BREAKING NEWS

১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  বুধবার ৫ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘পরীক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ নষ্ট করার অধিকার কে দিয়েছে?’, NEET-JEE ইস্যুতে কেন্দ্রকে তোপ মমতার

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: September 2, 2020 5:03 pm|    Updated: September 2, 2020 5:09 pm

CM Mamata Banerjee attcks Central govt over NEET-JEE issue

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পূর্বসূচি মেনে ১ সেপ্টেম্বরই শুরু হয়েছে JEE Main। তবে বর্তমান পরিস্থিতিতে পরীক্ষাকেন্দ্রে পৌঁছতে বেশ সমস্যায় পড়তে হয়েছে পরীক্ষার্থীদের। সেই কারণেই ফের মুখ্যমন্ত্রীর নিশানায় কেন্দ্র। বুধবার নবান্ন থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বললেন, “কেন্দ্রের জেদের কারণেই সমস্যায় পড়েছে পরীক্ষার্থীরা।”

নবান্ন থেকে NEET-JEE ইস্যুতে আলোচনা করতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) বলেন, “আমি সংবাদমাধ্যমে দেখেছি বহু পরীক্ষার্থী পরীক্ষাকেন্দ্রে পৌঁছতে পারেনি। কারণ, বর্তমান সময়ে গণপরিবহন ব্যবস্থা আগের মতো নেই। ফলে সমস্যায় পড়তে হয়েছে কম বেশি সকলকে। বাধা পেরিয়ে কিছু সংখ্যক পরীক্ষার্থী পরীক্ষা দিয়েছে, কিন্তু সকলের পক্ষে তা সম্ভব হয়নি। ফলে তাঁদের বছর নষ্ট হল।” এরপরই কেন্দ্রকে তোপ দেগে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “এত জেদ, এত অহং কেন? পরীক্ষীর্থীরা তো বলেনি পরীক্ষা বাতিল করতে। তাঁরা আবেদন করেছিল পরীক্ষা পিছিয়ে দেওয়ার। কারণ, বর্তমান পরিস্থিতিতে পরীক্ষাকেন্দ্রে পৌঁছনো যেমন সমস্যার। তেমনই থেকে যাচ্ছে সংক্রমণের ঝুঁকিও। কিন্তু কেন্দ্র তা মানল না।” এরপরই প্রশ্নের সুরে প্রধানমন্ত্রীকে ইঙ্গিত করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “কে আপনাকে অধিকার দিয়েছে ছাত্র-ছাত্রীদের বিপাকে ফেলার, ওদের ভবিষ্যত নষ্ট করার?”

[আরও পড়ুন: নির্মীয়মাণ বহুতলের পাঁচিলের পাশে মিলল তরুণীর দেহ, ধর্ষণ করে খুন? রহস্যভেদের চেষ্টায় পুলিশ]

প্রসঙ্গত, NEET-JEE কবে হবে তা নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই টানাপোড়েন চলছিল। লকডাউনের মাঝে একাধিকবার পরীক্ষার দিন পরিবর্তন করার পর স্থির হয় যে, ১ থেকে ৬ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হবে JEE Main। ১৩ সেপ্টেম্বর হবে NEET। কিন্তু বাংলা-সহ বেশ কয়েকটি রাজ্য কেন্দ্রের কাছে পরীক্ষা পিছনোর আরজি জানিয়েছিল। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রীকে একাধিকবার চিঠিও দিয়েছিলেন। কিন্তু তাতেও লাভ হয়নি। পরবর্তীতে ৬ টি রাজ্য পরীক্ষা পিছনোর দাবিতে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থও করেছিলেন। কারণ, বর্তমান পরিস্থিতিতে পরীক্ষা দিতে যাওয়া পড়ুয়াদের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ বলেই মনে করা করেছিল তাঁরা।

[আরও পড়ুন: কেন তৈরি হচ্ছে না করোনার অ্যান্টিবডি? হদিশ মিলল ১১ জন মৃতের অটোপসি রিপোর্টে]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে