২২ আষাঢ়  ১৪২৭  মঙ্গলবার ৭ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

দমকলের গাড়ির ধাক্কায় দমকল কর্মীরই মৃত্যু, বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ

Published by: Sayani Sen |    Posted: May 29, 2020 8:32 pm|    Updated: May 29, 2020 8:43 pm

An Images

প্রতীকী ছবি

অর্ণব আইচ: আমফান বিধ্বস্ত এলাকায় কাজ করতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে সদ্যই মৃত্যু হয়েছে এক দমকল কর্মীর। CESC’র গাফিলতিতে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ। সেই ঘটনার এখনও রেশ কাটেনি। তার আগেই ফের দুর্ঘটনা। এবার দমকলের গাড়ির ধাক্কায় মৃত্যু হল এক দমকল কর্মীর। শুক্রবার মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে টালিগঞ্জ দমকলে। পরিকল্পনামাফিক খুন নাকি দুর্ঘটনা, তা নিয়ে ধন্দে পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, শুক্রবার ঘড়ির কাঁটায় তখন দুপুর তিনটে। টালিগঞ্জ দমকল থেকে গাড়ি বের করছিলেন স্টেশন মাস্টার কৃষ্ণেন্দু কুন্দল। গাড়িটিকে পিছনের দিকে নিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। সেই সময় একটি লোহার পাইপে ধাক্কা লাগে গাড়িটির। সঙ্গে সঙ্গে লোহার পাইপটি পড়ে যায়। দেবনারায়ণ পাল নামে এক দমকল কর্মী সেই সময় ঘটনাস্থলে ছিলেন। তাঁর মাথাতেই পড়ে সেই লোহার পাইপ। গুরুতর জখম হন ওই দমকল কর্মী। এরপরই তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে। তবে শেষরক্ষা হয়নি। চিকিৎসকরা জানান, মৃত্যু হয়েছে দেবনারায়ণবাবুর।

[আরও পড়ুন: আমফান বিধ্বস্তদের পাশে রাজ্য, পাঁচ লক্ষ পরিবারকে ২০ হাজার টাকা করে সাহায্য]

এই মৃত্যু নিয়ে একাধিক প্রশ্নের ভিড়। কেন স্টেশন মাস্টার নিজে দপ্তরের গাড়িটি বের করতে গেলেন, স্বাভাবিকভাবেই মাথাচাড়া দিয়েছে সেই প্রশ্ন। দমকলের অন্যান্য কর্মীদের দাবি, এই গাড়িটি অন্যের নামে লেখা ছিল। তা সত্ত্বেও আচমকা কৃষ্ণেন্দু কুন্দল কেন গাড়ি বের করতে গেলেন, তা এখনও স্পষ্ট নয়। যদিও কৃষ্ণেন্দুর দাবি, তিনি ব্রেক চিপতেই গিয়েছিলেন। তবে তাড়াহুড়োয় ক্লাচ চেপে দেওয়ায় এমন দুর্ঘটনা।ইতিমধ্যেই নেতাজিনগর থানার পুলিশ অভিযুক্ত কৃষ্ণেন্দু কুন্দলকে গ্রেপ্তার করেছে। এই ঘটনার প্রকৃত কারণের খোঁজে বিভাগীয় তদন্তেরও নির্দেশ দিয়েছেন দমকল মন্ত্রী সুজিত বসু।

[আরও পড়ুন: ‘শ্রমিক স্পেশ্যাল ট্রেনের নামে করোনা এক্সপ্রেস চালাচ্ছেন?’, রেলের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন মমতা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement