BREAKING NEWS

১৩ মাঘ  ১৪২৭  বুধবার ২৭ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

আনন্দপুরে অভিজাত আবাসন থেকে ‘ঝাঁপ’, উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর মৃত্যুর কারণে ধোঁয়াশা

Published by: Sayani Sen |    Posted: November 30, 2020 2:36 pm|    Updated: November 30, 2020 2:36 pm

An Images

প্রতীকী ছবি।

অর্ণব আইচ: শহরে ফের রহস্যমৃত্যু। আর এবার প্রাণহানি উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর। সোমবার সকালে আনন্দপুরের (Anandapur) একটি অভিজাত আবাসনের চব্বিশতলা থেকে ওই ছাত্র ঝাঁপ দেয় বলেই দাবি। তবে ঠিক কীভাবে মৃত্যু হল ওই স্কুলছাত্রের, তা খতিয়ে দেখছে আনন্দপুর থানার পুলিশ।

বাবা পেশায় ব্যবসায়ী। মা মুম্বইয়ে থাকেন। দম্পতির সন্তান ওই স্কুলছাত্র। ডন বসকো স্কুলে পড়ে সে। অন্যান্য দিনের মতো সোমবার সকালে ঘুম থেকে উঠে পড়তে বসে সে। বাড়িতে সেই সময় উপস্থিত ছিল ছাত্রের বাবা এবং দাদা। আচমকাই একটা কিছু পড়ে যাওয়ার শব্দ পান তাঁরা। নিরাপত্তারক্ষীও চমকে ওঠেন। ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখেন চব্বিশ তলার শৌচালয়ের জানলা থেকে নীচে ঝাঁপ দিয়েছে ওই স্কুলছাত্র। রক্তে ভেসে যাচ্ছে চতুর্দিক। তড়িঘড়ি তাকে উদ্ধার করা হয়। তবে ততক্ষণে প্রাণ গিয়েছে কিশোরের।

[আরও পড়ুন: কলকাতার চারটি বেসরকারি হাসপাতালে ঘুরেও মেলেনি বেড, অসহ্য পেটের যন্ত্রণায় মৃত্যু শিশুর]

ইতিমধ্যেই খবর পায় আনন্দপুর থানার পুলিশ। তদন্তকারীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে দেহ উদ্ধার করেন। আপাতত ওই স্কুল ছাত্রের দেহ ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। শহরের বিখ্যাত ইংরাজি মাধ্যম স্কুলের পড়ুয়া ছিল সে। জানা গিয়েছে, চলতি বছর উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা দেওয়ার কথা ছিল তার। তবে পড়াশোনা সঠিকভাবে তৈরি হয়নি। পরীক্ষা প্রস্তুতি খারাপ হওয়ায় মানসিক দুশ্চিন্তায় ছিল সে। তার ফলেই মানসিক অবসাদেই এহেন সিদ্ধান্ত নিয়েছে কিশোর। তবে এই ঘটনার নেপথ্যে অন্য কোনও কারণ রয়েছে কিনা, তাও খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারীরা। ঘটনার কিনারায় আপাতত কিশোরের পরিজনদের সঙ্গেই কথা বলছে আনন্দপুর থানার পুলিশ। তবে আদৌ ঝাঁপ নিয়ে মৃত্যু হয়েছে নাকি অন্য কিছু, সে সম্পর্কে সুনিশ্চিত হওয়ার জন্য ময়নাতদন্ত রিপোর্ট হাতে আসার অপেক্ষায় তদন্তকারীরা।

[আরও পড়ুন: ‘গুন্ডা’র জবাবে ‘খোকাবাবু’, ‘ভাইপো’র বদলে অভিষেককে নতুন নামে সম্বোধন দিলীপের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement