১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মঙ্গলবার থেকে রাজ্যের বেসরকারি বাসের চালক-কনডাক্টরদের টিকাকরণ শুরু

Published by: Paramita Paul |    Posted: May 10, 2021 7:38 pm|    Updated: May 10, 2021 7:42 pm

COVID-19 vaccination for private transport workers kick starts from Tuesday in WB| Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী

নব্যেন্দু হাজরা এবং কলহার মুখোপাধ্যায়: পরিবহণ কর্মীদের (Transport Workers) কোভিড যোদ্ধা হিসাবে ঘোষণা করেছে রাজ্য। সেকথা মাথায় রেখেই করোনা থেকে বাঁচতে তাঁদের টিকা দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হচ্ছে। মঙ্গলবার থেকে কলকাতার তিনটি জায়গায় এই টিকাকরণ চলবে। সল্টলেক-হাওড়া, তারাতলা বাস ডিপো এবং কলকাতা পুরসভার টেন্টে এই টিকাকরণের কাজ শুরু হবে বলে জানা গিয়েছে। এক একটি ডিপোতে মোট ৩০০ জনকে টিকা (COVID-19 Vaccine) দেওয়া হবে।

পরিবহণ দপ্তর সূত্রে খবর, রাজ্যের নয়া পরিবহণমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম এই ভ্যাকসিন দেওয়ার অনুষ্ঠানে থাকতে পারেন। সোমবার দায়িত্ব নেওয়ার পর তিনি জানিয়েছেন, শুধু পরিবহণ কর্মী নয়, হকারদেরও এই টিকা দেওয়া হবে। যাঁরা খোলা জায়গায় কাজ করছেন। সাধারণ মানুষের সংস্পর্শে আসছেন, করোনা থেকে বাঁচতে তাঁদের এই টিকা দেওয়া শুরু হচ্ছে। পরিবহণ দপ্তরের যে সমস্ত বাস ডিপো রয়েছে সেখানে এই ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ চলবে।

[আরও পড়ুন: রাজ্যের মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১০ লক্ষ পার, একদিনে মৃত ১৩৪ জন]

পরিবহণ দপ্তরের তরফে প্রত্যেক বাস সংগঠনকে ড্রাইভার-কন্ডাক্টরদের একটি তালিকা তৈরি করতে বলা হয়েছে। সেখানে তাঁদের নাম লাইসেন্স নম্বর, জেলার নাম, আধার নম্বর-সহ যাবতীয় তথ্য লিখে প্রত্যেক আরটিওর কাছে জমা দিতে বলা হয়েছে। সেই তালিকা অনুযায়ী বেসরকারি পরিবহণ কর্মীদের টিকা দেওয়া শুরু হবে। প্ৰথমে কলকাতায় পরিবহণ কর্মীদের টিকাকরণ শুরু হলেও এরপর জেলাতেও এই কাজ হবে। ড্রাইভার এবং কন্ডাক্টররা ভ্যাকসিন পাবেন। বাস সংগঠনগুলিও রাজ্য সরকারের এই প্রয়াসকে সাধুবাদ জানিয়েছেন। জয়েন্ট কাউন্সিল অফ বাস সিন্ডিকেট, বেঙ্গল বাস সিন্ডিকেট, ওয়েস্টবেঙ্গল বাস মিনিবাস সমন্বয় সমিতি, ওয়েস্ট বেঙ্গল বাস মিনিবাস অনার্স অ্যাসোসিয়েশন সিটি সাবার্বান বাস সার্ভিস-সহ সবকটি বাস মালিক সংগঠনই নয়া পরিবহনমন্ত্রীকে স্বাগত জানিয়েছেন।

এদিকে নিউটাউনে আবাসন, অফিসে তৈরিতে নিযুক্ত শ্রমিকদের টিকাকরণের ভাবনাচিন্তা শুরু হয়েছে। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে প্রায় হাজার দুয়েকের মতো শ্রমিক নিউটাউনে সাময়িক বাসস্থান তৈরি করে থাকছেন। এই শ্রমিকদের মধ্যে কেউ কেউ করোনার আক্রান্ত হয়ে পড়েছেন বলে খবর আসা শুরু হয়েছে সম্প্রতি। তাঁদের অনেকে নিজেদের গ্রামের বাড়িতে ফিরে গিয়েছেন। আবার কেউ কেউ এখানে করোনার চিকিৎসা করিয়েছেন। এই শ্রমিকদের পাশে দাঁড়িয়ে তাঁদের ভ্যাকসিন দেওয়ার পরিকল্পনা নিলো হিডকো। এই শ্রমিকরা যেহেতু এই শহরের বাসিন্দা নন ফলে তাঁদের যাবতীয় তথ্য নিউটাউন উপনগরী কর্তৃপক্ষের কাছে নেই। তাই প্রাথমিকভাবে এই উপনগরীতে কত শ্রমিক নির্মীয়মান শিল্প ও অন্যান্য কাজে কর্মরত তা খুঁজে বের করার কাজ শুরু করেছিল নিউটাউন কর্তৃপক্ষ। সেই কাজ প্রায় শেষের পথে। এবার এই শ্রমিকদের জন্য আলাদাভাবে ভ্যাকসিন দেওয়ার প্রস্তাব পাঠানো হবে সরকারের কাছে। প্রয়োজনীয় অনুমতি আসার পর সেই কাজে হাত দেবে নিউটাউন।

[আরও পড়ুন: বিজেপির ৭৭ বিধায়কই পাবেন কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা, বড় সিদ্ধান্ত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের]

এ প্রসঙ্গে হিডকোর চেয়ারম্যান দেবাশিস সেন সোমবার জানিয়েছেন, “সরকারের কাছে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। অনুমতি মিললে শ্রমিকদের টিকাকরণ করানোর কাজ শুরু হবে। তাতে যাতে দেরি না হয় তাই প্রাথমিকভাবে তথ্যাবলী সংগ্রহের কাজ সেরে রাখা হচ্ছে।” হিডকো সূত্রে জানা গিয়েছে, ক্রেডাই তাদের পরিকাঠামো ব্যবহার করে এই কাজে সহযোগিতা করবে। লিফলেট বিলি-সহ ট্যাবলয়েড ইত্যাদি তৈরি করে প্রচার করবে। তবে মূল কাজটি করবে হিডকো এবং এনকেডিএ। তাদের উদ্যোগে এবং স্বাস্থ্য দফতরের তত্ত্বাবধানে শ্রমিকদের টিকা দেওয়ার কাজ শুরু হবে সরকারি অনুমতি মেলার সঙ্গে সঙ্গে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে