Advertisement
Advertisement
Akhil Giri

রাষ্ট্রপতির উদ্দেশে কুরুচিকর মন্তব্য, মন্ত্রী অখিল গিরির তীব্র নিন্দা করে বিবৃতি জারি তৃণমূলের

চাপে পড়ে ক্ষমা চেয়ে রাষ্ট্রপতিকে চিঠি পাঠাবেন অখিল গিরি।

AITC strongly condemns TMC MLA Akhil Giri's 'mysogynist;comment on President Draupadi Murmu | Sangbad Pratidin
Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:November 12, 2022 3:59 pm
  • Updated:November 12, 2022 9:36 pm

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুকে (President Draupadi Murmu) নিয়ে তৃণমূল বিধায়ক তথা রাজ্যের মন্ত্রী অখিল গিরির (Akhil Giri) মন্তব্যের নিন্দা করে বিবৃতি জারি করল রাজ্যের শাসকদল। তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে টুইটে তীব্র নিন্দা করা হয়েছে। সূত্রের আরও খবর, ঘরে-বাইরে এ নিয়ে চাপে পড়ে অখিল গিরি রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা চেয়ে চিঠি পাঠাবেন বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তিনি অনুতপ্ত বলে ঘনিষ্ঠ সূত্রে খবর। তাই অখিল গিরির এই কাজ বলে মনে করা হচ্ছে।

সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের (AITC) তরফে টুইট করে জানানো হয়েছে, ”রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর প্রতি আমাদের সর্বোচ্চ শ্রদ্ধা রয়েছে। আমাদের বিধায়ক অখিল গিরির অশালীন মন্তব্যকে কখনওই সমর্থন করে না দল এবং এর তীব্র নিন্দা করছি। নারী ক্ষমতায়নের এই যুগে এ ধরনের মন্তব্য নারীবিদ্বেষী ও দুর্ভাগ্যজনক।”

Advertisement

শুক্রবার নন্দীগ্রামের (Nandigram) গোকুলনগরের সভায় রাষ্ট্রপতি সম্পর্কে কুরুচিকর মন্তব্য করেন অখিল গিরি। তাঁর মন্তব্য ছিল, “বলে দেখতে ভাল নয়। কী রূপসী? কী দেখতে ভাল? আমরা রূপের বিচার করি না। তোমার রাষ্ট্রপতির চেয়ারকে আমরা সম্মান করি। কিন্তু তোমার রাষ্ট্রপতি কেমন দেখতে বাবা?” যদিও তাঁর এই মন্তব্যের নেপথ্যে বিরোধী দলনেতার উসকানি রয়েছে বলে দাবি অখিল গিরির। তাঁর অভিযোগ, দিনকয়েক ধরে শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)তাঁকে অপমান করেছেন। কখনও ‘হাফ প্যান্ট পরা মন্ত্রী’, আবার কখনও ‘কাকের মতো দেখতে’ বলে কটাক্ষ করছেন। তারই পালটা দিতে গিয়ে রামনগরের তৃণমূল বিধায়কের এহেন মন্তব্য। কিন্তু শুভেন্দুকে বিঁধতে গিয়ে দেশের সর্বোচ্চ নাগরিককেই অপমান করে বসেছেন।

[আরও পড়ুন: রাষ্ট্রপতিকে ‘অপমান’, অখিল গিরিকে নোটিস জাতীয় মহিলা কমিশনের, পথে বিজেপি]

বিষয়টিকে অস্ত্র করে রাজনৈতিক তরজায় ঝাঁপিয়ে পড়েছে বিজেপি (BJP)। দিনভর এ নিয়ে দু’পক্ষের তর্কবিতর্ক চলছেই। এবার তৃণমূলও অখিল গিরির মন্তব্যের সমালোচনায় লিখিত বিবৃতি দিল। তৃণমূল ভবন থেকে সাংবাদিক বৈঠক করে দলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষও বলেন, ”অখিল গিরি প্ররোচনায় পা দিয়ে যা বলেছেন, তা অন্যায়। দল সমর্থন করে না।” এসবের জেরে ঘরে-বাইরে উভয়ত চাপে পড়েছেন রাজ্যের কারামন্ত্রী। তিনি রাষ্ট্রপতিকে চিঠি লিখে ক্ষমা চাইবেন বলে ঘনিষ্ঠ সূত্রে খবর।

[আরও পড়ুন: ঝাড়খণ্ডে সরকারি চাকরিতে সংরক্ষণ বেড়ে ৭৭ শতাংশ! হেমন্ত সোরনের সিদ্ধান্ত নিয়ে তরজা]

এদিকে এই ইস্যুতে রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করতে চেয়ে চিঠি পাঠাল বঙ্গ বিজেপি নেতৃত্ব।  শুভেন্দু অধিকারীর তরফে রাজভবনে চিঠি দিয়ে জানানো হয়েছে, রবিবার তাঁরা দেখা করতে চান লা গণেশনের সঙ্গে। 

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ