BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বাম নেতা কে হবেন, দ্বিধা আলিমুদ্দিনে

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 21, 2016 11:08 am|    Updated: May 21, 2016 11:08 am

An Images

স্টাফ রিপোর্টার: কংগ্রেসের সঙ্গে জোট করে ভরাডুরি পর সিপিএমের অন্দরে তোলপাড় চলছে৷ এরই মধ্যে বাম পরিষদীয় দলনেতা কে হবেন তা নিয়েও দ্বিধাবিভক্ত আলিমুদ্দিন৷ সম্ভাব্য বাম পরিষদীয় নেতার তালিকায় উঠে এসেছে সুজন চক্রবর্তী, অশোক ভট্টাচার্য ও আনিসুর রহমানের নাম৷ লড়াই মূলত সুজন ও অশোক ভট্টাচার্যর মধ্যেই৷ তবে দলের সিনিয়র রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য হিসাবে পদের ভারে পরিষদীয় দলনেতার লড়াইয়ে এগিয়ে রয়েছেন যাদবপুরের বিধায়ক সুজন চক্রবর্তীই৷

রাজ্যে কংগ্রেসের সঙ্গে জোট করে ঠিক হয়েছিল কি না তা নিয়ে সিপিএম পলিটব্যুরোর বৈঠকে ঝড় উঠতে চলেছে৷ বৈঠকে দলের কেরল লবি ঝড় তুলতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে৷ কাল ২২ মে পলিটব্যুরোর বৈঠক৷ দলের খারাপ ফল নিয়ে রাজ্য কমিটির পাশাপাশি ময়নাতদন্তে বসবে সিপিএম কেন্দ্রীয় কমিটিও৷ বিধানসভায় বিরোধী দলের মর্যাদা হারিয়েছে বামেরা৷ কংগ্রেসের আসন সংখ্যা বেশি বামেদের থেকে৷ এই পরিস্থিতির মধ্যে ফ্রণ্ট শরিকরাও আবার সরব সিপিএমের বিরু‌দ্ধে৷ দলের ভিতরে ও বাইরে এই চাপের মধ্যেই পরিষদীয় দলনেতা ঠিক করতেও দ্বিধাবিভক্ত আলিমুদ্দিন৷ দলীয় সূত্রে খবর, রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীর সিংহভাগই এই পদে চাইছেন সুজন চক্রবর্তীকে৷ কারণ, দলের সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য হওয়ায় সুজনই এই পদের দাবিদার হিসাবে এগিয়ে রয়েছেন৷ তাছাড়া, যাদবপুরের মতো কেন্দ্র পুনরুদ্ধার করেছেন তিনি৷ অন্যদিকে, দলের উত্তরের নেতারা ওই পদে চান রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী তথা দলের রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীর আমন্ত্রিত সদস্য অশোক ভট্টাচার্যকে৷ কিন্ত্ত অশোকবাবু শিলিগুড়ির মেয়র৷ কাজেই মেয়র পদের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব সামলে পরিষদীয় দলনেতার পদ সামলানো তাঁর পক্ষে কঠিন হবে বলেই মনে করছেন দলের একাংশ৷ উঠে এসেছে আবার প্রবীণ বিধায়ক আনিসুর রহমানের নামও৷ আনিসুর রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী, বিধানসভার বি এ কমিটির চেয়ারম্যানও ছিলেন৷ কিন্তু পার্টির পদাধিকার বলে তিনি সুজন চক্রবর্তীর থেকে নিচে৷ এছাড়া, শারীরিকভাবেও অসুস্থ আনিসুর৷ তাই বামপরিষদীয় দলনেতা হওয়ার লড়াইয়ে এগিয়ে সুজন চক্রবর্তীই৷ পরিষদীয় নেতার পাশাপাশি কংগ্রেসের সঙ্গে ফ্লোর কো-অর্ডিনেশনটাও সামলাতে পারেন সুজন৷ কারণ, কংগ্রেসের সঙ্গে বিভিন্ন্ যৌথ আন্দোলনের নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি৷ এছাড়া, কংগ্রেস নেতাদের সঙ্গে তাঁর সম্পর্কও ভাল৷ বামেদের মুখ্য সচেতক হতে পারেন আনিসুর রহমান৷ যে পদে এতদিন ছিলেন গোঘাটের বিধায়ক বিশ্বনাথ কারক৷ এবার পরাজিত হয়েছেন বিশ্বনাথবাবু৷ অন্যদিকে ডেপুটি পরিষদীয় নেতা হতে পারেন অশোক ভট্টাচার্য৷ তবে কোন দায়িত্ব কে পাচেছন তা নিয়ে জল্পনা ও জট অব্যাহত সিপিএমের অন্দরে৷

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement