BREAKING NEWS

০৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শুক্রবার ২০ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

রাজ্য মন্ত্রিসভায় বড়সড় রদবদল, অর্থমন্ত্রী হচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই

Published by: Paramita Paul |    Posted: November 9, 2021 3:48 pm|    Updated: November 9, 2021 5:10 pm

CM Mamata Banerjee becomes Finance Minister of West Bengal | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ব্যুরো: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (MamataBanerjee) মন্ত্রিসভায় বড়সড় রদবদল। তবে মন্ত্রিসভায় এখনই কোনও নতুন মুখ আসছে না। বদলে পুরনো মন্ত্রীদের হাতেই দেওয়া হল অতিরিক্ত দায়িত্ব।

এদিন রদবদলের পর রাজ্যের নতুন অর্থমন্ত্রী (Finance Minister) হলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অর্থদপ্তরের প্রতিমন্ত্রী হলেন চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। পুর ও নগরোন্নয়ন দপ্তরের পূর্ণ মন্ত্রিত্ব, স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বের পাশাপাশি এই অতিরিক্ত দায়িত্ব সামলাবেন তিনি। বর্তমান অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র হচ্ছেন রাজ্যের অর্থ বিষয়ক মুখ্য উপদেষ্টা। এটি নতুন পদ। পূর্ণমন্ত্রীর পদমর্যাদা পাবেন তিনি। মঙ্গলবার রাজ্য সরকারের তরফে এমনই ঘোষণা করা হয়েছে। এদিন রদবদলের পর স্বাস্থ্য, অর্থ, স্বরাষ্ট্র, উত্তরবঙ্গ উন্নয়নের মতো একাধিক গুরুত্বপূর্ণ দপ্তর রইল মুখ্যমন্ত্রীর হাতে। যা অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ।

[আরও পড়ুন: শুধু হাওড়া-কলকাতায় ভোট কেন? পুর নির্বাচন নিয়ে হাই কোর্টে জনস্বার্থ মামলা বিজেপির]

এক ঝলকে দেখে নিন রাজ্য মন্ত্রিসভার রদবদল

  • অর্থমন্ত্রী: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
  • অর্থ প্রতিমন্ত্রী: চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য
  • পঞ্চায়েত মন্ত্রী: পুলক রায়
  • পঞ্চায়েত প্রতিমন্ত্রী:  বেচারাম মান্না
  • ক্রেতা সুরক্ষা: মানস ভুঁইঞা
  • শিল্প পুনর্গঠন: পার্থ চট্টোপাধ্যায়

সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের হাতে থাকা পঞ্চায়েত দপ্তরের দায়িত্ব পেলেন পুলক রায়। এতদিন তিনি জনস্বাস্থ্য কারিগরি দপ্তরের দায়িত্ব সামলেছেন। এবার তাঁকে অতিরিক্ত দায়িত্ব দেওয়া হল। আর এই দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী হলেন বেচারাম মান্না। ইতিপূর্বে  তিনি মন্ত্রী ছিলেন না। রদবদলে নতুন দায়িত্ব পেলেন তিনি। 

[আরও পড়ুন: সিঙ্গুরের মতো নয়, বড়সড় ক্ষতিপূরণ দিয়েই দেউচা-পাচামিতে শিল্প, বিধানসভায় ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর]

দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ সাধন পাণ্ডে। তাই তাঁর ক্রেতা সুরক্ষার দপ্তরের দায়িত্ব সামলাচ্ছিলেন সুব্রত মুখোপাধ্যায়। তাঁর মৃত্যুর পর সেই দপ্তরটিও ফাঁকা হয়েছিল। এবার সেই দপ্তরের দায়িত্ব পেলেন  মানস ভুঁইঞা। জলসম্পদ দপ্তরের পাশাপাশি অতিরিক্ত দায়িত্ব পেলেন তিনি। 

অমিত মিত্রের হাতে ছিল শিল্প পুনর্গঠন দপ্তরও। এবার শিল্প ও বাণিজ্যর পাশাপাশি এই দায়িত্বও সামলাবেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী হচ্ছেন বেচারাম মান্না। স্বনির্ভর গোষ্ঠী উন্নয়ন দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী হচ্ছেন শশী পাঁজা। মন্ত্রিসভার পরবর্তী বৈঠক ২৯ নভেম্বর। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে