BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘সংযুক্ত মোর্চা ভাঙলে দায় নিতে হবে কংগ্রসকে’, বিমান বসুর মন্তব্যে জল্পনা

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: September 15, 2021 1:37 pm|    Updated: September 15, 2021 2:44 pm

CPM leader Biman Basu attacks Congress | Sangbad Pratidin

বুদ্ধদেব সেনগুপ্ত: সংযুক্ত মোর্চা না থাকলেও এবারের নির্বাচনে তিনটি আসনে কংগ্রেসর সঙ্গে জোট অক্ষত রেখেই প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে বামেরা। তবে ভোটের পর জোট ভাঙলে তার দায় বামেরা নেবে না। ২৭ সেপ্টেম্বর কৃষকদের ডাকা ভারত বন্‌ধের সমর্থনে এক সভা থেকে মঙ্গলবার একথা বললেন বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু। অন্য অবিজেপি রাজ্যের বিরোধীদের উপর আক্রমণ হলেই বঙ্গের শাসকদল সমালোচনায় সরব হয়। অথচ ত্রিপুরায় বামেদের উপর আক্রমণের পরও কেন তৃণমূল চুপ রইল তা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন বাম নেতৃত্ব। সেইসঙ্গে কৃষকদের ডাকা বন্‌ধকে সমর্থন করতে রাজ্যের শাসকদলের কাছে আবেদন জানিয়েছে বামেরা।

ভবানীপুরে উপ নির্বাচনে প্রার্থী দেয়নি কংগ্রেস। সিপিএম প্রার্থী দিলেও প্রচারে নামবে না বলে জানিয়েছে বিধানভবন। আবার সামশেরগঞ্জে দলের প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা থেকে সরে দাঁড়ালেও হাত চিহ্নে ছাপ দেওয়ার পক্ষে প্রচার চালাচ্ছে কংগ্রেস। তিনটি কেন্দ্রের ভোট নিয়ে কংগ্রেসের চিন্তাভাবনায় ধোঁয়াশায় সিপিএম। বিশেষ করে ভবনীপুরে প্রচারে নামা ও সামশেরগঞ্জ নিয়ে বিধানভবনের সঙ্গে কোনও কথা হয়নি বলে জানান সংযুক্ত মোর্চার মূল কারিগর বিমান বসু (Biman Basu)। তবে জোট সঙ্গীর আচরণে তাঁরা যে ক্ষুব্ধ এদিন তাও স্পষ্ট করেন তিনি।

[আরও পড়ুন: দফায় দফায় বোমাবাজি, অস্ত্র হাতে দাপাদাপি দুষ্কৃতীদের, ফের উত্তপ্ত ভাটপাড়া]

২০১৬ সালের ভোটের পর বিধানভবনের তরফে আলিমুদ্দিনের ওপর জোট ভাঙার দায় চাপান হলেও এবার সতর্ক সিপিএম। আলিমুদ্দিন যে দ্বিতীয়বার একই ভুল করতে নারাজ বিমানের কথাতেই তা স্পষ্ট। তিনি বলেন, “আমরা জোট ভাঙার কথা কখনও বলিনি। তবে তিনটি কেন্দ্রের নির্বাচন নিয়ে কংগ্রেস কী করছে তা মানুষ দেখছে।”

এদিন সভায় ত্রিপুরায় (Tripura) বামেদের ওপর বিজেপির আক্রমণের কড়া নিন্দা করে বাম নেতৃত্ব। সিপিএম রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্রর অভিযোগ, সে রাজ্যে বিরোধী দলনেতাকে তাঁর কেন্দ্রে যেতে দেওয়া হয় না। প্রতিবাদ করলেই আক্রমণ করা হয়। তবে ত্রিপুরায় আক্রমণ হলে বঙ্গে প্রতিবাদ হবে বলে সাফ জানান তিনি। কিন্তু বঙ্গের শাসকদল কেন প্রতিবাদ করল না তা নিয়ে সমালোচনায় সরব হন বাম নেতৃত্ব। আবার কৃষকদের ডাকা বনধে বামেরা রাস্তায় নেমে পালন করবে বলে জানান নেতারা। তবে শাসকদল কী করবে তা নিয়েও সন্দেহপ্রকাশও করেন তাঁরা। আন্দোলনরত কৃষকদের সঙ্গে তৃণমূল নেতৃত্ব দফায় দফায় বৈঠক করে সমর্থন জানালেও এখনও কেন বনধ নিয়ে একটি কথাও বলছেন না তা নিয়েও সমালোচনা করেন ফরওয়ার্ড ব্লকের নরেন চট্টোপাধ্যায়, আরএসপির মনোজ ভট্টাচার্য ও সিপিআইয়ের স্বপন বন্দ্যোপাধ্যায়রা।

[আরও পড়ুন: মাঠের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন, অর্থাভাবে পেশা বদলে স্বর্ণপদকপ্রাপ্ত অ্যাথলিট এখন পরিযায়ী শ্রমিক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

×