১ আশ্বিন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

মনিশংকর চৌধুরী ও তনুজিৎ দাস: এবার শহরেই কেন্দ্রীয় বাহিনী ও অন্যান্যদের নজরদারি এড়িয়ে অবাধে ছাপ্পা ভোট দেওয়ার অভিযোগ উঠল৷ কাঠগড়ায় শাসকদলের মহিলা কর্মীরা৷ ঘটনা যাদবপুর কেন্দ্রের একটি বুথে৷ বুথ পরিদর্শনে গেলে তাঁর কনভয়ে হামলা চলে বলে অভিযোগ বিজেপি প্রার্থী অনুপম হাজরার৷ ঘটনা ঘিরে দিনের প্রথমার্ধ্বে উত্তপ্ত রইল যাদবপুর কেন্দ্র৷

[আরও পড়ুন: বিক্ষিপ্ত অশান্তি এবং চাপা উত্তেজনার মধ্যেও ভোটে ব্যাপক সাড়া ভাঙড়বাসীর]

ঘড়ির কাঁটা তখন প্রায় ১১টা ছুঁইছুঁই৷ যাদবপুরের অন্তর্গত ১০৯ নং ওয়ার্ড এলাকার শহিদ স্মৃতি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বুথে চোখে পড়ল চমকপ্রদ এক দৃশ্য৷ দেখা গেল, ১৩৫, ১৩৬ এবং ১৩৭ নং ঘরে ভোটারদের আঙুলে কালি লাগিয়েই ঘর থেকে বের করে দেওয়া হচ্ছে৷ তার বদলে অবাধে ছাপ্পা ভোট দিচ্ছেন একদল মহিলা৷ তাঁদের সকলের মুখ সাদা কাপড়ে ঢাকা৷ নিজেদের ভোটাধিকার বাধাপ্রাপ্ত হওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই ক্ষুব্ধ হয়ে পড়েন ভোটাররা৷ ভোটকেন্দ্রে উত্তেজনা ছড়ায়৷ পর্যাপ্ত নিরাপত্তা, নজরদারি নেই বলে অভিযোগ করতে থাকেন লাইনে দাঁড়ানো ভোটাররা৷ হইহট্টগোলের জেরে ব্যাহত হয় ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়া৷

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছান যাদবপুরের বিজেপি প্রার্থী অনুপম হাজরা৷ আর সেখানে পৌঁছানোমাত্রই মহিলাদের বিক্ষোভের মুখে পড়েন তিনি৷ মুখ ঢাকার মহিলারাই তাঁকে বুথ থেকে বের করে দিতে চান বলে অভিযোগ৷ তৃণমূলের মদতেই তাঁরা একাজ করছেন বলে অভিযোগ অনুপমের৷ ঘটনায় বুথের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা জওয়ান, নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে কথা বলেন৷ কমিশনের দ্বারস্থ হওয়ার কথাও ভাবছেন তিনি৷

[আরও পড়ুন: শাসকদলকে ভোট দেওয়ার ইনাম, বাসন্তীতে মুড়ি-ছোলা-বাতাসা বিলি তৃণমূলের]

এই ঘটনার পর একই ওয়ার্ড এলাকার আরেকটি ভোটকেন্দ্রে হেলেন কেলার স্কুলে গিয়েও অনুপম হাজরা দেখেন, বিজেপি এজেন্টদের বসতে দেওয়া হচ্ছে না৷ প্রবীর কর্মকার এবং ডিসি কর্মকার নামে দুই এজেন্টকে বের করে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ৷ তিনি তার প্রতিবাদ করতে গেলে সেখানেও বিক্ষোভের মুখে পড়লেন৷আর এখানেই তাঁর কনভয়ের উপর চলে হামলা৷ কনভয়ের একটি গাড়িতে ছিলেন যাদবপুর পূর্বের মণ্ডল সভাপতি অরিন্দম রায়৷ অভিযোগ, তাঁর গাড়ির চালকের উপর হামলা চলে৷ জামাকাপড় ছিঁড়ে দেওয়া হয়৷ অরিন্দমকেও ব্যাপক মারধর করা হয়৷ধারাবাহিকভাবে এধরনের অশান্তির ঘটনায় ক্ষুব্ধ বিজেপি প্রার্থী অনুপম হাজরা থানা ঘেরাওয়ের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন৷ ১০১ নং ওয়ার্ডে আরও একটি ঘটনা চোখে পড়ে৷ এক মহিলা অভিযোগ জানান, তাঁর মৃত স্বামীর নামে কেউ বা কারা ছাপ্পা ভোট দিচ্ছে৷ এনিয়ে ওই ভোটার বেশ ক্ষোভপ্রকাশ করেন৷ প্রার্থীকে সামনে পেয়ে তাঁর কাছেই অভিযোগ জানান৷ 

এছাড়া অভিযান ক্লাবের ২৯৩, ২৯৪ নং বুথে বিজেপি এজেন্টকে রীতিমত হুমকি দিতে দেখা দেল এক তৃণমূল নেতাকে৷ ডলি ব্রহ্ম ঘোষ নামে ওই এজেন্টকে বুথে ঢুকে শাসান স্থানীয় তৃণমূল নেতা রাজা বইঠা৷

রাজ্যের ৪২ আসনের সম্ভাব্য ফলাফলের আভাস পেতে নজর রাখুন সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটালের ভোট পরবর্তী সমীক্ষায়৷ চোখ রাখুন সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটালের ফেসবুক পেজে, আজ সন্ধে ৭টায়৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং