরা৷ এই ঘটনায় চিৎপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে৷ অনিচ্ছাকৃত খুনের অভিযোগে লাল্টু পোদ্দারকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং