BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সাড়ে ছ’ঘণ্টা পর ঘুরপথে রাজ্যপালের গাড়িতে যাদবপুরের ক্যাম্পাস ছাড়লেন বাবুল

Published by: Tanujit Das |    Posted: September 19, 2019 8:38 pm|    Updated: September 19, 2019 9:34 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সাড়ে ছ’ঘণ্টা বন্দি থাকার পর রাজ্যপালের কনভয়ে অবশেষে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বের হলেন বাবুল সুপ্রিয়৷ ঘুর পথে রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের গাড়ি করেই ক্যাম্পাস ছাড়লেন তিনি৷ বিক্ষোভরত বামপন্থী পড়ুয়াদের চোখে ধুলো দিয়ে চার নম্বরের বদলে তিন নম্বর গেট দিয়ে বাবুল সুপ্রিয় ও রাজ্যপালের কনভয় বের করল পুলিশ৷

[ আরও পড়ুন: প্রধানমন্ত্রীকে দেউচা-পাঁচামি কয়লাখনি উদ্বোধনে না আসার আবেদন, চিঠি বিজেপি সাংসদের ]

কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে উদ্ধার করতেই সন্ধ্যায় যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে আসেন স্বয়ং আচার্য তথা রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়৷ ক্যাম্পাসে তাঁর গাড়ি ঢুকতেই বামপন্থী ছাত্রদের দ্বারা বাধাপ্রাপ্ত হন তিনি৷ আটকে দেওয়া হয় রাজ্যপালের গাড়ি৷ এরপর কোনওক্রমে বাবুল সুপ্রিয়র কাছে পৌঁছন জগদীপ ধনকড়৷ এবং কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে উদ্ধার করে নিজের গাড়িতে নিয়ে যান৷ এরপর পরিস্থিতি আরও উত্তপ্ত হয়ে ওঠে৷ রাজ্যপালের গাড়ির সামনে ধরনায় বসে পড়েন পড়ুয়ারা৷ ক্ষমা না চাইলে কোনও ভাবেই বাবুল সুপ্রিয়কে ক্যাম্পাস ছাড়তে দেবেন না বলে, জানান তাঁরা৷ পড়ুয়াদের বোঝানোর চেষ্টা করেন রাজ্য পুলিশের শীর্ষ কর্তারা৷ কিন্তু তাতেও কোনও লাভ হয়নি বলেই সূত্রের খবর৷ অবশেষে, কৌশলে রাজ্যপাল ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে উদ্ধার করে পুলিশ৷ চার নম্বর গেটের দিকে যেতে যেতেই হঠাৎ তিন নম্বর গেটের দিকে গাড়ি ঘুরিয়ে দেওয়া হয়৷ আর ওই গেট দিয়েই বের করে দেওয়া হয় কনভয়কে৷

[ আরও পড়ুন: এনআরসি আতঙ্ক কাটাতে আইনি সহায়তা কেন্দ্র খোলার উদ্যোগ তৃণমূলের, জানালেন সিদ্দিকুল্লা ]

অন্যদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের চার নম্বর গেটের সামনে কার্যত তাণ্ডব শুরু করে গেরুয়াপন্থী ছাত্র সংগঠন আখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ (এবিভিপি) ও দুর্গা বাহিনী৷ অভিযোগ, এসএফআই-এর যে ইউনিয়ন রুম রয়েছে তাতে ব্যাপক ভাঙচুর চালানো হয়েছে৷ ছাত্র সংসদের ঘরের সমস্ত সরঞ্জাম ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে৷ বর্তমানে চার নম্বর গেটের দখল নিয়েছে এবিভিপি৷ রাস্তায় নেমেও বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন গেরুয়াপন্থী ছাত্র সংগঠনের সদস্যরা৷ রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন তাঁরা৷ রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে গোটা যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় চত্বর৷ মোতায়েন রয়েছে প্রচুর পুলিশ বাহিনী৷ বিক্ষোভকারীদের থামাতে রাস্তায় নেমেছে বিশাল ব়্যাফ ও পুলিশ বাহিনী৷

এদিকে, বাবুল সুপ্রিয়কে হেনস্তার প্রতিবাদে আসানসোলে বিক্ষোভে নেমেছেন বিজেপি সমর্থকরা। বিজেপি যুব মোর্চার জেলা সভাপতি অরিজিৎ রায়ের নেতৃত্বে আসানসোল বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন জিটি রোড অবরোধ করা হয়। রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে বসে পড়েন বিজেপি সমর্থকরা। এছাড়াও বিজেপি কর্মীরা হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, অভিযুক্তরা গ্রেপ্তার না হলে জঙ্গি আন্দোলনে নামবেন তাঁরা।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement