BREAKING NEWS

১৭ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শনিবার ৪ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

করোনা কালে বড়দিনের পার্ক স্ট্রিটে কড়া নজর কলকাতা পুলিশের, বসছে ১০টি ওয়াচ টাওয়ার

Published by: Suparna Majumder |    Posted: December 23, 2020 12:06 pm|    Updated: December 23, 2020 12:06 pm

Christmas 2020: Kolkata Police to take extra care of Park Street in COVID-19 situation | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এই শহরের বড়দিন (Christmas 2020) মানেই চোখ ধাঁধানো পার্ক স্ট্রিট (Park Street)। সাহেবি পাড়ার আনন্দে মশগুল হয়ে যাওয়া। বছর শেষের আনন্দের জোয়ারে ভেসে যাওয়া। কিন্তু অন্যান্যবারের এই চেনা চিত্রটা এবার পার্ক স্ট্রিটে কতটা দেখা যাবে, তা নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে। কারণ ভিলেন করোনা ভাইরাস (CoronaVirus)। তাই এবারে নিরাপত্তা উৎসবের থেকে বেশি প্রয়োজনীয়।

বড়দিনে এবার পার্ক স্ট্রিটে নিরাপত্তার জন্য তৈরি থাকছে প্রায় ১২০০ কলকাতা পুলিশের (Kolkata Police) কর্মী। ১০টি ওয়াচ টাওয়ার থেকে রাখা হবে নজরদারি। প্রথমে ক্রিসমাস ইভ, তারপর বড়দিন। বছর শেষে বাঙালির প্রিয় উৎসব। কোভিড (COVID-19) পরিস্থিতিতে শীতের এই উৎসবে মেতে উঠবে শহরবাসী। সেই কারণে এই বছর পার্ক স্ট্রিট সংলগ্ন এলাকায় রাখা হচ্ছে বিশেষ পুলিশি ব্যবস্থা।

[আরও পড়ুন: বুধবার নোয়াপাড়া থেকে দক্ষিণেশ্বরে শুরু মেট্রোর ট্রায়াল রান, কবে থেকে উঠতে পারবেন যাত্রীরা?]

পুলিশের সূত্র জানিয়েছে, এই বছর করোনা পরিস্থিতিতে পার্ক স্ট্রিটের রাস্তায় খাবারের দোকানে বসবে না। তাই পুলিশের বিশেষ নজর থাকছে রাস্তার উপর। ভিড় পানশালার বাইরে না জমে, সেই বিষয়ে নজর রাখতে বলা হয়েছে পুলিশ আধিকারিকদের। রেস্তরাঁ ও পানশালার ভিতর যাতে করোনা বিধি কড়াভাবে মানা হয়, পুলিশের পক্ষ থেকে তা ইতিমধ্যেই জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। পুলিশের ধারণা, এই বছর তুলনামূলকভাবে পার্ক স্ট্রিট ও শেক্সপিয়র সরণি এলাকায় কম সংখ্যক মানুষ আসতে পারেন। তবুও যাতে রাস্তায় ভিড় না হয়, সেই বিষয় সতর্ক থাকবেন পুলিশ কর্মীরা। বার বার ওই অঞ্চলে মাইক নিয়ে পুলিশ প্রচার করবে পুলিশ। যাতে পারস্পরিক দূরত্ব মেনে চলা হয়। প্রত্যেকের মুখেও যাতে মাস্ক থাকে, সেই ব্যাপারে পুলিশ গুরুত্ব দেবে।

নিরাপত্তার জন্য পার্ক স্ট্রিট ও তার সংলগ্ন এলাকায় দশটি ওয়াচ টাওয়ার তৈরির কাজ শেষ পর্যায়ে। সেখান থেকে বাইনোকুলারে নজর রাখা হবে। ক্রিসমাস ইভ থেকেই পুরো পার্ক স্ট্রিট অঞ্চলকে পাঁচটি সেক্টরে ভাগ করা হয়েছে। প্রত্যেকটি সেক্টরের দায়িত্বে থাকবেন একজন করে ডিসি পদমর্যাদার পুলিশকর্তা। থাকছেন একজন যুগ্ম পুলিশ কমিশনার পদমর্যাদার অফিসার।

[আরও পড়ুন: ‘ট্যাবের টাকাতেও দুর্নীতি হবে, কাটমানি যাবে নির্বাচনী ফান্ডে’, তোপ দিলীপ ঘোষের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে