BREAKING NEWS

১৪ মাঘ  ১৪২৯  রবিবার ২৯ জানুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

জোট নিয়ে নয়া কৌশল কংগ্রেসের, ‘শক্তিহীন’ পাঁচটি আসন ছাড়া হল বামেদের জন্য

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: March 20, 2019 5:29 pm|    Updated: April 17, 2019 5:26 pm

Congress keeps 5 Lok Sabha seats for LF in West Bengal

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজ্যে জোট নিয়ে বাম কংগ্রসের মান-অভিমান চলছেই। কোনওভাবেই জোট ভাঙার দায় নিজেদের ঘাড়ে নিতে চাইছে না বাম বা কংগ্রেস। মঙ্গলবার কংগ্রেসের জেতা চার আসনে প্রার্থী না দিয়ে সৌজন্য দেখিয়েছিল বামেরা। এবার তাঁর পালটা সৌজন্যের পথে হাঁটল কংগ্রেসও। কংগ্রেসের তরফে জানানো হল, বামেদের জন্য পূর্ণাঙ্গ জোটের রাস্তা খোলা রয়েছে। আরও আলোচনার প্রয়োজন আছে। সৌজন্যের খাতিরে পাঁচটি আসনে এখনই প্রার্থী দিচ্ছে না কংগ্রেস।

[নির্বাচনী বিধিভঙ্গের অভিযোগে বাবুল সুপ্রিয়কে শোকজ কমিশনের]

এদিন সাংবাদিক সম্মেলনে কংগ্রেসের তরফে জানানো হয়েছে, বামেদের জন্য বোলপুর, বিষ্ণুপুর, তমলুক, ডায়মন্ড হারবার এবং আসানসোল এই পাঁচটি আসনে কংগ্রেস প্রার্থী দেবে না। কংগ্রেস নেতা প্রদীপ ভট্টাচার্য জানান, তাঁরা বামেদের সঙ্গে পূর্ণাঙ্গ জোট চেয়েছিলেন। শুধুমাত্র আসন সমঝোতা নয়। পূর্ণাঙ্গ এবং দীর্ঘস্থায়ী জোটের রাস্তা এখনও খোলা আছে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন কংগ্রেস সাংসদ। তবে, তাঁর বক্তব্য একতরফা প্রার্থী ঘোষণা করে আসন সমঝোতার আলোচনায় জল ঢেলে দিয়েছে বামেরাই। তাঁর অভিযোগ, কংগ্রেসের সম্ভাবনাময় আসনগুলিতেও প্রার্থী দিয়েছে সিপিএম। প্রদীপবাবুর প্রশ্ন, “তৃণমূল-বিজেপিকে হারাতে সার্বিক জোটের প্রয়োজন ছিল, তাতে রাজি না হয়ে কংগ্রেস যেখানে বেশি ভোট পেয়েছে সেখানে কেন প্রার্থী দিল বামেরা?” তিনি আরও জানিয়েছেন, কংগ্রেস বামেদের উত্তরের অপেক্ষায় আছে, আলোচনার রাস্তা এখনও খোলা। তাদের প্রত্যাশা, বামেরা এখনই কংগ্রেসের জেতা চার আসনে প্রার্থী ঘোষণা করবে না।

[‘সুদিনের লক্ষ্যে দেশে পরিবর্তন দরকার’, মাড়োয়ারি সমাজের অনুষ্ঠানে বার্তা মমতার]

তাৎপর্যপূর্ণভাবে বামেদের জন্য যে পাঁচটি আসন কংগ্রেস ছেড়েছে। এই পাঁচ আসনের চারটিতেই ২০১৪ লোকসভায় কংগ্রেস ভোট পেয়েছিল নগণ্য। একমাত্র ডায়মন্ড হারবারে কিছুটা শক্তি আছে কংগ্রেসের। তাছাড়া, বামেদের জেতা দুই আসনে ইতিমধ্যেই তেড়েফুঁড়ে প্রচার শুরু করেছে কংগ্রেস। তাই, হাত শিবিরের এই ‘অফার’ বামেদের আদৌ পছন্দ হবে কিনা সংশয় থাকছেই। তবে, এখনই যে রাজ্যে জোটের রাস্তা পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায়নি তার ইঙ্গিত মিলল প্রদীপ ভট্টাচার্যের কথাতেই।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে