২৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বুধবার ১১ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজীব কুমার বনাম সিবিআই মামলায় নয়া মোড়। আগামী বুধবার, ১৭ জুলাই থেকে শুরু হচ্ছে এই মামলার শুনানি। নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত রোজ দুপুর ২টো থেকে শুনানি চলবে। সোমবার এমনটাই নির্দেশ দিল কলকাতা হাই কোর্ট। 

[আরও পড়ুন: সারদা মামলায় ফের স্বস্তি রাজীব কুমারের, গ্রেপ্তারিতে স্থগিতাদেশের মেয়াদ বাড়াল হাই কোর্ট]

এই মামলায় শুনানির জন্য সোমবার বিচারপতির দৃষ্টি আকর্ষণ করেন কলকাতার প্রাক্তন নগরপাল রাজীব কুমারের আইনজীবী। উল্লেখ্য, সিবিআইয়ের নোটিস খারিজের আবেদন জানিয়ে হাই কোর্টে আবেদন জানিয়েছিলেন রাজীব কুমার। সারদাকাণ্ডে রাজীবকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সিজিও কমপ্লেক্সে হাজিরা দিতে নোটিস পাঠায় সিবিআই। এদিকে, আগামী ২২ জুলাই পর্যন্ত কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনারকে গ্রেপ্তার করা যাবে না বলে আগেই নির্দেশ দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট। সারদাকাণ্ডে প্রমাণ লোপাটের অভিযোগে রাজীব কুমারকে হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চায় সিবিআই। এ নিয়ে বিস্তর টানাপোড়েন চলে। শেষমেশ জুন মাসে সিজিও কমপ্লেক্সে সিবিআইয়ের দপ্তরে হাজিরা দেন রাজীব কুমার। সেদিন প্রায় ৪ ঘণ্টা ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় তাঁকে।

একসময়ে সারদা মামলার তদন্তে তাঁর নেতৃত্বেই বিশেষ তদন্তকারী দল বা সিট গঠন করেছিল রাজ্য সরকার। কিন্তু সিবিআই তদন্তভার নেওয়ার পর কলকাতা প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের ভূমিকা নিয়েই প্রশ্ন উঠেছে। সিট যখন তদন্ত করছিল, বিশেষ তদন্তকারী দলের প্রধানের কী ভূমিকা ছিল, সারদা কর্তা সুদীপ্ত সেন ও দেবযানী মুখোপাধ্যায়কে গ্রেপ্তার করে কী কী নথি উদ্ধার হয়েছিল, তা জানতে চান কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার আধিকারিকরা। এদিকে, সারদা কেলেঙ্কারিতে এদিন ছয় অভিযুক্তকে নোটিস পাঠিয়েছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। সারদার গ্রুপের মিডিয়া উইংয়ের প্রধান কুণাল ঘোষ, ব্যবসায়ী সজ্জন আগরওয়াল,সন্ধির আগরওয়াল, দেবব্রত সরকার, অরিন্দম দাস, শতাব্দী রায়কে সমন পাঠিয়েছে তদন্তকারী সংস্থাটি। এই সপ্তাহের মধ্যেই তাঁদের হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে ইডি৷     

[আরও পড়ুন: খুলবে ‘লাল ডায়েরির’ জট? অবশেষে সিবিআই দপ্তরে রাজীব কুমার]        

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং