BREAKING NEWS

১৫  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

চিকিৎসকদের কর্মবিরতি আচরণবিধি ভাঙার শামিল, ক্ষুব্ধ হাই কোর্ট

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 5, 2018 8:36 am|    Updated: January 5, 2018 8:36 am

Doctors breaching code of conduct: Calcutta HC

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যখন তখন কর্মবিরতি। রাজ্যের চিকিৎসকদের বড় অংশের এই প্রবণতায় বেজায় ক্ষুব্ধ কলকাতা হাই কোর্ট। রীতিমতো ভর্ৎসনার সুরে প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ জানিয়ে দিল যা চলছে তা আচরণবিধি ভাঙার শামিল। আন্দোলনকারীদের শাস্তি দেওয়ার সুপারিশ করেছে আদালত।

[হাড় জুড়তে গিয়ে বালকের মৃত্যু, চাঞ্চল্য মেডিক্যাল কলেজে]

গত কয়েক বছরে রোগী ও চিকিৎসকদের সম্পর্ক যেন তলানিতে ঠেকেছে। কখনও রোগীর পরিবারের নিগ্রহের শিকার হচ্ছেন চিকিৎসকরা, কখনও ডাক্তাররাও পালটা মার দিচ্ছেন। এই প্রবণতা বাড়তে থাকায় চিকিৎসকরা মাঝেমধ্যেই নিরাপত্তার অভাবের কথা জানিয়ে কর্মবিরতিতে যাচ্ছেন। যার নিট ফল রোগীদের দুর্ভোগ, বিপর্যস্ত পরিষেবা। কিছু দিন আগে কর্মবিরতির ডাক দিয়েছিলেন রাজ্যের চিকিৎসকরা। সরকারি ডাক্তারদের মতো বেসরকারি হাসপাতালের চিকিৎসকরাও তাতে যোগ দিয়েছিলেন। এই ঘটনার প্রতিবাদে তিনটি সংগঠন কলকাতা হাই কোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছিল। সেই মামলার প্রেক্ষিতে শুক্রবার প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ রীতিমতো কড়া ভাষায় চিকিৎসকদের এমন মনোভাবের বিরুদ্ধে সরব হয়। আদালত জানায় ডাক্তররা যেভাবে কর্মবিরতি ভাঙছেন তা আসলে মেডিক্যাল কাউন্সিলের আচরণবিধি ভাঙার শামিল। ডিভিশন বেঞ্চ জানায় কাউন্সিলের কোড অব কন্ডাক্ট বলে এ ধরনের আপৎকালীন পরিষেবায় কোনওভাবে কালা দিবস বা কর্মবিরতি পালন করা যায় না। এরপরও কর্মবিরতিতে গেলে তা আচরণবিধি ভঙ্গ হিসাবে ধরে নেওয়া হবে। পাশাপাশি আদালত জানায় পরিষেবা যাতে বিঘ্ন না ঘটে তা নিশ্চিত করতে হবে ডাক্তারদের। কর্মবিরতিতে গেলে আন্দোলনকারীদের শাস্তি দিক কাউন্সিল। এমনই মন্তব্য করে প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ।

[ফেসবুক প্রোফাইল হ্যাক করে মহিলাদের অশ্লীল মেসেজ পাঠিয়ে ধৃত ২]

চলতি সপ্তাহে সংসদে মেডিক্যাল কাউন্সিল বিল পেশ করা নিয়ে গোটা দেশের চিকিৎসক মহল প্রতিবাদে নেমেছিল। হয়েছিল কর্মবিরতি। তার জেরে গোটা দেশে দুর্ভোগে পড়েছিলেন বহু মানুষ। আদালতের থেকে ধমক খেলেও কথায় কথায় কর্মবিরতির এই রোগ কবে দূর হবে তা এখন কোটি টাকার প্রশ্ন।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে