BREAKING NEWS

১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বাংলার মন পেতে রথযাত্রায় বিজেপির হাতিয়ার রবীন্দ্র সংগীত

Published by: Kumaresh Halder |    Posted: November 28, 2018 12:14 pm|    Updated: November 28, 2018 12:14 pm

BJP banks on Rabindra Sangeet

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: ‘উড়িয়ে ধ্বজা অভ্রভেদী রথে।’ রথের পথেও সহায় কবিগুরু! আসন্ন রথযাত্রা অভিযানে রবীন্দ্রনাথকে হাতিয়ার করেই বাঙালি আবেগকে কবজা করতে চাইছে গেরুয়া শিবির। রাজ্যে বিজেপির রথযাত্রার থিম সং তাই রবীন্দ্রসঙ্গীত। দলীয় সূত্রে খবর, রবি ঠাকুরের পূজা পর্যায়ের অতি চেনা ‘উড়িয়ে ধ্বজা অভ্রভেদী রথে, ওই-যে তিনি ওই-যে বাহির পথে’ গানটি নিয়ে বানানো হচ্ছে একটি ভিডিও। চলমান রথের সঙ্গেই বাজতে থাকবে ওই রবীন্দ্রসংগীত, সঙ্গে পর্দায় চলবে ভিডিও। রাজ্য বিজেপির অন্যতম সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু জানিয়েছেন, থিম সংয়ের সঙ্গে থাকা ভিডিওটি নির্মাণের কাজ চলচ্ছে।

[একের পর এক অগ্নিকাণ্ডের জের, সব বহুতলে বাধ্যতামূলক হচ্ছে ফায়ার অডিট]

রাজ্য বিজেপিতে এখন রথযাত্রা নিয়ে ব্যস্ততা তুঙ্গে। যাত্রার প্রস্তুতিতে রাজ্য জুড়ে ছুটে বেড়াচ্ছেন শীর্ষ নেতারা। শিবপ্রকাশ, অরবিন্দ মেননের সতো তাবড় কেন্দ্রীয় নেতারা আপাতত টানা ঘাঁটি গেড়ে রয়েছেন বাংলায়। ৪১ দিনের রথযাত্রা পর্বে অমিত শাহ থেকে বহু নামী-দামি মুখ আসার কথা। এসবের মধ্যেই দিলীপ ঘোষরা চেষ্টা চালাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকেও হাজির করিয়ে গোটা চারেক জনসভা করাতে।

দলের তরফে জানানো হয়েছে সে কথা। দলীয় সূত্রে খবর, শুধু জনসভা নয়, চেষ্টা চলছে তারাপীঠে তৃতীয় রথের সূচনাতে নরেন্দ্র মোদিকে হাজির করানোর। রাজ্য নেতারা জেনেছেন, ১৪ ডিসেম্বর রাজ্যে একটি সরকারি অনুষ্ঠানে আসতে পারেন প্রধানমন্ত্রী। ওইদিনই আবার তারাপীঠ থেকে তৃতীয় রথযাত্রার সূচনা। সেখানে থাকবেন অমিত শাহ। মুরলীধর সেন লেন চাইছে, সেই অনুষ্ঠানে মোদিকেও নিয়ে আসতে। এজন্য দরবারও করা হয়েছে দিল্লিতে। সেক্ষেত্রে রামপুরহাট রেল ময়দানে একটি জনসভাও করবেন মোদি।

[পরকীয়ায় আর আগ্রহ নেই গৃহবধূর, অন্তরঙ্গ ছবি ভাইরালের হুমকি যুবকের]

বাঙালি আবেগকে ধরার চেষ্টার পাশাপাশি সেলিব্রিটিদের গ্রামেগঞ্জে এনে রথযাত্রাকে আরও আকর্ষণীয় করে তুলে সাধারণ মানুষের অংশগ্রহণ বাড়াতেও কসুর করছে না রাজ্য বিজেপি। একমাসেরও বেশি ধরে চলা রথযাত্রা কর্মসূচিতে ডজনেরও বেশি সেলিব্রিটিকে আনার চেষ্টা চলছে। যাঁদের মধ্যে রয়েছেন হেমা মালিনী, পুনম ধিলোঁ, কুমার শানুর মতো বহু নাম। এঁদের কাছে আমন্ত্রণপত্রও চলতি সপ্তাহের মধ্যেই পাঠিয়ে দিচ্ছে মুরলীধর সেন লেনের কর্তারা। আমন্ত্রিত সেলিব্রিটি ও তারকা বক্তা মিলিয়ে ৫০ জনেরও বেশি তালিকা তৈরি হয়েছে।

মোদি-শাহ ছাড়াও হেভিওয়েটদের মধ্যে আসছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রাজনাথ সিং, অরুণ জেটলি, নীতিন গড়করি, স্মৃতি ইরানি, রবিশঙ্কর প্রসাদ, পীযূষ গোয়েল, উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ, ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব প্রমুখ। প্রত্যেকেই একাধিক সভা করবেন। সেই মতো তালিকাও পাঠানো হয়েছে দিল্লিতে।

[দুটি বাসের রেষারেষিতে শহরে দুর্ঘটনা, বরাতজোরে রক্ষা বাইক চালকের]

রথযাত্রা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে বাংলায় লোকসভা নির্বাচনের প্রচারও কার্যত শুরু করে দিতে চলেছে বঙ্গ বিজেপি। ৭ ডিসেম্বর কোচবিহার, ৯ ডিসেম্বর গঙ্গাসাগর ও ১৪ ডিসেম্বর তারাপীঠ থেকে মোট তিনটি রথ বের হবে। তিনটি রথেরই সূচনা করবেন দলের সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। কোচবিহারে প্রথম রথযাত্রা সূচনায় গিয়ে নিউ কোচবিহার রেল ময়দানে জনসভাও করবেন শাহ। এক মাসেরও বেশি সময় ধরে রাজ্যের ৪২টি লোকসভা কেন্দ্র ছুঁয়ে তিনপ্রান্ত থেকে এই রথ ১৬ জানুয়ারি আসবে কলকাতায়। তারপর ব্রিগেডে নরেন্দ্র মোদির সভা হবে। তার আগে শিলিগুড়ি, মালদহ, কৃষ্ণনগর ও দুর্গাপুর কিংবা আসানসোলে অন্তত আরও চারটি সভা করাতে চাইছে রাজ্য বিজেপি। চলতি সপ্তাহের মধ্যেই সভার দিন ও স্থান ঠিক হয়ে যাবে। তাই ফের বৈঠকে বসবে রাজ্য নেতৃত্ব।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে