BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘মুকুলদা সিনিয়র, করোনার জন্য বাইরে বেরতে বারণ করছি’, দ্বন্দ্ব ভুলে যত্নশীল দিলীপ

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: August 18, 2020 6:11 pm|    Updated: August 18, 2020 6:17 pm

An Images

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: দ্বন্দ্বের কাঁটা উপড়ে ফেলতে একেবারে মরিয়া বঙ্গ বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব। আজ নিজের বাড়িতে গুরুত্বপূর্ণ সাংগঠনিক বৈঠক সেরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে ফের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব নিয়ে চারপাশে গুঞ্জনকে স্রেফ উড়িয়ে দিতে চাইলেন দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। বুঝিয়ে দিলেন মতান্তর নয়, মুকুল রায়ের প্রতি প্রযত্ন থেকেই তাঁকে কম কাজের দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে। দিলীপ ঘোষের মন্তব্য, ”মুকুলদা সিনিয়র লিডার, করোনা আবহে তাঁকে তাই বেশি বাইরে বেরতে বারণ করছি। উনি সবরকমভাবে তৈরি। দল যখনই চাইবে, উনি কাজে ঝাঁপিয়ে পড়বেন।”

এদিন দিলীপ ঘোষের রাজারহাটের বাড়িতে হাওড়া সদর, হাওড়া গ্রামীণ, আরামবাগ ও শ্রীরামপুর সাংগঠনিক জেলার বৈঠক ছিল। এই বৈঠক চলবে আগামী ৫ দিনে ধরে, বিভিন্ন জেলা সংগঠন নিয়ে। বৈঠকে উপস্থিত রয়েছেন মুকুল রায়, রাহুল সিনহা, কৈলাস বিজয়বর্গীয়, অরবিন্দ মেনন। বঙ্গ বিজেপি যে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করছে, তা বোঝাতে আজ সকালেই দিলীপের রাজারহাটের বাড়িতে পৌঁছে গিয়েছিলেন মুকুল রায় (Mukul Roy)। আর বৈঠকের পর রাজ্য সভাপতি নানাভাবে বোঝানোর চেষ্টা করলেন যে নিজেদের মধ্যে কোনও মতানৈক্য নেই। বরং মুকুল রায়ের মতো বর্ষীয়ান নেতার প্রতি দল অনেক দায়িত্বশীল, যত্নশীল। তাই করোনা আবহে তাঁর সুস্থতার কথা ভেবেই কম দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে, যাতে বেশি তাঁকে বাইরে বেরতে না হয়। শ্লেষের সুরে তিনি আরও বললেন, ”বিজেপি বাংলার ক্ষমতায় আসবে, তা অনেকের সহ্য হচ্ছে না। তাই ভুলভাল রটাচ্ছেন।”

[আরও পড়ুন: লক্ষ্য একুশে বাংলা দখল, আজ থেকে দিলীপ ঘোষের বাড়িতে সংগঠন নিয়ে ম্যারাথন বৈঠকে বিজেপি]

আজকের বৈঠক থেকে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনের কয়েকটি নতুন কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে বলে জানালেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি। আগামী ৮ সেপ্টেম্বর রাজ্যে গণতন্ত্রের পরিবেশ বিঘ্নিত, এই ইস্যুকে সামনে রেখে বিডিও অফিসগুলির সামনে ধরনা ও বিক্ষোভ দেখাবে বিজেপি। এছাড়া জয় নিয়েও এদিন আত্মবিশ্বাসী সুর শোনা গেল দিলীপ ঘোষের গলায়। বললেন, ”যেভাবে ১৭ টি রাজ্যে বিজেপি ক্ষমতায় আছে, সেভাবে বাংলাতেও রাজত্ব করবে। বাংলায় ক্ষমতায় আসবেই বিজেপি।” আর সেই লক্ষ্যেই আগামী ৫ দিন ধরে নিজেদের প্রস্তুত করবে বঙ্গ বিজেপি।

[আরও পড়ুন: শিক্ষাব্যবস্থা নিয়ে ফের উপাচার্যদের সঙ্গে বৈঠক চান রাজ্যপাল, চিঠি দিলেন সুরঞ্জন দাসকে]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement