BREAKING NEWS

১৩ মাঘ  ১৪২৭  বুধবার ২৭ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

নেশা ছাড়ানোর চেষ্টার চরম পরিণতি, জামাইবাবুকে ছুরি মেরে আত্মঘাতী বেনিয়াপুকুরের যুবক

Published by: Paramita Paul |    Posted: November 30, 2020 10:42 pm|    Updated: November 30, 2020 10:42 pm

An Images

ছবি:‌ প্রতীকী

অর্ণব আইচ: শ্যালককে মাদকাসক্তি থেকে বের করে নিয়ে আসার চেষ্টা জামাইবাবুর। তারই জেরে জামাইবাবুকে খুনের চেষ্টা করে আত্মঘাতী হলেন এক যুবক। জানা গিয়েছে, নিজের পেটে ছুরি দিয়ে আঘাত করেন জুনাইদ আহমেদ(২১) নামে ওই যুবক। তাঁর মৃত্যু হয়। তাঁর জামাইবাবু মহম্মদ আরশাদকে কলকাতা ন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে সোমবার রাতে পূর্ব কলকাতার বেনিয়াপুকুর এলাকার রামমোহন বেরা লেনের ঘটনা। পুলিশের কাছে খবর আসে যে, এখানে কোনও গোলমাল হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখে, জুনাইদ আহমেদ নামে ওই যুবকের পেটে ছুরির আঘাতের চিহ্ন। মেঝে ভেসে যাচ্ছে রক্তে। রক্তাক্ত অবস্থায় ওই যুবকের জামাইবাবুকেও ঘরের ভিতর দেখা যায়। জুনাইদ ও আরশাদ দু’জনকেই হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। আহত অবস্থায় আরশাদকে হাসপাতালে ভরতি করা হয়।

[আরও পড়ুন : খাস কলকাতায় বাড়ির সামনে শ্লীলতাহানির শিকার তরুণী, প্রশ্নের মুখে নারী নিরাপত্তা]

জুনাইদের দাদু মহম্মদ ইব্রাহিম পুলিশকে জানান, আরশাদের বাড়ি তিলজলা রোডে। বেশ কিছুদিন ধরেই জুনাইদ মাদকাসক্ত। তা নিয়ে পরিবারে প্রায় গোলমাল হত। শ্যালকের মাদকাসক্তি সারানোর চেষ্টায় এদিন সন্ধ্যায় এক বন্ধুকে সঙ্গে নিয়ে আরশাদ শ্বশুরবাড়িতে যান। পরিবারের অন্যদের সঙ্গে বসে জুনাইদকে বোঝানোর চেষ্টা করেন। হঠাৎই হিংসাত্মক হয়ে ওঠে ওই যুবক। কোমর থেকে একটি ছুরি বের করে আরশাদকে ছুরি দিয়ে আঘাত করেন তিনি। কোনওমতে নিজেকে বাঁচাতে পালিয়ে যান আরশাদ। এর পরই ছুরি দিয়ে নিজের তলপেটে আঘাত করেন জুনাইদ। এর পরই রক্তাক্ত অবস্থায় তিনি পড়ে যান। ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয়। পুলিশকে পরিবারের অন্যরা একই ঘটনা জানিয়েছেন। যদিও আরশাদের উপর পুলিশের নজরদারি রয়েছে। জুনাইদের দেহের ময়নাতদন্তের পর পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন : আনন্দপুরে অভিজাত আবাসন থেকে ‘ঝাঁপ’, উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর মৃত্যুর কারণে ধোঁয়াশা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement