BREAKING NEWS

১৫  আষাঢ়  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ৩০ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বুমেরাং সিপিএমের ‘পাহারায় পাবলিক’, তৃণমূলের দুর্নীতি খুঁড়তে গিয়ে ফাঁস কমরেডদেরই কুকীর্তি!

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: April 3, 2022 4:44 pm|    Updated: April 3, 2022 5:50 pm

CPM's' new campaign 'Public on Guard' boomeranged, notoriety of comrades revealed while digging for the corruption of TMC leaders! | Sangbad Pratidin

বুদ্ধদেব সেনগুপ্ত: যাকে বলে বুমেরাং! আক্ষরিক অর্থেই। শত্রুর কোষাগারে চোরাই মালের সন্ধানে ‘টিকটিকি’ মোতায়েন করেছিল আলিমুদ্দিন। কিন্তু অত্যুৎসাহী সেই গোয়েন্দারা শত্রুপক্ষের পাশাপাশি নিজেদের কমরেডদেরই চোরাই সম্পত্তির ছবি ফাঁস করে দিচ্ছেন একের পর এক। চোরাই মালের সেই বিপুল বহর দেখে চক্ষু চড়কগাছ সিপিএম (CPM) শীর্ষ নেতৃত্বের। পরিস্থিতি বেগতিক বুঝে পিঠ বাঁচাতে নিচুতলায় এবার নয়া ফরমান! যাতে স্পষ্ট নির্দেশ, নিজের পার্টির নেতাদের নয়, বাড়ি-গাড়ির ছবি পাঠাতে হবে শুধু রাজ্যের শাসক তৃণমূল (TMC) নেতাদের।

ফাঁপরে পরা সিপিএম নেতাদের জারি করা ফরমানে নিচুতলার অতি উৎসাহ না হয় কোনওভাবে ঠেকানো গেল। কিন্তু তারপরও কি কাঁপুনি কমছে? কারণ, এর মধ্যেই ‘বাঘের ঘরে ঘোগের বাসা’র বিষয়টি যেভাবে ফাঁস হয়ে গিয়েছে, তাতে আগামী দিনে কতটা কলঙ্ক মোছা যাবে, তা নিয়ে রীতিমতো সন্দিহান আলিমুদ্দিন (Alimuddin)।

[আরও পড়ুন: ইমরানের সুপারিশে সায় রাষ্ট্রপতির, সংসদ ভেঙে দ্রুত নির্বাচনের পথে পাকিস্তান]

তৃণমূল নেতাদের দুর্নীতি (Corruption) প্রকাশ্যে আনতে ধুমধাম করে ক’দিন আগে ‘পাহারায় পাবলিক’ কর্মসূচির কথা ঘোষণা করেছিল আলিমুদ্দিন। বলা হয়েছিল, দশ বছরে আঙুল ফুলে কলাগাছ হয়ে যাওয়া তৃণমূল নেতাদের সম্পত্তির সুলুকসন্ধান করে তা প্রকাশ্যে আনা হবে। দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল ‘রেড ভলান্টিয়ারস’দের উপর। বলে দেওয়া হয়েছিল, তৃণমূল নেতাদের চোখধাঁধানো গাড়ি-বাড়ি দেখতে পেলেই ছবি তুলে তা পাঠাতে হবে আলিমুদ্দিনে। ধনকুবের নেতাদের পরিচয় ও সম্পত্তির হিসাব দিয়ে সংকলন প্রকাশ করার কথা জানিয়েছিলেন সিপিএম রাজ্য সম্পাদক মহম্মদ সেলিম।

[আরও পড়ুন: ইউক্রেনের পথে পথে ছড়িয়ে মৃতদেহ! বহু মানুষকে দেওয়া হল গণকবর]

কিন্তু গোল বাধে শুরুতেই! এবং তা দলীয় গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের সৌজন্যে। ‘পাহারায় পাবলিক’ কর্মসূচি ঘোষণা হতেই প্রবল উৎসাহে ছাত্র ও যুবকর্মীরা রাস্তায় নেমেছিলেন। সূত্রের খবর, তৃণমূল নেতাদের সঙ্গে প্রাসাদোপম বাড়ি ও দামি গাড়ির পাশাপাশি দলের বিরোধী গোষ্ঠীর নেতাদেরও বিপুল পরিমাণ ধনদৌলতের হিসাব ও ছবি পাঠানো শুরু হয়েছে বিভিন্ন জেলা থেকে। গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে জর্জরিত সিপিএম নেতারা পড়েছেন ফাঁপরে। এক গোষ্ঠীর নেতারা গোপনে অপর গোষ্ঠীর নেতাদের বাড়ির ছবি তুলে সটান পাঠাচ্ছেন আলিমুদ্দিনের গবেষণাগারে। তাই ফোনে নিচুতলার শাখা ও এরিয়া কমিটির নেতাদের কাছে যাচ্ছে নয়া নির্দেশিক – ‘নিজেদের দ্বন্দ্ব গোপন রাখুন। প্রকাশ করুন শাসকের দম্ভ’। এমন ঘটনা যে ঘটছে তা স্বীকার করেছেন পার্টির সম্পাদকমণ্ডলীর এক সদস্য। জানান, ভুল মানুষমাত্রই হয়। কর্মীদের অনেকেই না বুঝেই করেছেন। তাঁদের সতর্ক করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে