২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

উদ্ধার রাজীব ভট্টাচার্যর দেহ, বরফ-সমাধিতে গৌতম, পরেশ?

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 25, 2016 12:23 pm|    Updated: May 25, 2016 12:44 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বরফের দেশেরই চিরঘুমে ঢলে পড়েছিলেন বাঙালি পর্বতারোহী রাজীব ভট্টাচার্য৷ ধৌলাগিরি শৃঙ্গ ছুঁয়ে আর ফেরা হয়নি তাঁর৷ কয়েকদিন পর ফিরল তাঁর মরদেহ৷ ক্যাম্প থ্রি থেকে ক্যাম্প টু-তে আনা হচ্ছে তাঁর মৃতদেহ৷

মাত্র বছর কয়েক আগে যখন ছন্দা গায়েন নিখোঁজ হয়েছিলেন তখন রাজীবই ব্যাখ্যা করেছিলেন, কোন পরিস্থিতিতে পড়তে পারেন ছন্দা৷ নিখোঁজ ছন্দার দেহ আজও পাওয়া যায়নি৷ নেপাল সরকারের নিয়মানুযায়ী তাঁকে মৃত ঘোষণা করা হয়েছিল৷ বছর দুই পেরিয়ে সেই একই অবস্থায় পড়লেন খোদ রাজীব৷ ধৌলাগিরি শৃঙ্গ ছুঁয়ে ফেরার পথে ‘ফ্রস্ট ব্লাইন্ডনেসে’ আক্রান্ত হন তিনি৷ টান পড়ে অক্সিজেনেও৷ তাঁকে ফেরানো অসম্ভব হয়ে ওঠে৷ একসময় মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন তিনি৷ পাহাড়ে তাঁর মরদেহ বেঁধে রেখে নিচে নেমে আসেন তাঁর শেরপা৷ বেশ কয়েকদিন পরে উদ্ধার হল তাঁর দেহ৷ মরদেহ আনা হবে তাঁর বাড়িতে৷

এদিকে এখনও খোঁজ মেলেনি পরেশ নাথ ও গৌতম ঘোষের দেহের৷ এভারেস্টজয়ী রুদ্রপ্রসাদ হালদারের মতে, ওই উচ্চতায় অক্সিজেন ছাড়া বেঁচে থাকা সম্ভব নয়৷ তাই ধরে নেওয়া হচ্ছে, মৃত্যুই হয়েছে এই দুই পর্বতারোহীরও৷ নিজের ফেসবুক পোস্টে রুদ্রপ্রসাদবাবু জানান, ব্যালকনির আশেপাশেই কোথাও তাঁদের মরদেহ আছে৷ তবে তাঁদের দেহের কোনও হদিশ মেলেনি৷ তিনদিন কাটলে নেপাল সরকারের নিয়মে তাঁদের মৃত বলে ঘোষণা করা হতে পারে৷ উদ্বেগ গ্রাস করেছে দুই পরিবারকে৷ তবে এখনও ভেঙে পড়েননি পরিবারের সদস্যরা৷ তাঁদের আশা, ঠিক ফিরে আসবেন ওঁরা৷ আর এক পর্বতারোহী সুভাষ পালের দেহও উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি৷

পর্বত অভিযানের দুরন্ত নেশা একদিকে যেমন বাংলাকে সাফল্য দিল, তেমনই ছড়াল বিষাদ৷ এবারের অভিযান অন্তত বাংলার পর্বতারোহণের ইতিহাসে কালো অধ্যায় হয়েই থাকল৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement