BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘করোনা রুখতে সর্বশক্তি দিয়ে লড়ছি, কেন্দ্রের রাজনীতি কাম্য নয়’, মোদিকে বার্তা মমতার

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: May 11, 2020 5:44 pm|    Updated: May 11, 2020 6:09 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হাজার প্রতিকূলতা নিয়েও করোনা (Coronavirus) সংক্রমণ রুখতে সর্বশক্তি দিয়ে লড়ছে বাংলা। দেশের মধ্যে পশ্চিমবঙ্গের ভূমিকাই সবচেয়ে ভাল। এই পরিস্থিতিতে কেন্দ্রের তরফে কোনওরকম রাজনীতি কাম্য নয়। আজ, মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর পঞ্চম ভিডিও কনফারেন্সে এই বার্তাই স্পষ্ট করে দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।

চলতি সপ্তাহের শেষদিনই তৃতীয় দফা লকডাউনের মেয়াদ শেষ। বাড়তে থাকা করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ মোকাবিলায় এরপর কোন পথে হাঁটবে দেশ, লকডাউনের মেয়াদ আরও বাড়ানো হবে কিনা, কোন রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি কেমন – সেসব বিস্তারিত জানতেই আজ মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে বৈঠক করেছেন প্রধানমন্ত্রী। সঙ্গে ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, অর্থমন্ত্রী, স্বাস্থ্যমন্ত্রী। ভিডিও কনফারেন্সে অন্যান্য রাজ্যের পাশাপাশি বাংলার কথাও জানতে চান নরেন্দ্র মোদি। তাতেই মুখ্যমন্ত্রী তাঁকে জবাব দেন – “রাজ্য হিসেবে করোনা রুখতে আমরা সবচেয়ে বেশি চেষ্টা করছি। আমাদের চারপাশে বেশ কয়েকটা সীমান্ত রয়েছে, অন্যান্য বড় বড় দেশও রয়েছে। তা সত্বেও চেষ্টা করে চলেছি সংক্রমণ যাতে না ছড়ায়। এই সংকটকালে কেন্দ্রেরও কোনও রাজনীতি করা উচিত নয়। সব রাজ্যকেই সমানভাবে গুরুত্ব দিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করাটাই কাম্য।”

[আরও পড়ুন: হু হু করে বাড়ছে সংক্রমণ! কলকাতায় একধাক্কায় বাড়ল ১২টি কনটেনমেন্ট জোন]

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে মারণ ভাইরাসের দাপট বাড়ছে। বাংলাও তার ব্যতিক্রম হচ্ছে না। এ রাজ্য যেভাবে তার মোকাবিলা করছে, তা নিয়ে কেন্দ্রের হাজারও অভিযোগ ছিল। এখানে পর্যাপ্ত পরীক্ষা হচ্ছে না, চিকিৎসা ব্যবস্থা যথাযথ নেই – এসব নানা অভিযোগে সরব হয়ে একাধিকবার কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল পাঠানো হয়েছে। পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরানো নিয়েও রাজ্যের ভূমিকায় অসন্তুষ্ট হয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ চিঠি পাঠিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রীকে। গোটা দেশ বিপদগ্রস্ত, তা সুযোগ নিয়ে কেন্দ্রের ক্ষমতাসীন দল রাজনীতি করছে বলে পালটা অভিযোগ তুলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। 

[আরও পড়ুন: সংক্রমণ রুখতে তিন জেলায় বিশেষ নজরদারি দল গঠন স্বাস্থ্য দপ্তরের]

সেসব পেরিয়ে আজ মুখ্যমন্ত্রীই সরাসরি করোনা পরিস্থিতিতে রাজ্য প্রশাসনের ভূমিকার কথা জানিয়ে দিলেন প্রধানমন্ত্রীকে। বুঝিয়ে দিলেন, রাজ্যের গা-ছাড়া মনোভাব নিয়ে যেসব অভিযোগ তুলে আলোচনায় মশগুল দিল্লির অন্দরমহল, তা একেবারেই ভিত্তিহীন। বরং বাংলাকে লড়তে হচ্ছে অনেক বেশি প্রতিকূলতা নিয়ে।  

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement