৫ শ্রাবণ  ১৪২৬  রবিবার ২১ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজ্যে নির্বাচন পরবর্তী হিংসা বিধ্বস্ত পরিবারগুলির পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিল প্রশাসন৷ প্রত্যেক পরিবারকে আর্থিক সাহায্য দানের কথা ঘোষণা করল নবান্ন৷ শনিবার নবান্ন সূত্রে খবর, রাজনৈতিক হিংসায় নিহতদের প্রত্যেকের পরিবার পিছু ২ লক্ষ টাকা করে সাহায্য দেওয়া হবে রাজ্যের কোষাগার থেকে৷

[আরও পড়ুন: ‘বসিরহাটে সব ঠিক আছে’, বিয়ের পর দেশে ফিরে মন্তব্য নুসরতের]

নবান্ন সূত্রে আরও খবর, প্রশাসনিক স্তরে এই তালিকা তৈরির কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে৷ কোথায় রাজনৈতিক হিংসার বলি হয়েছে ক’টি পরিবার, জেলা প্রশাসনের কাছে তার বিস্তারিত তথ্য নিয়ে প্রস্তুতি শুরু হয়েছে৷ রাজনৈতিক দলমত নির্বিশেষে তাঁরা প্রত্যেকেই আর্থিক সাহায্য পাবেন৷ এরপর পরিস্থিতি বিবেচনা করে চাকরি বা অন্য কোনও সাহায্য করা যেতে পারে৷ তবে তা একেবারেই পরিস্থিতি সাপেক্ষ এবং কিছুটা দূরবর্তী সিদ্ধান্ত৷ আপাতত রাজ্যে ভোট পরবর্তী হিংসার শিকার পরিবারগুলির পাশে আর্থিকভাবে দাঁড়াচ্ছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার৷

লোকসভা ভোট মিটে নতুন সরকার কাজ শুরু করলেও, এরাজ্যের রাজনৈতিক পরিস্থিতির খুব একটা হেরফের হয়নি৷ নিত্যদিন বিভিন্ন জায়গায় অশান্তি সংঘর্ষ লেগেই রয়েছে৷ বসিরহাট, সন্দেশখালি, ভাটপাড়া সম্প্রতি বাঁকুড়ার পাত্রসায়র – একাধিক জায়গায় তৃণমূল-বিজেপি গণ্ডগোলে উত্তপ্ত পরিস্থিতি৷ তিনজনের মৃত্যু হয়েছে সন্দেশখালিতে৷ বিশেষত এখানকার অশান্তি এমন চরমে পৌঁছেছিল যে রিপোর্ট চেয়ে পাঠিয়েছিল কেন্দ্র৷ দিল্লি থেকে রাজ্যের কাছে এ সংক্রান্ত একটি অ্যাডভাইজারিও পাঠানো হয়েছিল৷ আর সম্প্রতি ভাটপাড়ার অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতিও উদ্বেগে ফেলেছে দিল্লির প্রশাসনিক কর্তাদের৷প্রায় রোজই বোমা-গুলি, মারধরে উত্তপ্ত হয়ে উঠছে এলাকা৷ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে মোতায়েন বাড়তি পুলিশ৷ সবটা সরেজমিনে খতিয়ে দেখার জন্য দিল্লি থেকে সংসদীয় দলকে ভাটপাড়া পাঠানো হয়েছে৷

[আরও পড়ুন:এক হাতে বাইক চালিয়ে সংসার বাঁচানোর লড়াই, ভাইরাল যুবকের জীবনযুদ্ধের ছবি]

এসবের মাঝেই শনিবার বিকেলে নতুন করে রাজনৈতিক সংঘর্ষ ছড়ায় বাঁকুড়ার পাত্রসায়রে৷ তৃণমূলের মিছিলে ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান তোলায় শুরু হয় মারধর৷ চলে গুলি৷ এক কিশোর-সহ তিনজন আহত হয়ে হাসপাতালে ভরতি৷ ধারাবাহিক এই অশান্তির ঘটনা নবান্নের চিন্তা বাড়িয়েছে৷ এই পরিস্থিতিতে রাজনৈতিক হিংসার ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলির পাশে দাঁড়ানোর এই সিদ্ধান্ত নিঃসন্দেহে তাৎপর্যপূর্ণ৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং