BREAKING NEWS

২১ আষাঢ়  ১৪২৭  সোমবার ৬ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

রাস্তায় বেসরকারি বাস না নামালেই নেওয়া হবে আইনি ব্যবস্থা, হুঁশিয়ারি মুখ্যমন্ত্রীর

Published by: Sayani Sen |    Posted: June 30, 2020 5:19 pm|    Updated: June 30, 2020 5:27 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাস্তায় বেসরকারি বাস নামানো নিয়ে টালবাহানায় এবার আরও কড়া রাজ্য সরকার। বুধবার থেকে রাস্তায় বেসরকারি বাস না নামালে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। তিনি জানান, প্রয়োজনে বেসরকারি বাস নিয়ে নেবে সরকার। চালক দিয়ে সেই বাসই চালানো হবে। যদিও বেসরকারি বাসের চালক বাস চালাতে চান, তবে তাঁদের বেতন দেওয়া হবে। আর না চালাতে চাইলে অন্য চালক নিয়োগ করা হবে।  

লকডাউনে চলেনি বাস। তার ফলে বিপুল অঙ্কের ক্ষতির মুখোমুখি বেসরকারি বাসমালিক সংগঠনগুলি। আনলক ওয়ানের প্রথমদিকে কিছু সংখ্যক রুটে সামান্য বাস চলছিল। যদিও অফিসমুখী সাধারণ মানুষের কথা মাথায় রেখে যত আসন, তত যাত্রী নীতিতে রাস্তায় বেসরকারি বাস নামানোর নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে বাসমালিক সংগঠনের একাংশের দাবি, বাড়াতে হবে বাসভাড়া। কারণ যত আসন, তত যাত্রী নীতিতে বাস চালিয়ে লাভের মুখ তো দূর, বাস চালানোর খরচও ওঠা সম্ভব নয়। আর লাভ না হওয়ায় বারবারই বাস রাস্তায় না নামানোর হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বেসরকারি বাসমালিকরা। এই সমস্যা মেটাতে দফায় দফায় বৈঠক হয়েছে। তবে লাভ হয়নি কিছুই। কারণ বাস ভাড়া বাড়ানোর পক্ষে যতবার মালিক সংগঠনের সদস্যরা সওয়াল করেছেন, ততবারই প্রস্তাব নাকচ করেছে রাজ্য।

[আরও পড়ুন: জরুরি পরিষেবার সঙ্গে যুক্তদের জন্য চালু হোক মেট্রো, রেলকে আরজি রাজ্যের]

সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দেন, এই মুহূর্তে বাস ভাড়া বাড়ানো সম্ভব নয়। পরিবর্তে আপাতত ১৫ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে বেসরকারি বাসমালিকদের। তবে এই প্রস্তাব নাপসন্দ বাসমালিকদের একাংশের। ভাড়া না বাড়ালে রাস্তায় বাস নামাবেন না বলেই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাঁরা। সোমবার এবং মঙ্গলবার পরপর দু’দিন বাসমালিকদের সঙ্গে পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর বৈঠকে বসার কথা ছিল। তবে সেই বৈঠকও বাতিল হয়ে যায়। আজ, মঙ্গলবারও রাস্তায় নামেনি অধিকাংশ বেসরকারি বাস। সাধারণ মানুষের কথা ভেবেই এবার বেসরকারি বাসমালিকদের উদ্দেশে কঠোর সিদ্ধান্তের কথা জানান তিনি। ১ জুলাই বেসরকারি বাসমালিকদের গতিবিধি দেখা হবে। আগামী ৩ জুলাইয়ের মধ্যে রাজ্য সরকার পরবর্তী সিদ্ধান্ত জানাবে।   

[আরও পড়ুন: এবার করোনার থাবা নাইসেডে, আক্রান্ত অধিকর্তা শান্তা দত্ত]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement