Advertisement
Advertisement

ঝগড়া এখনও মেটেনি, ভারতীকে পাশে বসিয়ে কেন এমন বললেন দিলীপ?

পালটা কী বললেন ভারতী?

Dispute not solved yet, Dilip to Bharati
Published by: Subhamay Mandal
  • Posted:March 5, 2019 6:26 pm
  • Updated:March 5, 2019 6:36 pm

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: সদ্য বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। কিন্তু রাজ্য সদর দপ্তরে পা রাখা হয়নি। মঙ্গলবার ৬ মুরলীধর সেন লেনে রাজ্য বিজেপির সদর দপ্তরে আসলেন প্রাক্তন আইপিএস ভারতী ঘোষ। গেলেন বঙ্গ বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষের ঘরে। সেখানে বসে দুজনে বেশ কিছুক্ষণ একান্তে আলোচনা করেন। কিন্তু ভারতীকে পাশে বসিয়ে দিলীপ ঘোষ বললেন, এখনও ঝগড়া মেটেনি। আর ভারতী পালটা বললেন, ঝগড়া সবসময় মিষ্টি হয়। কেন এমন বললেন দুজনে? রাজনৈতিক মহল মনে করছে, মজা করেই এই মন্তব্য দিলীপের। ঝাড়গ্রামের পুলিশ সুপার থাকাকালীন ভারতীর বিরুদ্ধে বিজেপি দলের হয়ে সবচেয়ে বেশি সরব হয়েছিলেন দিলীপ ঘোষই। খড়গপুরের বিধায়কের সঙ্গে তখন আদায় কাঁচকলা সম্পর্ক ছিল পুলিশকর্তার। কিন্তু সেসব এখন অতীত। বর্তমানে একই দলের সৈনিক। তাই পুরনো বিবাদ মিটিয়ে নতুন করে বাংলায় রণকৌশল তৈরি করতে হবে। সেই লক্ষ্যেই এদিন প্রথম ধাপ।

প্রসঙ্গত, একসময়ে এ রাজ্যে দাপুটে আইপিএস অফিসার ছিলেন ভারতী ঘোষ। তাঁকে পছন্দ করতেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু, শেষের দিকে ভারতীর কাজকর্মের ক্ষোভ জমছিল পুলিশমহলে। এই মহিলা আইপিএস অফিসারের বিরুদ্ধে অভিযোগ জমা পড়েছিল নবান্নে। গত বছরের মাঝমাঝি ভারতী ঘোষকে অপেক্ষাকৃত কম গুরুত্বপূর্ণ পদে বদলি করে দেয় সরকার। পদত্যাগ করেন তিনি। একদা মুখ্যমন্ত্রীর ঘনিষ্ঠ এই আইপিএস অফিসারের বিরুদ্ধে আয়ের সঙ্গে সঙ্গতিহীন সম্পত্তি ও তোলাবাজির অভিযোগে তদন্ত করছে সিআইডি। আগেই ভারতী ঘোষের স্বামী এমভি রাজুকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে৷ আয়ের সঙ্গে সঙ্গতিহীন সম্পত্তির মামলায় নাম জড়িয়েছে তাঁরও। গত ডিসেম্বরে গ্রেপ্তার করা হয় ভারতীর দেহরক্ষী সুজিত মণ্ডলকে। দিল্লির মালব্যনগরে গোপন অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করেন সিআইডির আধিকারিকরা। ইস্তফা দেওয়ার পর থেকেই রাজনৈতিক মহলে জল্পনা ছিল, বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন ভারতী। বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের সঙ্গে দিল্লিতে একাধিকবার তাঁর বৈঠক করার খবর রটে। এদিন সব জল্পনা সত্যি করে গত ৪ ফেব্রুয়ারি গেরুয়া শিবিরে নাম লেখান ভারতী। তারপর ঝাড়গ্রামে বেশ কিছু রাজনৈতিক কর্মসূচিতেও দেখা গিয়েছে ভারতীকে।

Advertisement

[রাজ্যে আসছেন রাহুল গান্ধী, মৌসমের গড় থেকেই শুরু লোকসভার প্রচার]

বিজেপি সূত্রে খবর, ঝাড়গ্রাম থেকেই প্রার্থী করা হতে পারে ভারতীকে। পুলিশ সুপার থাকার সুবাদে ওই এলাকা হাতের তালুর মতো চেনেন ভারতী। একসময় শাসকদলের অলিখিত ক্যাডারের দুর্নাম রটেছিল তাঁর বিরুদ্ধে। গত পঞ্চায়েত ভোটে ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া-সহ জঙ্গলমহলের একাধিক জায়গায় ভাল ফল করেছে বিজেপি। সেই ধারাকে লোকসভা ভোটেও অব্যাহত রাখতে বদ্ধপরিকর বিজেপি। সেক্ষেত্রে ভারতীই তাদের তুরুপের তাস হতে পারেন আসন্ন লোকসভা ভোটে। এদিকে রাজ্যজুড়ে বিজেপি কর্মীদের উপর মিথ্যা মামলা দেওয়ার প্রতিবাদে ১১ মার্চ থেকে গান্ধী মূর্তির নিচে অনশনে বসছে বিজেপির প্রাক্তন আইপিএস সেল। সেখানে আমন্ত্রণ জানানো হল ভারতী ঘোষকে।

Advertisement

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ