১৭  মাঘ  ১৪২৯  শুক্রবার ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

‘পঞ্চায়েত ভোটে পেশিশক্তি প্রয়োগ নয়’, সাংগঠনিক বৈঠকে দলীয় কর্মীদের কড়া বার্তা অভিষেকের

Published by: Paramita Paul |    Posted: August 22, 2022 8:33 pm|    Updated: August 22, 2022 8:33 pm

Abhishek Banerjee delivers strict message to TMC workers | Sangbad Pratidin

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: এবার পঞ্চায়েত ভোটে ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি চায় না তৃণমূল (TMC)। নির্বাচনে কোনওরকম পেশিশক্তির প্রয়োগ বরদাস্ত করবে না দল। জিততে হবে সংগঠনের জোরে। যেখানে তৃণমূলে সংগঠন দুর্বল প্রয়োজনে সেখানে বিরোধীরা জিতবে। ঘাটাল, মেদিনীপুর এবং ঝাড়গ্রামের সাংগঠনিক বৈঠকে সাফ জানিয়ে দিলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)।  

পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে বিভিন্ন জেলার নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন অভিষেক। সোমবার ঘাটাল, মেদিনীপুর এবং ঝাড়গ্রামের দলীয় সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন তিনি। এবারের পঞ্চায়েত ভোটে পেশিশক্তির আস্ফালন বরদাস্ত করা হবে না বলেও সাফ জানিয়েছেন তৃণমূলের ‘সেনাপতি’। বলেন, “পেশীশক্তি দিয়ে নির্বাচন করা যাবে না। সাংগঠনিক শক্তিতে জিততে হবে। যেখানে তা থাকবে না সেখানে বিরোধীরা জিতবে।”

[আরও পড়ুন: হাই কোর্টের নির্দেশের পরও মেলেনি বকেয়া DA, রাজ্যের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলা]

পঞ্চায়েত ভোটে জয়ের জন্য তৃণমূল নেত্রীর উন্নয়নকেই হাতিয়ার করতে চাইছে দল। তৃণমূলে শেষ কথা যে মমতাই, সেটা স্পষ্ট করে দিলেন অভিষেক। বললেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে যে সরকারি পরিষেবা সেসবের প্রচার করতে হবে।” 

পঞ্চায়েত নির্বাচন নিয়ে এদিনও দলীয় কর্মীদের কড়া বার্তা দিলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক। ঘাটালের সাংগঠনিক বৈঠকে তিনি বলেন, “পঞ্চায়েতে কোনওরকম বিশৃঙ্খলা করা যাবে না। ঐক্যবদ্ধ হয়ে মানুষের মন জয় করে, মানুষের পাশে থেকে, তাঁদের পক্ষে থেকে কাজ করতে হবে।” মেদিনীপুরের বৈঠকেও দলীয় নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে তাঁর বার্তা, “মানুষের বাড়ি-বাড়ি যান। এ তাই বলছে, ও তাই বলছে এই করে বেড়াবেন না। সামনে পঞ্চায়েত ভোট। সকলকে এক হয়ে চলতে হবে।” একই বার্তা দেওয়া হয়েছে ঝাড়গ্রামের দলীয় কর্মীদের উদ্দেশেও। অভিষেকের সাফ বার্তা, “নিজের লোক হলেই সে টিকিট পাবে, এটা হবে না। নাম নিয়ে আলোচনা হবে। মানুষের পাশে যে থাকবে তাকেই টিকিট। দলের সিদ্ধান্তই মানতে হবে।” 

[আরও পড়ুন: আরও বাড়ল দুর্গাপুজোর অনুদান, রাজ্যের ক্লাবগুলির জন্য বড় ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর]

৩ সাংগঠনিক জেলারই ব্লকস্তরের সংগঠনে বদল আসতে চলেছে। ব্লক সভাপতিদের নাম ঘোষণা নিয়ে বিধায়ক, সাংগঠনিক জেলা সভাপতি, অন্যান্য শাখা সংগঠনের মতামত নেওয়া হয়েছে। প্রত্যেকের সঙ্গে সমন্বয় রেখে ব্লক স্তরে দ্রুত কমিটি গঠন করে দেওয়া হবে বলেও দলীয় সূত্রে খবর। এদিন দলীয কর্মীদের কেন্দ্রের বিরুদ্ধে ধারাবাহিক আন্দোলনে নামারও পরামর্শ দিয়েছেন অভিষেক। তাঁর কথায়, “কেন্দ্র সরকার তার রাষ্ট্রযন্ত্র ব‌্যবহার করে ষড়যন্ত্র করছে। তার বিরুদ্ধে আন্দোলনই একমাত্র পথ।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে