২৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  রবিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  রবিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

মণিশংকর চৌধুরি এবং সৌপ্তিক বন্দ্যোপাধ্যায়:  বিজেপির পুরসভা অভিযান ঘিরে ধুন্ধুমার চাঁদনি চকে। ব্যারিকেড ভাঙার চেষ্টা করে বিজেপি। পুলিশকে লক্ষ্য করে বোতলও ছোঁড়ে মিছিলকারীরা। পরিস্থিতি সামাল দিতে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। পালটা পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তিতে জড়িয়ে পড়ে বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। বিক্ষোভকারীদের রুখতে বাধ্য হয়ে জলকামান ব্যবহার করে পুলিশ। এই ঘটনায় বেশ কয়েকজন বিক্ষোভকারী জখম হয়েছেন। আটক করা হয়েছে বিজেপির তারকা নেত্রী রিমঝিম মিত্র-সহ বেশ কয়েকজনকে। 

ক্রমশই কলকাতায় ভয়াবহ আকার নিচ্ছে ডেঙ্গু। ইতিমধ্যেই প্রাণহানিও হয়েছে বহু মানুষের। এই পরিস্থিতি ডেঙ্গু মুক্ত কলকাতার দাবি নিয়ে রাজপথে বিজেপি। এছাড়াও জলকরমুক্ত কলকাতা, জমির মিউটেশন কমানো, অবৈধ পার্কিং ও জঞ্জালমুক্ত কলকাতা-সহ প্রায় দশ দফা দাবি রয়েছে তাদের। এমনই দশ দফা দাবি নিয়ে কলকাতা পুরসভা অভিযানের সিদ্ধান্ত নেয় গেরুয়া শিবির।

BJP Michil

নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী বুধবার সকালে বিজেপির রাজ্য দপ্তরের সামনে ভিড় জমান বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। মিছিলে নেতৃত্ব দেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এছাড়াও রয়েছেন রাজু বন্দ্যোপাধ্যায়, সৌরভ শিকদার, দেবজিৎ সরকারের মতো নেতারা।

Dilip Ghosh

মিছিলের শুরুতেই দিলীপ ঘোষ বলেন, “পুরসভাকে দুর্নীতিমুক্ত করাই আমাদের লক্ষ্য।” এরপর সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউতে জমায়েত হন তাঁরা। মশারি, মশার বিভিন্ন মডেল নিয়ে মিছিল চাঁদনির দিকে আসে।

BJP Michil

[আরও পড়ুন: ফের রাতের কলকাতায় গণধর্ষণের শিকার মহিলা, শুরু তদন্ত]

এদিকে, মিছিল আটকাতে সকাল থেকেই প্রস্তুত কলকাতা পুলিশ। চাঁদনি চকের ই মলের সামনে ব্যারিকেড করে দেওয়া হয়। মোতায়েন করা হয় অতিরিক্ত পুলিশেরও। ব্যবস্থা করা হয় জলকামানেরও। তবে সেই ব্যবস্থা সত্ত্বেও বুধবার দুপুরে ব্যারিকেড ভাঙার চেষ্টা করে বিজেপি। ব্যারিকেডের ওপ্রান্তে জড়ো হওয়া পুলিশকর্মীদের লক্ষ্য করে বোতল ছোঁড়া হয়। বাধা দেয় পুলিশ। তার জেরেই রীতিমতো অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি তৈরি হয় চাঁদনি চকে। উন্মত্ত বিক্ষোভকারীদের বাধা দিতে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। ব্যবহার করা হয় জলকামানও। বেশ কিছুক্ষণ পর আবারও বিজেপির মহিলা মোর্চার নেত্রীরা রাস্তায় বসে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। পরিস্থিতি সামাল দিতে বিজেপির তারকা নেত্রী রিমঝিম মিত্র-সহ বেশ কয়েকজনকে আটক করা হয়। আটক হওয়ার পর পুলিশের ভূমিকা নিয়ে ক্ষোভ উগরে দেন রিমঝিম। অভিনেত্রী বলেন, “কলকাতা পুরসভায় যেতে যখন দেওয়াই হবে না, তখন মিছিলের অনুমতি দেওয়া হল কেন?”

দেখুন ভিডিও:

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং