BREAKING NEWS

১৭  মাঘ  ১৪২৯  বুধবার ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

রাজ্যবাসীর মঙ্গল কামনায় বিপত্তারিণী পুজো, একুশের আগে বাঙালির দল হতে মরিয়া বিজেপি!

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: June 28, 2020 4:46 pm|    Updated: June 28, 2020 4:46 pm

BJP is trying to gain Bengali sentiment through Mahila Morcha

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজ্যবাসীর স্বার্থে বিপত্তারিণী পুজো দিলেন অগ্নিমিত্রা পল। মিশন একুশে কি তাহলে বাঙালির ‘বারোমাস্যা পাঠ’ই নতুন ‘হুকুম কা এক্কা’ বঙ্গ বিজেপির? এমন প্রশ্ন কিন্তু ইতিমধ্যেই উঠেছে রাজনৈতিক মহলের অন্দরে। চতুর্দিকে করোনা আবহ। সরকারের স্ট্র্যাটেজিও নিত্যনতুন। ওদিকে ঈগলের চোখ একুশের নির্বাচন। বাংলায় ক্ষমতা দখলের লড়াই। অতঃপর এই মারণ ভাইরাসের তাণ্ডবের মাঝেও রাজ্যবাসীর মন জয় করতে কোনওরকম ফাঁকফোকরই রাখতে নারাজ বঙ্গ বিজেপি! শনিবার বিজেপির মহিলা মোর্চার সভানেত্রী অগ্নিমিত্রা পল (Agnimitra Paul) রাজ্যের মানুষের স্বার্থে বিপত্তারিণী পুজো দিলেন।

শুধু পুজোই দিলেন না! রাজ্যে এমন সংকটকালীন পরিস্থিতিতে যাঁরা সম্মুখ সমরে লড়াই করছেন, চিকিৎসকদের পাশাপাশি নিজেদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কর্তব্যপালন করছেন, তাঁদের সুরক্ষা কামনায় বিপত্তারিণীর লাল সুতোও বেঁধে দিলেন। এতদিন যেখানে গেরুয়া শিবিরের উৎসবের তালিকায় রাম নবমী, হনুমান জয়ন্তী, দশেরা পালনের আধিক্য ছিল, সেই তালিকায় এবার বিপত্তারিণী পুজোর মতো আদ্যোপান্ত বাঙালি লোকাচারও যুক্ত হল। বঙ্গ বিজেপির মহিলা মোর্চার নেত্রীরা নিষ্ঠা-সহকারে পুজো দিয়ে মঙ্গল কামনায় পুলিশদের হাতে ‘লাল তাগা’ বেঁধে দিলেন।

[আরও পড়ুন: আক্রান্ত ও মৃত্যুর নিরিখে এগিয়ে কলকাতা, সেরো সার্ভের রিপোর্টে ঘুম উড়েছে স্বাস্থ্যদপ্তরের]

এই প্রচেষ্টা অবশ্য গতবছর পুজোর সময় থেকেই শুরু হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু হালে সেভাবে পানি পাওয়া যায়নি! অন্যদিকে আবার রাম নবমীতে হাতে হাতে তরোয়াল, ধারালো অস্ত্র দেখেও ‘এটা বাংলা সংস্কৃতি নয়’ বলে অনেকে সমালোচনা করেছিলেন। তবে এবার খাঁটি বাঙালি লোকাচার- নীলষষ্ঠী, বিপত্তারিণী পুজো। করোনা পরিস্থিতিতে মহিলা মোর্চার সদস্যরা রাজ্যবাসীর মঙ্গল কামনায় পুজো দিয়ে বাংলায় ক্ষমতা দখলের লড়াইয়ের কর্মসূচিকে আরও একধাপ এগিয়ে নিয়ে গেল বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক মহলের একাংশ। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী অবশ্য অনেক আগেই এই মন্ত্রে পুজো দিয়ে ফেলেছেন।

উল্লেখ্য, গত লোকসভা নির্বাচনের সময় ৪২টি আসনের মধ্যে ১৮টি আসন জেতার পর থেকেই মিশন একুশের প্রস্তুতি শুরু হয়ে যায় গেরুয়া শিবিরের অন্দরে। গ্ল্যামার ইন্ডাস্ট্রি থেকেও গত বছর একদল বাঙালি মুখ যোগ দিয়েছেন বিজেপিতে। প্রসঙ্গত, রূপা গঙ্গোপাধ্যায় (Rupa Ganguly), লকেট চট্টোপাধ্যায়দের (Locket Chatterjee) হাত ধরে কিন্তু মহিলা মোর্চার ভোল একেবারে পালটে গিয়েছে। যার জেরে বাংলাতেও যে বেশ সাফল্য লাভ করেছে বিজেপি, তা অস্বীকার করার কোনও জায়গাই নেই! এবার সেই সাফল্যের হাত ধরেই আরও এক গ্ল্যামার জগতের আরও এক নাম অগ্নিমিত্রা পলের (Agnimitra Paul) উপর ভরসা রেখেছে। আর মহিলা মোর্চার দায়িত্ব পেয়ে তিনিও কিন্তু ময়দানে নেমে পড়েছেন মিশন একুশের লক্ষ্যে। আর বাংলার মানুষের মন জয় করতে অগ্নিমিত্রা ভরসা রেখেছেন বাঙালি লোকাচারে।

[আরও পড়ুন: মুখ ফিরিয়েছে হাসপাতাল, যন্ত্রণায় আত্মহত্যা প্রৌঢ়ের, পুত্রশোকে মৃত্যু বাবারও]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে