৩২ শ্রাবণ  ১৪২৬  রবিবার ১৮ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৩২ শ্রাবণ  ১৪২৬  রবিবার ১৮ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘‘উনি শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যুদিন পালন করতে পারেন৷ কিন্তু তাঁর আদর্শ মানতে পারেন না৷’’ রাজ্য সরকারের উদ্যোগে রবিবার জন সংঘের প্রতিষ্ঠাতা শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হওয়ায়, এ ভাষাতেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমণ শানালেন বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়৷ অভিযোগ করলেন, মুখ্যমন্ত্রীর অঙ্গুলিহেলনেই এ রাজ্যে বিজেপি কর্মীদের উপর একের পর এক হামলা চলছে৷

[ আরও পড়ুন: রাজনৈতিক হিংসার বলি পরিবারগুলিকে ২ লক্ষ টাকা করে সাহায্য ঘোষণা নবান্নের ]

সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগের সুর চড়িয়ে এদিন রাজ্য বিজেপির কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক জানান, ‘‘শ্যামাপ্রসাদের মৃত্যুবার্ষিকী পালন এবং তাঁর আদর্শ মেনে কাজ করা, দুটি আলাদা বিষয়৷ মমতাজি শ্যামাপ্রসাদের মৃত্যুবার্ষিকী পালন করছেন, সেজন্য ওনাকে ধন্যবাদ৷ তবে ওনার শ্যামাপ্রসাদের আদর্শও মেনে চলা উচিত৷ তাহলেই এরাজ্যে রাজনৈতিক হিংসা কমবে৷’’ একই সঙ্গে কৈলাস বিজয়বর্গীয় দাবি করেন, ‘‘শ্যামাপ্রসাদের মৃত্যু বার্ষিকী পালন করলেও, তাঁর আদর্শে বিশ্বাস করেন না মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ একদিকে যখন শ্যামাপ্রসাদ দেশকে সংঘবদ্ধ করার রাজনীতি করেছেন৷ তখন মমতার দেশকে বিভক্ত করার রাজনীতি করছেন৷’’ এখানেই শেষ নয়, সাম্প্রতিক কালে ভাটপাড়া ও বিষ্ণুপুরে বিজেপি কর্মীদের মৃত্যুর যে ঘটনা ঘটেছে, সেই বিষয়েও রাজ্য সরকারকে কাঠগড়ায় তোলেন বিজেপির কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক৷ অভিযোগ করেন, সরকারের ব্যর্থতাতেই এই হিংসার ঘটনা ঘটে চলেছে৷ কেবল তৃণমূল নয়, শ্যামাপ্রসাদের মৃত্যুবার্ষিকীতে এদিন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহেরুকেও একহাত নেন বিজেপির নয়া কার্যকরী সভাপতি জেপি নাড্ডা৷ তিনি অভিযোগ করেন, সমগ্র দেশ চাইলেও, দেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী নেহেরুর চক্রান্তেই শ্যামাপ্রসাদের মৃত্যুর সঠিক তদন্ত হয়নি৷ দাবি করেন, জনসংঘের প্রতিষ্ঠাতার বলিদান বিফলে যাবে না৷ শেষ রক্ত দিয়েও বিজেপি নেতা, কর্মী-সমর্থকরা তা পালন করবে৷

[ আরও পড়ুন: ‘বসিরহাটে সব ঠিক আছে’, বিয়ের পর দেশে ফিরে মন্তব্য নুসরতের ]

প্রসঙ্গত, রবিবার শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যুদিনে ক্যাওড়াতলা মহাশ্মশানে রাজ্য সরকারের তরফে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়৷ যেখানে সরকারের তরফে হাজির ছিলেন বিদ্যুৎ দপ্তরের মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়৷ তিনি জানান, নিজ স্বার্থে বিজেপি শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়কে সাম্প্রদায়িক নেতা হিসাবে সকলের সামনে তুলে ধরার চেষ্টা করে৷ কিন্তু তিনি বাংলার বীর সন্তান৷ যিনি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসাবে প্রথম ইসলামিক শিক্ষার প্রচলন করেছিলেন৷ অন্যদিকে দেশজুড়ে এই দিনটি ‘বলিদান দিবস’ হিসাবে পালন করছে বিজেপি৷ দেশের বিভিন্ন প্রান্তে তাঁর মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হচ্ছে৷ এদিন সকালেই শ্যামাপ্রসাদকে শ্রদ্ধা জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তথা বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ৷ শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং