৩ মাঘ  ১৪২৮  সোমবার ১৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

অনাস্থার মাঝেই আরও বিপাকে সব্যসাচী দত্ত, আইনি নোটিস ধরালেন কাউন্সিলরের স্ত্রী

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: July 15, 2019 11:26 am|    Updated: July 15, 2019 11:31 am

Defamation suit against Bidhannagar Mayor Sabyasachi Dutta

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিধাননগরের মেয়র পদ নিয়ে টানাপোড়েনের মাঝেই অন্য সংকট৷ মেয়র সব্যসাচী দত্তকে আইনি নোটিস পাঠালেন বিধাননগরের কাউন্সিলর সুভাষ বসুর স্ত্রী শর্মিষ্ঠা৷ সুভাষ বসুর বিরুদ্ধে প্রোমোটিং নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছিলেন মেয়র৷ তার পরিপ্রেক্ষিতেই এই নোটিস তাঁকে পাঠানো হয়েছে বলে সূত্রের খবর৷ তিনদিনের মধ্যে নিঃশর্তে ক্ষমা না চাইলে সব্যসাচী দত্তের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা দায়ের করার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন শর্মিষ্ঠা বসু৷

[আরও পড়ুন: এবার রাতের কলকাতায় অটোয় শ্লীলতাহানির শিকার মহিলা পুলিশকর্মী, গ্রেপ্তার চালক]

সুভাষ বসু বিধাননগর পুরসভার ৬ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর৷ মেয়রের বিরুদ্ধে অভিযোগ, উনি সুভাষবাবুর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় তা ছড়িয়ে দিচ্ছেন৷ হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে তা ছড়িয়ে পড়েছে নানা জায়গায়৷ যাতে সম্মানহানি ঘটছে বলে পালটা দাবি করছেন সুভাষ বসু৷ তাঁর কথায়, ‘যেসব ভিত্তিহীন অভিযোগ উনি ছড়িয়ে দিচ্ছেন, তাতে সামাজিকভাবে মর্যাদা হানিকর পরিস্থিতির মধ্যে পড়তে হচ্ছে৷ একজন জনপ্রতিনিধি হিসেবে ইমেজে দাগ পড়ছে৷ তাই আমার স্ত্রী বাধ্য হয়েই তাঁকে আইনি নোটিস পাঠিয়েছেন৷আমার বিরুদ্ধে এসব প্রোমোটিংয়ের অভিযোগ প্রমাণ করতে না পারলে নিঃশর্তে ক্ষমা চাইতে হবে মেয়রকে৷’
লোকসভা ভোট পরবর্তী সময়ে বিধাননগরের মেয়র সব্যসাচী দত্তকে নিয়ে বেশ বিড়ম্বনায় পড়তে হয়েছে তৃণমূলকে৷ তাঁকে নিয়ে দ্বিধাবিভক্ত পুরসভার কাউন্সিলররা৷ এই পরিস্থিতিতে রাজ্যের পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম তাঁকে মেয়র পদটি ছেড়ে দেওয়ার পরামর্শ দিলেও, তা মানেননি সব্যসাচী৷ পদ আঁকড়েই রয়েছেন এবং জানিয়েছেন, ভোটে তাঁকে ক্ষমতাচ্যুত না করা পর্যন্ত তিনি নিজে ইস্তফা দেবেন না৷ এরপর সব্যসাচীর বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাবও আনা হয়েছে৷১৮ তারিখ বিধাননগর পুরসভায় আস্থা ভোট৷

[আরও পড়ুন: যান্ত্রিকতার বলি শিল্পী জীবন, অনুজদের স্মৃতিতে মেট্রো দুর্ঘটনায় মৃত সজল কাঞ্জিলাল]

তবে অনাস্থার মোকাবিলায় যে খুব একটা আত্মবিশ্বাসী তিনি নন, তাও বোঝা গিয়েছিল বেশ কয়েকটি ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে৷ অনাস্থা এলে কী পদক্ষেপ নেবেন, সব্যসাচীর বাড়িতে গিয়ে সেই পরামর্শ দিয়ে এসেছেন তৃণমূলত্যাগী বিজেপি নেতা মুকুল রায়, যাঁর সঙ্গে ইদানীং সব্যসাচীর ঘনিষ্ঠতা বারবারই নানারকম জল্পনা উসকে দিয়েছে৷ সেইমতো অনাস্থার বিরুদ্ধে হাই কোর্টে মামলাও দায়ের করেছেন বিধাননগরের মেয়র৷ আজ, সোমবার বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায়ের এজলাসে তার শুনানি৷ তারই মধ্যে কাউন্সিলরের স্ত্রীর পাঠানো আইনি নোটিস সব্যসাচী দত্তকে আরও বিপাকে ফেলার চেষ্টা বলেই মনে করছেন তাঁর অনুগামীরা৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে