BREAKING NEWS

১৪ ফাল্গুন  ১৪২৭  শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

চূড়ান্ত পর্বের ভোট প্রস্তুতি খতিয়ে দেখতে ফের রাজ্যে আসছেন ডেপুটি নির্বাচন কমিশনার

Published by: Biswadip Dey |    Posted: February 21, 2021 8:45 pm|    Updated: February 21, 2021 8:45 pm

An Images

শুভঙ্কর বসু: যাবতীয় প্রস্তুতির পালা শেষ। এবার তা খতিয়ে দেখে নম্বর দেওয়ার পালা। সেই লক্ষ্যেই আগামী শুক্রবার ফের রাজ্যে আসছেন পশ্চিমবঙ্গের দায়িত্বপ্রাপ্ত ডেপুটি নির্বাচন কমিশনার (Deputy Election Commissioner) সুদীপ জৈন। ইতিমধ্যেই রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় রুট মার্চ শুরু করে দিয়েছে আধাসেনা। স্লোগান-পাল্টা স্লোগানে ক্রমশই একুশে ভোটের পারদ চড়তে শুরু করেছে। তবে নির্বাচনের (Assembly Election 2021) দিনক্ষণ ঘোষণা হলে তা যে সপ্তমে পৌঁছবে তা বলার অপেক্ষা রাখে না। এই পরিস্থিতিতে সুদীপ জৈনর এবারের রাজ্য সফর যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

রাজ্য মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, রাজ্য সফরে এসে জেলাশাসক ও পুলিশ সুপারদের সঙ্গে বৈঠক করবেন ডেপুটি নির্বাচন কমিশনার। আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি থেকে ভোটের সার্বিক প্রস্তুতি খতিয়ে দেখবেন। জেলাগুলিকে ভোট প্রস্তুতি সংক্রান্ত একটি পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন তৈরি করতে বলা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। গতবার রাজ্যে এসে জেলা কর্তাদের কড়া বার্তা দিয়েছিলেন তিনি। জানিয়ে দিয়েছিলেন, ন্যূনতম গাফিলতি বরদাস্ত করা হবে না। শোকজ না করে সরাসরি সাসপেন্ডের পথে হাঁটবে কমিশন। আপাতত জেলা প্রশাসনগুলি অভিযোগ নিষ্পত্তি থেকে শুরু করে আইন-শৃঙ্খলার উন্নতির ব্যাপারে কী কী পদক্ষেপ করেছে তা যাচাই করবেন সুদীপ জৈন। গতবার একাধিক জেলার ভূমিকায় কার্যত ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন তিনি। জামিন অযোগ্য গ্রেপ্তারি পরোয়ানা কার্যকর করা নিয়ে রীতিমতো হুঁশিয়ারি দিয়ে গিয়েছিলেন।

[আরও পড়ুন: ভোটের মুখে বড় ঘোষণা, এবার পেট্রল-ডিজেলের দাম কমাচ্ছে রাজ্য সরকার]

সম্প্রতি এডিজি আইন-শৃঙ্খলা সহ একগুচ্ছ আধিকারিক বদল হয়েছে। সূত্রের খবর, তাঁদের সঙ্গে মুখোমুখি আলোচনায় বসতে চান সুদীপ জৈন। পাশাপাশি যে সংখ্যক আধাসেনা পৌঁছে গিয়েছে তাদের মোতায়েন সংক্রান্ত একটি গাইডলাইনও তিনি বেঁধে দিতে পারেন বলে জানা গিয়েছে। রাজ্যের আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠকের পাশাপাশি বিভিন্ন কেন্দ্রীয় সংস্থার প্রতিনিধিদের সঙ্গেও সুদীপ জৈনর আলোচনায় বসতে পারেন। দিল্লি পৌঁছে রাজ্যের চূড়ান্ত প্রস্তুতি সংক্রান্ত একটি রিপোর্ট তিনি কমিশনে জমা দেবেন। সম্ভবত তারপরই মার্চের প্রথম সপ্তাহে শেষের দিকে ভোট ঘোষণা হয়ে যেতে পারে।

[আরও পড়ুন: ঋতুমতী অবস্থায় সরস্বতী পুজো দমদমের তরুণীর, ক্ষুব্ধ পুরোহিতদের একাংশ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement