BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  রবিবার ২৯ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

প্রকাশ্যে জিতেন্দ্র তিওয়ারিকে নিয়ে মন্তব্য কেন? সায়ন্তনকে শোকজ দিলীপের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: December 22, 2020 4:59 pm|    Updated: December 22, 2020 5:03 pm

Bengal BJP sends showcause notice to Sayantan Basu for commenting on Jitendra Tiwari on camera| Sangbad Pratidin

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: জিতেন্দ্র তিওয়ারি বিজেপিতে যোগদান নিয়ে দলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসুর মন্তব্য মোটেই ভালভাবে নেননি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। তা ‘দলবিরোধী’ বলেই মনে করছেন তিনি। আর সেই কারণে শোকজের মুখে সায়ন্তন বসু (Sayantan Basu)। মঙ্গলবার তাঁকে শোকজের চিঠি পাঠাল রাজ্য বিজেপি। ৭ দিনের মধ্যে জবাব তলব করা হয়েছে। এছাড়াও রাজ্য নেতৃত্বের কোপে পড়েছেন আরও এক নেতা। একই বিষয়ে মন্তব্যের জন্য আলিপুরদুয়ারের বিজেপি সভাপতি গঙ্গাপ্রসাদ শর্মাকেও শোকজ করা হয়েছে।

দলের সঙ্গে সাময়িক মনোমালিন্যের জেরে আসানসোলের পুরপ্রশাসক তথা পাণ্ডবেশ্বরের তৃণমূল বিধায়ক জিতেন্দ্র তিওয়ারি (Jitendra Tiwari) দল ছেড়েছিলেন। শুভেন্দুর পথে হেঁটে তাঁর এই পদক্ষেপকে বিজেপিতে (BJP) যোগদানে একধাপ এগিয়ে যাওয়া বলেই মনে করা হয়েছিল প্রাথমিকভাবে। কিন্তু ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই মতান্তর মিটে যাওয়ায় তিনি তৃণমূলেই থাকছেন বলে সাংবাদিক সম্মেলন করে জানান। তবে এটুকু সময়ের মধ্যেই তাঁকে নিয়ে গেরুয়া শিবিরে তুমুল জল্পনা শুরু হয়। বঙ্গ বিজেপির অন্যতম নেতা সায়ন্তন বসু-সহ আরও অনেকেই ছিলেন জিতেন্দ্রর বিপক্ষে। তাঁরা কেউই পাণ্ডবেশ্বরের তৃণমূল বিধায়ককে দলে স্বাগত জানাতে তেমন রাজি হননি। সায়ন্তন বসু সাংবাদিক বৈঠকে জানিয়েছিলেন, জিতেন্দ্রকে দলে নেওয়া ঠিক হবে না। কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সঙ্গে তিনি এ বিষয়ে কথা বলবেন। প্রকাশ্যে এই মন্তব্য পার্টি ভাল চোখে নেয়নি। তাই তাঁকে শোকজ করেছে রাজ্য নেতৃত্ব।

[আরও পড়ুন: দেহব্যবসায় আপত্তি, প্রতিশোধ নিতে চার বন্ধুকে দিয়ে স্ত্রীকে ‘গণধর্ষণ’ করাল স্বামী]

অথচ জিতেন্দ্রকে বিজেপিতে নেওয়া নিয়ে এর চেয়েও বেশি বিরোধিতার সুর শোনা গিয়েছিল সবার প্রথমে এর বিরোধিতায় সরব হয়েছিলেন বিজেপি মহিলা মোর্চা সভানেত্রী অগ্নিমিত্রা পল। অথচ একই ইস্যুতে তাঁরা ছাড় পেয়ে গেলেন। ফলে প্রশ্ন উঠছে, প্রকাশ্য মন্তব্যে শুধুই কি দলবিরোধিতা নাকি জিতেন্দ্রকে দলে টানতে দিলীপের আশাভঙ্গ হওয়ার শাস্তি সায়ন্তনের এই শোকজ?

[আরও পড়ুন: ‘আমার বউ ফেরত চাই’, পোস্টার হাতে শ্বশুবরাড়ির সামনে ধরনায় মুর্শিদাবাদের যুবক]

আলিপুরদুয়ার জেলার বিজেপি সভাপতি গঙ্গাপ্রসাদ শর্মাকেও শোকজ করে চিঠি দিয়ে সাতদিনের মধ্যে জবাব চাওয়া হয়েছে। গঙ্গাপ্রসাদ শর্মাও সংবাদ মাধ্যমে ‘দলবিরোধী’ মন্তব্য করেছিলেন বলে অভিযোগ। উল্লেখ্য, অমিত শাহর সভায় আলিপুরদুয়ারে তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন প্রাক্তন সাংসদ দশরথ তিরকে, আলিপুরদুয়ার এর প্রাক্তন চেয়ারম্যান আশিস দত্ত ও দলের জেলা তৃণমূল সহ সভাপতি বাপ্পা মজুমদার। এঁদের যোগদান প্রসঙ্গে গঙ্গাপ্রসাদ শর্মার মন্তব্য ছিল, “এখন জেলায় দলে কোনও পদ খালি নেই। এঁদের পদ দেওয়া যাবে না।” এই মন্তব্য নিয়েই রাজ্য বিজেপির তরফে শোকজ করে জবাব চেয়ে চিঠি দেওয়া হয়েছে আলিপুরদুয়ার বিজেপির জেলা সভাপতিকে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে