২ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২০ আগস্ট ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২০ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

অর্ণব আইচ:  তৃতীয় দফা ভোটের পরেও রাজনৈতিক সংঘর্ষ অব্যাহত রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে। এবার দেওয়াল লিখনকে কেন্দ্র করে তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে উত্তেজনা ছড়াল বেহালার সরশুনা এলাকা। অভিযোগ, বুধবার রাতে দেওয়াল লিখন বন্ধ করতে বলে বিজেপি কর্মীদের বেধড়ক মারধর করেন বেশ কয়েকজন তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতী। গুরুতর আহত হন ১ জন বিজেপি কর্মী। বর্তমানে বিদ্যাসাগর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই বিজেপি কর্মী।

[আরও পড়ুন: অর্জুনের গড় ভাটপাড়ায় তৃণমূলের বাজি মদন মিত্র, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর]

নির্বাচনের দিন ঘোষণা থেকে শুরু করে তৃতীয় দফার ভোটের পরেও রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে রাজনৈতিক সংঘর্ষের ছবি প্রকাশ্যে এসেছে। কোথাও তৃণমূলের আক্রমণের শিকার হয়েছেন বিরোধী দলের কর্মীরা, কোথাও আবার আক্রমণের মুখে পড়তে হচ্ছে খোদ শাসকদলের কর্মীদের। এবার শহরে আক্রমণের শিকার বিজেপির কর্মীরা। জানা গিয়েছে, বুধবার গভীর রাতে বেহালার সরশুনা এলাকায় দলীয় প্রার্থীর সমর্থনে দেওয়াল লিখছিলেন বিজেপির কর্মী, সমর্থকরা। অভিযোগ, সেই সময় হঠাৎই প্রায় ২০-২৫ জন যুবক তাঁদের কাজে বাধা দেয়।অভিযুক্তদের কথা মানতে রাজি না হওয়ায় বিজেপি কর্মীদের বেধড়ক মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। দু’দলের সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে সরশুনা এলাকা। ঘটনায় গুরুতর আহত হন সুদীপ বিশ্বাস নামে এক বিজেপি কর্মী। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাঁকে উদ্ধার করে বিদ্যাসাগর হাসপাতালে ভরতি করা হয়। বর্তমানে সেখানেই চিকিৎসাধীন ওই ব্যক্তি।

[আরও পড়ুন: হাওড়ায় মারধরের প্রতিবাদে রাজ্যজুড়ে কর্মবিরতির ডাক আইনজীবীদের]

স্থানীয় বিজেপি সমর্থকদের অভিযোগ, নির্বাচনের দিন ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই তাঁদের প্রচারে বাধা দিচ্ছে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। অভিযোগ, বুধবার রাতেও তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরাই বিজেপি কর্মীদের উপর চড়াও হয়।বিজেপি কর্মীদের মারধর করে তাঁরা। যদিও বিজেপির অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা বলে দাবি করেছেন স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব।  বিষয়টি জানতে ইতিমধ্যেই স্থানীয়দের জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। অভিযুক্তদের শাস্তির দাবিতে সরব হয়েছেন বিজেপি নেতৃত্ব। ঘটনার জেরে চাপা আতঙ্ক এলাকায়৷        

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং