BREAKING NEWS

১ আষাঢ়  ১৪২৮  বুধবার ১৬ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

শহরের পাঁচ হাসপাতালে ‘অক্সিজেন অন হুইল’ বাস চালু করলেন মুখ্যমন্ত্রী

Published by: Sulaya Singha |    Posted: May 18, 2021 1:09 pm|    Updated: May 18, 2021 2:22 pm

Corona Crisis: WB CM Mamata Banerjee started oxygen on wheel service | Sangbad Pratidin

ফাইল ছবি

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হাসপাতালে ভরতি হওয়ার আগে যদি সময় লাগে, তখন করোনা আক্রান্ত রোগীকে যাতে অক্সিজেন দেওয়া যায়, তার জন্য বড়সড় পদক্ষেপ করল রাজ্য সরকার। চালু হল অক্সিজেন অন হুইল (Oxygen On Wheel) বাস পরিষেবা।

সোমবার নবান্ন সভাঘরে এক অনুষ্ঠান থেকে পাঁচটি হাসপাতালে এই পরিষেবার উদ্বোধন করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, নীলরতন সরকার, কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ, আর জি কর হাসপতাল, শম্ভুনাথ পণ্ডিত হাসপাতাল এবং চিত্তরঞ্জন হাসপাতালে এই অক্সিজেন অন হুইল বাস রাখা থাকবে। ২৪ ঘণ্টা দিবারাত্রি পরিষেবা পাবেন রোগীরা। এছাড়াও এই পাঁচটি হাসপাতালে অক্সিজেন যুক্ত ১০টি করে অ্যাম্বুল্যান্স দেওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন: নারদ মামলা: অসুস্থ চার নেতাই চাইতে পারেন জামিন, আটকাতে সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার ভাবনা CBI-এর]

নবান্ন সূত্রে খবর, রাজ্যে হাসপাতাল বা নার্সিংহোমগুলিতে অক্সিজেনের কোনও সংকট না থাকলেও স্বাস্থ্যদপ্তরের নজরে এসেছে, হাসপাতালে আসার পর ভরতি হওয়ার আগে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে কিছুটা সময় লাগে। এই সময়ে বহু রোগীরই অক্সিজেনের প্রয়োজন হয়। সেই ক্ষেত্রে এই অক্সিজেন অন হুইল বাসে রোগীকে অক্সিজেন দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে।

দিন কয়েক আগেই মানুষের অক্সিজেনের দাবি মেটাতে আসরে নেমেছিলেন বিধায়ক ও মন্ত্রীরা। কেউ উদ্যোগ নেন অক্সিজেন পার্লার খোলার, আবার কেউ হাসপাতালের শয্যার বিকল্প পথ সেফ হোম তৈরির পরিকল্পনা নিচ্ছেন। গত রবিবারই দক্ষিণ কলকাতার বড়িশার একটি ক্লাবকে অক্সিজেন পার্লারের চেহারা দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় বিধায়ক তথা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের (Partha Chatterjee) উদ্যোগে কাজটি হয়েছে। ভবানীপুরে একটি সেফ হোম তৈরির পরিকল্পনা আছে মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়ের। কিছুদিন আগেই অক্সিজেন পার্লার খুলেছেন আরেক মন্ত্রী সুজিত বসুও (Sujit Basu)। এবার রাজ্য সরকারের উদ্যোগে চালু হল অক্সিজেন অন হুইল বাস। রাজ্যে কোভিড (COVID-19) রোগীদের চিকিৎসায় অক্সিজেনের আর অভাব হবে না বলেই আশা করা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: রাজ্যপাল ধনকড়ের অপসারণ চেয়ে এবার রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখছেন মুখ্যমন্ত্রী]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement