২৮ আশ্বিন  ১৪২৬  বুধবার ১৬ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অনিশ্চয়তা কাটিয়ে সম্ভবত বৃহস্পতিবারই আলিপুর আদালতে শুরু হচ্ছে সারদা কাণ্ডে রাজীব কুমারের আগাম জামিনের আবেদন সংক্রান্ত মামলাটি৷ জানা গিয়েছে, বারাসত আদালত থেকে ইতিমধ্যে এই মামলা সংক্রান্ত নথি এসে পৌঁছে গিয়েছে আলিপুর আদালতে৷ ফলে আজই এই মামলার শুনানি হতে পারে বলে অনুমান আইনজীবী মহলের৷

[ আরও পড়ুন: বিপজ্জনক বাড়ি ভেঙে নতুন ২৭টি ঘর, বউবাজারে পুজোর আগেই গৃহপ্রবেশের সম্ভাবনা ]

চলতি সপ্তাহে বারাসতের জেলা ও দায়রা আদালত রাজীব কুমারের আগাম জামিনের মামলাটি খারিজ করে দেয়৷ কারণ, সারদা মামলাটি গোড়া থেকে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা আদালত অর্থাৎ আলিপুর আদালতের বিচারাধীন ছিল। তাই সেখানেই মামলাটি পাঠিয়ে দেওয়া হয় বারাসত জেলা আদালতের তরফে। এরপর বুধবার বিকেলেই আলিপুর জেলা আদালতে নতুন করে আগাম জামিনের আবেদন করেন রাজীব কুমারের আইনজীবীরা। অন্যদিকে, সিবিআইও রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করতে চেয়ে আবেদন জানিয়েছে আলিপুর আদালতে। কিন্তু এখানেও সেই নথিজটেই আটকে যায় শুনানি। ফলে আলিপুর আদালতে এই সংক্রান্ত দুটি মামলার ভবিষ্যৎ নিয়ে অনিশ্চিয়তা তৈরি হয়। বিচারক স্পষ্ট জানিয়ে দেন, সারদার মতো হাইপ্রোফাইল মামলার সম্পূর্ণ নথিপত্র না দেখে কোনওভাবেই শুনানি সম্ভব নয়। সূত্রের খবর, এরপর দ্রুত নথি বারাসত থেকে আলিপুর জেলা আদালতে আনা হয়৷

[ আরও পড়ুন: আরও মহার্ঘ পেট্রল-ডিজেল, পুজোর আগে পকেটে টান মধ্যবিত্তদের ]

কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে খুঁজে পেতে মরিয়া সিবিআই। বুধবারই দিল্লি থেকে কলকাতায় এসেছেন ১২ জন দুঁদে অফিসার৷ বিশেষ দলটির একমাত্র লক্ষ্য, আগামী ৭ দিনের মধ্যে রাজীব কুমারের হদিশ পাওয়া। সেই লক্ষ্যেই কলকাতা পা দেওয়া মাত্রই তৎপরতায় তুঙ্গে তাঁদের মধ্যে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক করেছেন এই বিশেষ প্রতিনিধিরা। রাজীব কুমারের ফোন বন্ধ থাকায় তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ সম্ভব হচ্ছে না। এই পরিস্থিতিতে কোন নম্বরে তাঁকে পাওয়া যাবে, তা জানতে চেয়ে রাজ্য পুলিশের ডিজি বীরেন্দ্রকে চিঠিও দিয়েছেন সিবিআই আধিকারিকরা। এই মামলায় কীভাবে রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে আইনি ঘুঁটি সাজাবেন, তা নিয়ে বেশ সাবধানী পদক্ষেপ নিচ্ছেন তাঁরা।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং