২২ আষাঢ়  ১৪২৭  মঙ্গলবার ৭ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

‘বাংলার কোয়ারেন্টাইন সেন্টারগুলি মৃত্যুর আঁতুরঘর’, নতুন পদ পেয়েই রাজ্যকে বিঁধলেন সায়ন্তন

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: June 2, 2020 7:10 pm|    Updated: June 2, 2020 7:22 pm

An Images

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: বিজেপির নতুন রাজ্য কমিটি ঘোষণার পরই মোদি সরকারের সাফল্য নিয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করলেন দলের গুরুত্বপূর্ণ পদের দায়িত্বপ্রাপ্ত সায়ন্তন বসু, লকেট চট্টোপাধ্যায়, অর্জুন সিং ও সব্যসাচী দত্ত। কাঠগড়ায় তুললেন রাজ্যকে। করোনা পরিস্থিতিতে রাজ্যের ভূমিকা নিয়েও উগড়ে দিলেন ক্ষোভ।

সোমবারই রাজ্য কমিটির সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পেয়েছেন সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় ও সায়ন্তন বসু। সহ-সভাপতি হয়েছেন সাংসদ অর্জুন সিং। সল্টলেকের প্রাক্তন মেয়র তথা বিধায়ক সব্যসাচী দত্তকে দলের অন্যতম রাজ্য সম্পাদক করেছে বঙ্গ বিজেপি। মঙ্গলবার রাজ্য বিজেপি দপ্তরে এই চার শীর্ষ নেতা সাংবাদিক বৈঠকে দ্বিতীয় মোদি সরকারের প্রথম এক বছর পূর্তিতে সরকারের সাফল্যের দিকগুলি তুলে ধরলেন। ৩৭০ ধারা বিলোপ করে জম্মু-কাশ্মীর কে মূল ভারতের সঙ্গে যুক্ত করা, জম্মু-কাশ্মীর যাতে ভারতের উন্নয়নে সক্রিয়ভাবে অংশ নিতে পারে তার ব্যবস্থা নরেন্দ্র মোদির সরকার করেছে, বলেন বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু। কেন্দ্রের আয়ুষ্মান ভারত যোজনা থেকে কিষাণ সন্মান নিধি যোজনার সুবিধা থেকে বাংলার মানুষকে তৃণমূল সরকার বঞ্চিত করেছে বলে মুখ্যমন্ত্রীর দিকে অভিযোগের আঙুল তোলেন সায়ন্তন। তাঁর অভিযোগ, কিষাণ সন্মান নিধিতে রাজ্যের কৃষকদের তালিকা কেন্দ্রের কাছে পাঠায়নি রাজ্য সরকার। শুধু তাই নয়, প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার টাকা নিয়েও তৃণমূল দুর্নীতি করেছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে খাবার না মেলার অভিযোগ প্রসঙ্গেও রাজ্যকে আক্রমণ করেন সায়ন্তন বসু। বলেন, পশ্চিমবঙ্গের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারগুলি মৃত্যুর আঁতুরঘরে পরিণত হয়েছে।

[আরও পড়ুন: কমিশনারের নির্দেশের পরই হাতে মাস্ক নিয়ে রাস্তায় পুলিশ, দেওয়া হচ্ছে পথচারী-চালকদের]

লকেট চট্টোপাধ্যায় বলেন, মহিলাদের সন্মান দিয়েছে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার। বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও-এর মাধ্যমে আত্মনির্ভর হয়েছে মহিলারা। তিন তালাক রোধে আইন আনা হয়েছে। আর উলটোদিকে বাংলায় দিনের পর দিন মহিলাদের উপর নির্যাতন বেড়ে চলেছে। 

[আরও পড়ুন: স্তন্যদানে অপারগ মা, করোনাতঙ্ক উপেক্ষা করে স্তন্যপান করিয়ে সদ্যোজাতর কান্না থামালেন নার্স]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement