BREAKING NEWS

২২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ৯ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

অটো-দৌরাত্ম্য অব্যাহত, প্রাণ গেল দুই যাত্রীর

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: September 21, 2016 3:17 pm|    Updated: September 21, 2016 3:17 pm

Auto accidents continue to take place take away a couple of lives

স্টাফ রিপোর্টার: অটো দৌরাত্ম্যে রাশ টানতে কড়া পদক্ষেপ নেওয়া সত্ত্বেও কলকাতা ও দত্তপুকুরে ফের দু’টি পৃথক দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল দু’জনের৷ বুধবার সকালে বিবেকানন্দ রোডে টাটাসুমো ও অটোর রেষারেষি চলছিল৷ অটোর সঙ্গে বাইকের সংঘর্ষ হয়৷ মারা গিয়েছেন বাইক আরোহী৷ অটোর ধাক্কায় বাইকটি পড়ে যায় বলে অভিযোগ৷ মৃতের নাম মহম্মদ ওয়াসিফ (১৮)৷ উত্তর ২৪ পরগনার দত্তপুকুর এলাকার বিড়া জয়পুলে অন্য  দুর্ঘটনাটি ঘটে৷ লাগামহীন গতিতে অটো চালাতে গিয়ে বিড়াতে এক অটোযাত্রী মারা গিয়েছেন৷ মৃতের নাম রঘুনাথ শীল (৫০)৷ বারাসত সদর হাসপাতালে অটোচালক-সহ চারজন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন৷ দু’টি ঘটনায় পরিবহণ দফতর রিপোর্ট তলব করেছে৷

১৬ সেপ্টেম্বর উল্টোডাঙার কাছে মারা গিয়েছিলেন জয়পুরিয়া কলেজের ছাত্রী পূজা পাল৷ বেপরোয়া গতিতে অটো চালানোর ফলেই মারা যান পূজা৷ মঙ্গলবার একই কারণে সল্টলেকে মারা যান অটোচালক শম্ভু নস্কর ও যাত্রী অরিন্দম বন্দ্যোপাধ্যায়৷ পরিবহণ দফতর ইতিমধ্যে বিভিন্ন কড়া পদক্ষেপ নিয়েছে৷ তবু হুঁশ নেই অটোচালকদের৷ কলকাতা ও সংলগ্ন এলাকায় অটোচালকদের এমন আচরণে বিস্মিত সব মহল৷ এদিন বারাসত থেকে যাত্রী নিয়ে দু’টো অটো বিড়ার দিকে যাচ্ছিল৷ জয়পুলের কাছে তীব্র গতিতে দু’টি অটোর রেষারেষি চলার সময়, একটি অটো ওভারটেক করতে গিয়ে বাসের মুখে পড়ে যায়৷ উল্টোদিক থেকে তখন বনগাঁ-দক্ষিণেশ্বর রুটের ডিএন ৪৪ নম্বর বাস আসছিল৷ বাসটিও তীব্র গতিতে আসছিল৷ মুখোমুখি সংঘর্ষে অটোটি ছিটকে নয়ানজুলিতে পড়ে যায়৷ চালক-সহ চারজন ছিল অটোতে৷ ঘটনাস্থলেই মারা যান যাত্রী রঘুনাথ শীল৷ বিড়ার মেঠোপাড়ায় তাঁর বাড়ি৷ নিজের এলাকায় একটি সেলুন আছে তাঁর৷ ব্যক্তিগত কাজে তিনি বারাসত এসেছিলেন৷ ধাক্কার পর অটোটি দুমড়ে যায়৷ চালক-সহ যাত্রীরা ছিটকে পড়ে যান৷ বারাসত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁদের৷ রঘুনাথকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা৷ বাকিরা আশঙ্কাজনক৷ দুর্ঘটনার পর ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ৷ বাসের চালক পলাতক৷ যশোর রোডে তীব্র যানজট দেখা দেয়৷ পুলিশ যান নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে৷ স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বারাসত থেকে বিড়া রুটটি বেশ লম্বা৷ অটোয় অতিরিক্ত যাত্রী তোলা ও রেষারেষি নিত্যদিনের ঘটনা৷ আগেও বড় দুর্ঘটনা ঘটেছে৷

মঙ্গলবার সকালে সল্টলেকে বাস ও অটোর বেপরোয়া গতির পরিণতিতে প্রাণ গিয়েছে এক যাত্রী-সহ অটোচালকের৷ ধাক্কার জোর এমন ছিল যে, দুর্ঘটনার পর অটোটি দু’বার উল্টে গিয়ে ৩০-৪০ ফুট দূরে ছিটকে পড়ে৷ অটোর ছাদ ফুঁড়ে ছিটকে বাইরে এসে পড়েন অটোচালক৷ অটোর ভিতরেই সংজ্ঞাহীন পড়েন এক মহিলা যাত্রী৷ চালকের বাঁদিকের আসনে বসে থাকা অরিন্দমের মাথার খুলি ফেটে যায়৷ রক্তাক্ত, ক্ষতবিক্ষত চার যাত্রীকে নিয়ে যাওয়া হয় সল্টলেকের এবং বাইপাসের একটি বেসরকারি হাসপাতালে৷ দুমড়ে মুচড়ে যাওয়া অটোটিকে নিয়ে যাওয়া হয় বিধাননগর উত্তর থানায়৷ পলাতক চালকের খোঁজে তল্লাশিতে নামে পুলিশ৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে