১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

NRS হাসপাতালেও খুলছে কোভিড ওয়ার্ড, ৭ দিনের মধ্যেই শুরু হবে রোগী ভরতির প্রক্রিয়া

Published by: Sayani Sen |    Posted: July 15, 2020 1:18 pm|    Updated: July 15, 2020 1:18 pm

An Images

গৌতম ব্রহ্ম: রাজ্যে ক্রমশই বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। তাই প্রয়োজন অতিরিক্ত হাসপাতালের। পরিস্থিতি সামাল দিতে এবার এনআরএস মেডিক্যাল কলেজে (NRS Medical College & Hospital) খুলছে কোভিড (Covid-19) ওয়ার্ড। মোট শয্যাসংখ্যা হবে ১১০টি। এ বিষয়ে বুধবার দুপুরে হাসপাতালের সুপার, প্রিন্সিপাল এবং কয়েকজন সিনিয়র অধ্যাপককে নিয়ে বৈঠক চলছে। আপাতত ঠিক হয়েছে চেষ্ট, অর্থোপেডিক বিল্ডিং নিয়ে কোভিড ওয়ার্ড তৈরি হবে।

রোগীকল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান ডাঃ শান্তনু সেন বলেন, “কোভিড সংক্রমণ যেভাবে বাড়ছে তাতে বাড়তি বেডের প্রয়োজন। তাই রাজ্যের স্বাস্থ্যদপ্তর বলার আগে আমরা রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Mamata Banerjee) কোভিড ওয়ার্ড খোলার ইচ্ছা জানিয়ে প্রস্তাব দিই। উনি সম্মত হওয়ায় প্রস্তুতি শুরু হয়েছে।” সাতদিনের মধ্যেই কোভিড রোগীর প্রক্রিয়া শুরু হবে।

[আরও পড়ুন: ফ্ল্যাটে একাধিক পুরুষের আনাগোনা, যাদবপুরের তরুণী ‘খুনে’ নাম জড়াল প্রেমিকের]

এখন এনআরএস হাসপাতালে করোনা সন্দেহভাজন রোগীদের শুধু আইসোলেশনে রেখে টেস্ট করা হয়। চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়ার জন্যে ১০০টার বেশি বেড রয়েছে। সোমবার রোগীকল্যাণ সমিতির জরুরি বৈঠক। সেখানেই আনুষ্ঠানিকভাবে কোভিড ওয়ার্ড খোলার বিষয়ে সিলমোহর পড়বে বলে হাসপাতাল সূত্রে খবর। এই মুহূর্তে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল ছাড়া কলকাতার আর অন্য কোনও মেডিক্যাল কলেজে কোভিড রোগীর চিকিৎসার সুযোগ নেই। সেক্ষেত্রে নিজে থেকে এগিয়ে এসে এনআরএস নয়া দৃষ্টান্ত স্থাপন করল।
 
রোগীকল্যাণ সমিতির এই সিদ্ধান্তে খুশি রাজ্যের চিকিৎসকরা। তাঁদের বক্তব্য, করোনা সংক্রমণের ফলে যেভাবে হরেক উপসর্গ নিয়ে দেখা দিচ্ছে। তাতে রোগীদের সুস্থ করে তোলার জন্য মেডিক্যাল কলেজের “অভিজ্ঞতা” খুব প্রয়োজন। বিশেষ করে শ্বাসকষ্ট শুরু হলেই কোভিড রোগীকে অক্সিজেন থেরাপি দেওয়া জরুরি। যার জন্যে ক্রিটিক্যাল কেয়ার বিশেষজ্ঞ দরকার। অক্সিজেন থেরাপিতে কাজ না হলে রোগীকে দেওয়া হয় ভেন্টিলেশনে। মেডিক্যাল কলেজে এই পরিকাঠামো থাকায় চিকিৎসাক্ষেত্রে অনেক সুবিধা হবে। কমবে মৃত্যুর হার। এনআরএস মেডিক্যাল কলেজেও সংকটজনক রোগীদের চিকিৎসায় চারটি সিসিইউ বেডের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: রাজভবনের তরফে ভয় দেখানো চিঠি, ধনকড়ের সঙ্গে বৈঠকে এড়াচ্ছেন ‘অপমানিত’ উপাচার্যরা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement