BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  রবিবার ২৯ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

নজরে দিল্লি, বাংলার পাশাপাশি অন্য ভাষাতেও প্রকাশ হবে তৃণমূলের ইস্তেহার

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: March 23, 2019 8:07 pm|    Updated: April 17, 2019 1:33 pm

All India Trinamool Congress to release manifesto on 26th march

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজ্যের গণ্ডি পেরিয়ে জাতীয় রাজনীতিতেও সমান গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে তৃণমূল কংগ্রেস। মোদি বিরোধিতায় কংগ্রেস-সহ অন্য বিরোধীদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বলা ভাল, এরাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীই বিজেপি বিরোধী মুখগুলির মধ্যে অগ্রণী। তাই এবার দলের ইস্তেহারেও চমক আনতে চলেছে তৃণমূল।

[জাতীয় স্তরে বন্ধুত্ব, তবে রাজ্যে এসে তৃণমূল বিরোধিতায় সরব রাহুল]

আগামী ২৬ মার্চ প্রকাশিত হতে চলেছে তৃণমূল কংগ্রেসের ইস্তেহার। প্রার্থী ঘোষণার দিন হিসেবে মঙ্গলবারকে বেছে নিয়েছিলেন তৃণমূলনেত্রী। ইস্তেহার প্রকাশের দিনও সেই মঙ্গলবার। আগামী সপ্তাহের শুরুতে উত্তরবঙ্গ যাওয়ার কথা ছিল মমতার। কিন্তু ইস্তেহার প্রকাশের জন্য তিনি সেই সফর পিছিয়ে দিয়েছেন। ২৬ মার্চ ইস্তেহার প্রকাশের পরই তিনি যাবেন উত্তরবঙ্গে।

জাতীয় রাজনীতির কথা মাথায় রেখে তাতে আনা হচ্ছে একাধিক পরিবর্তন। আসলে, এবার এরাজ্যের পাশাপাশি আরও বেশ কয়েকটি রাজ্যে প্রার্থী দিচ্ছে তৃণমূল। তাই, সেই সব রাজ্যের ভোটারদের কাছে টানতেই আনা হচ্ছে পরিবর্তন। কিন্তু, কী কী পরিবর্তন? এবারে তৃণমূলের ইস্তেহার বাংলার পাশাপাশি হিন্দি, ইংরেজি, অলচিকি, নেপালিতেও প্রকাশ করা হতে পারে। এরাজ্যের বিভিন্ন ইস্যুর পাশাপাশি জাতীয় স্তরের বিভিন্ন ইস্যুতে স্থান পাবে তৃণমূলের ইস্তেহারে। তুলে ধরা হবে, মোদি সরকারের পাঁচ বছরের নানা ব্যর্থতা। নোট বাতিল থেকে শুরু করে জিএসটি, সবই থাকছে সেই তালিকায়। সেই সঙ্গে, বিজেপির পরিবর্তে কেন্দ্রে বিকল্প সরকার হলে সেই সরকারে তৃণমূল কংগ্রেসের ভূমিকা কী হবে তাও থাকতে পারে ইস্তেহারে। সারা দেশের মানুষের চাহিদার কথা, কৃষক সমস্যা, বেকারত্ব ইত্যাদি ইস্যুও স্থান পেতে পারে।

[‘একসঙ্গে সকলের জন্য কাজ করব’, প্রচারে কর্মীদের বার্তা নুসরতের]

জাতীয় রাজনীতিতে ফোকাস করা হলেও, ২০১১ থেকে গত আট বছরে তৃণমূল সরকারের আমলে বাংলায় কী কী উন্নয়নমূলক কর্মসূচি রূপায়িত হয়েছে তার বিবরণ থাকতে পারে ইস্তাহারে। কন্যাশ্রী, রূপশ্রী, খাদ্যসাথী এবং গীতাঞ্জলির মতো সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্পগুলিও সবিস্তারে তুলে ধরা হতে পারে। তাছাড়া আগামী দিনে রাজ্যে উন্নয়নের দিশা নির্দেশও দেওয়া হতে পারে তৃণমূলের ইস্তেহারে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে