BREAKING NEWS

১১ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

সিপিএমের জন্যই রাজ্যে বিজেপির বাড়বাড়ন্ত, স্বীকারোক্তি বাম নেতৃত্বের

Published by: Kumaresh Halder |    Posted: August 6, 2018 10:31 am|    Updated: August 7, 2018 1:54 pm

CPM’s failure helps BJP to rise in the state, admit left leadership

ক্ষিরোদ ভট্টাচার্য:: তৃণমূলের থেকেও যে বিজেপি আরও বড় বিপদ তা অবশেষে মানল বঙ্গ সিপিএম। দলের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা সদস্য মুজফফর আহমদের ১৩০ তম জন্মদিনের অনুষ্ঠানে সূর্যকান্ত মিশ্র বলেন, ‘এটা বাস্তব যে পঞ্চায়েত ভোটে সন্ত্রাস হয়েছে। কিন্তু সেই সন্ত্রাসকেও ছাপিয়ে যাচ্ছে দেশে ধর্মীয় মেরুকরণ ও বিভাজন। ফলে জন্ম নিচ্ছে পারস্পরিক অবিশ্বাস। এটাই এই সময়ের জ্বলন্ত সমস্যা। এই সমস্যার সমাধানের জন্যই এখন এগিয়ে আসতে হবে রাজ্যের বামপন্থীদের।’  সিপিএম রাজ্য সম্পাদকের সংয়োজন, ‘বিজেপি ও সঙ্ঘ পরিবার এই বহুমাত্রিক বিভাজন নির্মাণ করছে।’ মহাজাতি সদনের  অনুষ্ঠানে অবশ্য একই অভিযোগ করেছেন পলিটব্যুরো সদস্য মহম্মদ সেলিম। তিনি বলেন , ‘কে কী খাবে। ফ্রিজে কী রাখবে? কি পোষাক পরবে? কি ভাষায় কথা বলবে? তাও ঠিক করে দেওয়া হচ্ছে।’

[রক্তচোষা জোঁকের লালায় ক্যানসার মুক্তি, রোগীকে বাঁচালেন আয়ুর্বেদিক চিকিৎসকরা]

মুজফফর আহমদের জন্মদিন উপলক্ষে মহাজাতি সদনের অনুষ্ঠানে এদিন লেখক গৌতম রায় ও সাম্পান চক্রবর্তীর দু’টি বইকে পুরস্কৃত করা হয়। ‘ভাবনা কোষ’ নামে দুই খণ্ডের একটি বইও প্রকাশ করা হয়।  অনুষ্ঠানের শুরুতেই বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান মূল সুরটি বেঁধে দেন। বিমান বসু বলেন, ‘একদিকে রাজনৈতিক ও অপরদিকে ধর্মীয় জোড়া সন্ত্রাস চেপে বসেছে। এই  সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে আন্দোলনই একমাত্র পথ।’  পলিটব্যুরো সদস্য মহম্মদ সেলিম বলেন, ‘নিজেদের ইচ্ছেমতো দেশ চালাচ্ছে কেন্দ্র। মেডিক্যাল কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া তুলে দিতে চাইছিল।  চাপের মুখে অবস্থান বদলেছে। তৃণমূলকে কটাক্ষ করে সেলিম আরও বলেন,  ‘রাজ্যে সন্ত্রাস করে অসমে মোমবাতি জ্বালাতে চাইছে তৃণমূল। এই উদ্দেশ্য সফল হবে না।’

[গভীর নিম্নচাপের জেরে শহরে তুমুল বৃষ্টি, দক্ষিণবঙ্গে ভারী বর্ষণের পূর্বাভাস]

তবে, বামেদের প্রধান নিশানা ছিল বিজেপি ও সঙ্ঘ পরিবারই। সিপিএম রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্রর অভিযোগ,  ‘ এবছর পঞ্চায়েত ভোটের সন্ত্রাস সাতের দশকেও ছাপিয়ে গিয়েছে। কিন্তু কোনও কোনও জায়গায় সেই সন্ত্রাসের মোকাবিলা করা গিয়েছে। কিন্তু বিজেপি ধর্মকে বাহন করে বহুমাত্রিক বিভাজন তৈরি করছে। এটাই এখন জ্বলন্ত সমস্যা।  মেরুকরণের চেষ্টা চলছে । এই সমস্যা মোকাবিলা করাই এখন প্রধান চ্যালেঞ্জ।’  কেন্দ্রে মোদির বিরুদ্ধে যদি ফেডারেল ফ্রন্ট তৈরি হয়, তাহলে কোন  পথে হাঁটবে বামেরা?  এই প্রশ্নে এখনও নীরব আলিমুদ্দিন স্ট্রিটের নেতারা।  

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে