৫ আশ্বিন  ১৪২৬  সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: ‘‘মুখ্যমন্ত্রীর একুশে জুলাইয়ের ভাষণ হতাশায় ভরা৷ জনসভা ভরাতে পারেননি৷ বিজেপিকে দুষছেন৷’’ শাসকদলের শহিদ দিবসের জনসভাকে ঠিক এ ভাবেই সমালোচনায় বিদ্ধ করলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ৷ কটাক্ষের সুরে বললেন, তৃণমূলের ২১ জুলাই আসলে বিশ্ব ‘ডিম্ভাত’ দিবস৷ ওয়ান থার্ড, ওয়ান ফোর্থ লোকও হয়নি৷ তৃণমূলের পাঁজর ভেঙে গিয়েছে৷

[ আরও পড়ুন:সংক্রমণের অসুখে মানসিক রোগের চিকিৎসা! বিচারের আশায় রাজ্যপালের দ্বারস্থ বৃদ্ধার পরিবার]

এদিন রাজ্য বিজেপি দপ্তরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে রাজ্য বিজেপি সভাপতি জানান, ‘‘এবার একটা নতুন জিনিস হয়েছে৷ অন্য সময় বিরোধীরা বলত শাসকদল সভায় যেতে বাধা দিচ্ছে৷ তবে এবার মুখ্যমন্ত্রীকে বলতে শুনলাম, বিজেপি নাকি তৃণমূলের বাস আটকেছে৷ ফলে বোঝাই যাচ্ছে বিজেপি আর আগের জায়গায় নেই৷ উনি আমাদের বললে এবার আমরা ওনার সভায় কিছু লোক পাঠাতে পারব৷ তবে বিজেপির কেউ এর সঙ্গে যুক্ত নয়৷ নিজেদের অসফলতা চাপা দিতেই তৃণমূল বিজেপির ঘাড়ে দোষ চাপাচ্ছে৷’’ এখানেই শেষ নয়, এদিনের সভামঞ্চ থেকে নাম না করে শিক্ষকদের যে চাপা হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, তারও জবাব দেন মেদিনীপুরের সাংসদ৷ সাফ বলেন, ‘‘মুখ্যমন্ত্রী শিক্ষকদের কতটা সম্মান করেন, তা ওনার বক্তব্য থেকে বোঝা যায়৷ ডিএ চাওয়ায় উনি শিক্ষকদের বলেছিলেন, ঘেউ ঘেউ করলে ডিএ পাওয়া যায় না৷’’

ইভিএমের বদলে, ব্যালটে ভোট চেয়ে শাসকদলের এবারের একুশে জুলাইয়ের জনসভার ঘোর বিরোধিতা করেন দিলীপ ঘোষ৷ জানান, বিজেপি ব্যালট এবং ইভিএম, কিছুরই পক্ষে বা বিপক্ষে নয়৷ নির্বাচন কমিশন যা বলবে তাই হবে৷ উনি ইভিএমে জিতে এসেছেন৷ অথচ পঞ্চায়েতে ব্যালটে ভোটের সময় নমিনেশন দিতে দেয়নি৷ এখন মানুষ ওনার থেকে সরে গিয়েছে৷ ব্যালটে নির্বাচন হয়েছিল বলেই চুরি হয়েছে৷ গণনার দিনেও ভোট লুট হয়েছে৷ রবিবারের শহিদ দিবসের সভায় বিজেপিকে কাটমানির পালটা আক্রমণ শানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী৷ উজ্জ্বলা যোজনার নামে ব্ল্যাকমানি তুলছে বিজেপি, এমনই বলে অভিযোগ করেন তিনি৷ এ বিষয়ে আন্দোলনেরও ডাক দেন৷ তবে মুখ্যমন্ত্রীর এই অভিযোগকেও উড়িয়ে দেন দিলীপ ঘোষ৷ কটাক্ষের সুরে জানান, ‘‘তৃণমূল আজকে আর আন্দোলনে যাওয়ার মতো জায়গায় নেই৷ উনি আমাদের বিরুদ্ধে আন্দোলনে যাক, কোনও ভয় নেই৷ কালো টাকাই হোক বা কাটমানি যে নিয়েছে তাঁকে ফেরত দিতে হবে৷’’

[ আরও পড়ুন: ‘চিড়িয়াখানা আড়াইটের পর খুলবে’! শহিদ দিবসের সমাবেশে নজিরবিহীন ঘোষণা তৃণমূলের ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং