১ ভাদ্র  ১৪২৬  সোমবার ১৯ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১ ভাদ্র  ১৪২৬  সোমবার ১৯ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: ‘দিদিকে বলো’র সাফল্যের মুকুটে যুক্ত হল নয়া পালক৷ পশ্চিমবঙ্গ সরকারের থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে বন্যাবিধ্বস্ত কর্ণাটকে
আটকে থাকা ২০টি বাঙালি পরিবারকে করল ওই রাজ্যের প্রশাসন৷ বর্তমানে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে দুর্গত পরিবারগুলিকে৷ তাঁদের খাবার ও জলেরও পর্যাপ্ত ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে সূত্রের খবর৷

[ আরও পড়ুন: আরও বাড়ল দূরত্ব, বিধানসভার স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান পদ থেকে ইস্তফা শোভনের]

জানা গিয়েছে, দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসিন্দা অরিন্দম বিটের থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতেই বিষয়টি জানতে পারে রাজ্য প্রশাসন৷ ‘দিদিকে বলো’ নম্বরে ফোন করে তিনি জানান, জলমগ্ন কর্ণাটকের কারওয়া শহরের কাছে কয়দা টাউনশিপে আটকে রয়েছে ২০টি বাঙালি পরিবার৷ যাঁদের মধ্যে রয়েছে তাঁর দিদি ও জামাইবাবু৷ তাঁদের কাছে নেই পর্যাপ্ত জল ও খাবার৷ বিদ্যুৎ ও টেলিফোন যোগাযোগ ব্যবস্থার থেকে সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে পরিবারগুলি৷ তাঁদের কাছে পৌঁছাচ্ছে না কর্ণাটক সরকারের ত্রান৷

[ আরও পড়ুন: বাড়ি থেকে অচৈতন্য অবস্থায় উদ্ধার, হাসপাতালে বৃদ্ধকে মৃত ঘোষণা ]

সূত্রের খবর, ওই ব্যক্তির অসুবিধার কথা জানতে পেরেই তৎপর হয় রাজ্য সরকার৷ প্রথমেই, এ রাজ্যের বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তরের তরফে কর্ণাটক সরকারের সঙ্গে  যোগাযোগ করা হয়৷ দুর্গতদের উদ্ধারে তৎপর হয় কর্ণাটকের বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তরের সচিব ও স্থানীয় কমিশনারের দপ্তর৷ সময়ে সময়ে উদ্ধারকার্যের আপডেট জানানো হয় পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে৷ দুর্গতদের লোকেশন ট্র্যাক করে সেখানে পৌঁছে যায় উদ্ধারকারী দল৷ এবং উদ্ধার করা হয় বন্যাবিধ্বস্ত ২০টি বাঙালি পরিবারকে৷ তাঁদের সরিয়ে নিয়ে আসা হয় নিরাপদ স্থানে৷ ব্যবস্থা করা হয় খাবারের৷ তৃণমূল সূত্রে খবর, ‘দিদিকে বলো’ কর্মসূচির সমস্ত তথ্যই গোপন রাখা হয়৷ তবে অরিন্দম বিটের সম্পতি নিয়েই এই তথ্য প্রকাশ্যে আনা হয়েছে৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং