BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  রবিবার ২৯ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

দলের কোর কমিটির সঙ্গে আরও একদফা বৈঠক সেরে দিল্লি রওনা দিলেন অমিত শাহ

Published by: Sayani Sen |    Posted: November 6, 2020 9:03 am|    Updated: November 7, 2020 9:44 am

An Images

পাখির চোখ বিধানসভা নির্বাচন। তার আগে ২ দিনের বাংলা সফরে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। বৃহস্পতিবার বাঁকুড়ায় গিয়েছিলেন তিনি। সেখানে একগুচ্ছ কর্মসূচি ছিল তাঁর। মধ্যাহ্নভোজ সারেন আদিবাসী বাড়িতে। শুক্রবারও দিনভর নানা কর্মসূচি রয়েছে তাঁর। নজর রাখুন শাহের সফরের লাইভ আপডেটে।

রাত ১০.১২: বিশেষ বিমানে রওনা দিয়েল দিল্লি।

রাত ৯.৪০: নিউটাউনের হোটেল থেকে দমদম বিমানবন্দরের দিকে রওনা দিলেন অমিত শাহ।

রাত ৯.৩৩: মিথ্যের ঝুড়ি নিয়ে এসেছিলেন অমিত শাহ, পালটা আক্রমণ তৃণমূলের 

রাত ৮.৩০: নিউটাউনের হোটেলে দলের কোর কমিটির সঙ্গে বৈঠকে বসেছেন বিজেপির প্রাকত্ন সর্বভারতীয় সভাপতি। 

সন্ধে ৬.২৯: সাংবাদিক সম্মেলনে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

  • অনেক আশা নিয়ে ২০১০ সালে মা-মাটি-মানুষকে ক্ষমতায় এনেছিল বাংলার জনতা।
  • কোনও আশাই পূরণ করতে পারেনি তৃণমূল। বরং তোলাবাজি, গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে জেরবার রাজ্য।
  • মা-মাটি-মানুষের সরকার এখন তুষ্টিকরণের সরকার। 
  • বাংলায় সঠিক পরিবর্তন আনতে পারে মোদির নেতৃত্বাধীন বিজেপি সরকার। যে রাজ্যে বিজেপি ক্ষমতায় এসেছে, সেখানে উন্নয়ন হয়েছে।
  • সুযোগ পেলে ৫ বছরের সোনার বাংলা বানাবে বিজেপি।
  • বাংলার প্রশাসনের সম্পূর্ণ রাজনীতিকরণ হয়েছে। রাজনীতিতে অপরাধী আখড়া হয়েছে। চরম দুর্নীতি হয়েছে বাংলায়। করোনা-আমফানের ত্রাণেও জাতপাতের রাজনীতি হয়েছে।
  • বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে সাত প্রশ্ন ছুঁড়লেন অমিত শাহ। 

 

বিকেল ৫.১৯: অমিত শাহ বলেন, “এবারের ভোটে রিগিং, সন্ত্রাস হবে না। এই গ্যারান্টি আমি নিচ্ছি।
পাঁচ মাস পরিশ্রম করো, পঞ্চাশ বছর রাজ করবে। বুথ শক্তিশালী করতে হবে। প্রতিটি বুথে ৪০ জনের কমিটি করতে হবে। বুথ শক্তিশালী না হলে ক্ষমতায় চলে এলেও ক্ষমতা ধরে রাখতে পারবে না। মুখ্যমন্ত্রী মুখ নিয়ে আপনাদের ভাবতে হবে না। নিজেদের কাজ করে যান। তৃণমূলের ব্যর্থতার থেকেও বেশি প্রচারে আনতে হবে মোদীর সাফল্য।”

দুপুর ৩.৩৪: জগৎপুরের নবীন বিশ্বাসের বাড়িতে বাঙালি পদে মধ্যাহ্নভোজ সারছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। সঙ্গে রয়েছেন কৈলাস বিজয়বর্গীয় ও দিলীপ ঘোষ। বাড়ি ঘিরে রেখেছে এসপিজি জওয়ানরা।
দুপুর ৩.২৮: মধ্যাহ্নভোজের জন্য বাগুইহাটির মতুয়া পরিবারে পৌঁছলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

দুপুর ৩.২৪: মতুয়া পরিবারে মধ্যাহ্নভোজনের জন্য রওনা দিলেন অমিত শাহ।
দুপুর ৩.১১: নিউটাউনের মতুয়া মন্দিরে পৌঁছলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। রয়েছেন মুকুল রায়, দিলীপ ঘোষ-সহ আরও অনেকে। অমিত শাহকে পুষ্পবৃষ্টির মাধ্যমে স্বাগত জানানো হয়।

দুপুর ৩: শুধু মমতা সরকারের বিরোধিতা করা নয়। মানুষের আস্থা অর্জনও করতে হবে। সেটা অর্জন করার উপরই নির্ভর করবে সাফল্য। শুক্রবার সল্টলেকে ইজেডসিসিতে কলকাতা, নদিয়া, দুই চব্বিশপরগনা জেলার নেতাদের নিয়ে রুদ্ধদ্বার বৈঠকে এমনই পরামর্শ দিলেন অমিত শাহ। তিনি বলেন, “বিজেপির বিচারধারাকে বিস্তার করতে হবে পশ্চিমবঙ্গে। বাংলার বিকাশ ও সুরক্ষার স্বার্থে বিজেপিকে দরকার। এটা বোঝাতে হবে মানুষকে।” 

বেলা ১২.৫৯: সল্টলেকের ইজেডসিসিতে পৌঁছলেন অমিত শাহ। শুরু হল সাংগঠনিক বৈঠক।
বেলা ১২.৩৪: সল্টলেকের ইজেডসিসি’র উদ্দেশে রওনা দিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।
বেলা ১২.৩২: পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তীর বাড়ি থেকে বেরলেন অমিত শাহ।
বেলা ১২.১১: অমিত শাহকে স্বাগত জানান পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তী।
বেলা ১২.০৪: পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তীর সংগীত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শ্রুতিনন্দনে পৌঁছলেন অমিত শাহ। তাঁর সঙ্গে রয়েছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়।
বেলা ১২.০২: টালিগঞ্জের গলফ ক্লাব রোডে পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তীর সংগীত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শ্রুতিনন্দনের সামনে অমিত শাহকে স্বাগত জানাতে উপস্থিত অর্জুন সিং এবং সব্যসাচী দত্ত।
সকাল ১১.৪১: “আমন্ত্রণ করিনি। আসতে চেয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। আমি তাঁকে স্বাগত জানাব”, বললেন পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তী।
সকাল ১১.১৬: দক্ষিণেশ্বর থেকে বেরলেন অমিত শাহ। এবার পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তীর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শ্রুতিনন্দনে যাবেন তিনি।
সকাল ১১.১৪: অমিত শাহ বলেন, “এই ভূমি শ্রীরামকৃষ্ণ, শ্রীচৈতন্যের। বাংলার হারিয়ে যাওয়া গৌরব ফিরিয়ে আনতে হবে। তোষণের রাজনীতিতে ঐতিহ্য ক্ষুণ্ন হচ্ছে। বাংলার এই ভূমি পবিত্রভূমি। বাংলাবাসীকে বলব একজোট হয়ে দায়িত্বপালন করুন। মা কালীর কাছে গোটা দেশ তথা বাংলার মঙ্গল কামনা করেছি। মোদির নেতৃত্বে দেশ সেরার সেরা হবে তাই চাই।”  

Amit Shahসকাল ১১.১২: দক্ষিণেশ্বরে পুজো দিলেন অমিত শাহ।

Amit-Shah-in-Dakshineswar-Temple সকাল ১০.৫৯: দক্ষিণেশ্বর মন্দিরে পৌঁছলেন অমিত শাহ। সঙ্গে রয়েছেন মুকুল রায়, দিলীপ ঘোষ, কৈলাস বিজয়বর্গীয়, বাবুল সুপ্রিয়, অনুপম হাজরা-সহ আরও অনেকে।
সকাল ১০.৪৩: নিরাপত্তার স্বার্থে আপাতত দক্ষিণেশ্বরে বন্ধ দর্শনার্থীদের প্রবেশ।
সকাল ১০.৪২: বাঙালি বেশে অমিত শাহকে স্বাগত জানাতে প্রস্তুত অগ্নিমিত্রা পল-সহ মহিলা মোর্চার সদস্যরা।
সকাল ১০.৪০: নিউটাউনের হোটেল থেকে দক্ষিণেশ্বরের উদ্দেশে রওনা দিলেন অমিত শাহ।
সকাল ৮.৫৫: দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহের বাঁকুড়া সফরের পরেই পুরুলিয়া ও ঝাড়গ্রাম থেকে সরে যাচ্ছে কেন্দ্রীয় বাহিনী সিআরপিএফ-এর দুই ব্যাটালিয়নের মোট ১৪ কোম্পানি।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement