BREAKING NEWS

১৪ মাঘ  ১৪২৮  শুক্রবার ২৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

রবিবারই তৃণমূলে যোগ দিচ্ছেন প্রয়াত সোমেন মিত্রর স্ত্রী শিখা মিত্র, রোহনকে নিয়ে ধোঁয়াশা

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: August 28, 2021 6:57 pm|    Updated: August 28, 2021 8:44 pm

Congress leader Sikha Mitra set to join TMC on Sunday | Sangbad Pratidin

বুদ্ধদেব সেনগুপ্ত: অবস্থার কোনও পরিবর্তন না হলে রবিবারই তণমূলে যোগ দেবেন প্রাক্তন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি প্রয়াত সোমেন মিত্রর স্ত্রী শিখা মিত্র (Sikha Mitra)। এই নিয়ে দ্বিতীয়বারের জন্য তৃণমূলের সঙ্গে যুক্ত হতে চলেছেন সোমেন-জায়া। যদিও ‘ঘর ওয়াপসি’র তত্ত্ব মানতে নারাজ শিখা। তিনি কোনওদিন তৃণমূল ছাড়েননি বলে দাবি করেন। দক্ষিণ কলকাতার একটি হোটেলে সাংসদ মালা রায়ের হাত ধরে তৃণমূলে ফিরছেন বলে জানা গিয়েছে। তবে পুত্র রোহনের (Rohan Mitra) যোগ নিয়ে এখনও ধোঁয়াশা রয়েছে।

West Bengal Congress leader Somen Mitra's son Rohan Mitra leaves post sparking speculation
রোহন মিত্র

১৭ আগস্ট ছিল প্রয়াত সোমেন মিত্রর বাৎসরিক কাজ। সে দিনই ফোন করে শিখার সঙ্গে কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। পরদিনই তাঁর বাড়িতে গিয়ে তৃণমূলে যোগদানের প্রস্তাব দিয়ে আসেন দক্ষিণ কলকাতার তৃণমূল সাংসদ মালা রায়। ওই দিনই তৃণমূলে যোগদানের ব্যাপারে সম্মতি দেন শিখা। তৃণমূল শিবিরের প্রস্তাব পেয়ে শিখা জানিয়েছিলেন, তিনি তৃণমূল ছাড়ার পর আর কোনও রাজনৈতিক দলে যোগ দেননি। তাই তৃণমূলে ফের যোগ দিতেও তাঁর অসুবিধা নেই।

[আরও পড়ুন: ‘প্রতি বছর মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তরে কাজের সুযোগ পাবে পড়ুয়ারা’, TMCP প্রতিষ্ঠা দিবসে নতুন ঘোষণা মমতার]

গত বছর সোমেন অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভরতি হলে, ফোন করে তাঁর খোঁজ নিয়েছিলেন মমতা। সেই থেকেই সম্পর্কের বরফ গলা শুরু। পরে সোমেনের প্রয়াণের পর সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছিল রাজ্য সরকার। তাছাড়া, বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির টিকিটে শিখা চৌরঙ্গি কেন্দ্রে দাঁড়াতে অস্বীকার করায় খুশি হয়েছিল তৃণমূল (TMC) শিবির। তাই ক্ষমতায় এসে শিখাকে ফোন করে তাঁর সিদ্ধান্তের জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী স্বয়ং।

[আরও পড়ুন: ADR Report: আয়ের নিরিখে জাতীয় দলগুলির মধ্যে শীর্ষে BJP, ধারেকাছে নেই কংগ্রেস-সহ বাকিরা]

অন্যদিকে সোমেন পত্নী তৃণমূলে যোগ দিলেও পুত্র রোহন কী করেন সেদিকে নজর বিধানভবনের। শিখা মিত্র কংগ্রেসের সদস্য না হলেও রোহন এখনও কংগ্রেসের (Congress) সদস্য। এমনকী, কিছুদিন আগে পর্যন্ত প্রদেশ কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন তিনি। তার চেয়েও বড় ব্যাপার, শনিবারই ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবসের বেশ কয়েকটি অনুষ্ঠানে যোগ দেন সোমেনপুত্র। অনুষ্ঠানে ছিলেন কংগ্রেস নেতৃত্ব। তাই পরদিনই রোহন তৃণমূল শিবিরে নাম লেখাবেন না বলেই মনে করছে প্রদেশ নেতৃত্ব।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে